অপ্রর্দিশত অর্থকে সুযোগ দিলে নতুন বিনিয়োগ বাড়বে

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

জাতীয় সংসদের অধিবেশন কক্ষ ও বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্সি

walton

জাতীয় সংসদ ভবন থেকে: কালো টাকাকে অপ্রর্দিশত অর্থ অবহিত করে এই অপ্রদর্শিত অর্থকে সুযোগ দিলে নতুন করে বিনিয়োগ বাড়বে বলে মন্তব্য করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্সি। একইসঙ্গে বিড়ির শ্রমিকদের বিকল্প কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা না করে তাদের সরিয়ে দেওয়া ও সিগারেটে ট্যাক্স সুবিধা দিয়ে বিড়িকে বঞ্চিত করা ঠিক হবে না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

মঙ্গলবার (২৫ জুন) জাতীয় সংসদে ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটের উপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে এ মন্তব্য করেন মন্ত্রী। এসময় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী সভাপতিত্ব করেন। 

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাজেটে কালো টাকা সাদা করার কথা বলা হয়েছে। কালো টাকা কথাটা ঠিক না। এটাকে অপ্রদর্শিত অর্থ বলা যায়। আমরা মনে করি এই অপ্রদর্শিত অর্থকে সুযোগ দিলে নতুন করে বিনিয়োগ বাড়বে। কালো টাকা ব্যবসায় বিনিয়োগের সুযোগ না দিলে যে কোনো উপায়ে ওই টাকা দেশ থেকে বের হয়ে যাবে। এই কালো টাকা সাদা করার ক্ষেত্রে সবার জন্য ১০ শতাংশ ট্যাক্স সুবিধার কথা বলা হয়েছে। কিন্তু যে লোকটা ১শ জনের কর্মসংস্থান করবে আর যে লোকটা ৫শ জনের কর্মসংস্থান সৃষ্টি করবে- সবার জন্য সমান সুযোগ দেওয়ার বিষয়টা পুনরায় বিবেচনা করা দরকার। 

বিড়ি শ্রমিকদের বিষয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, আমি জানি বিড়ি-তামাক খাওয়া মানুষের মৃত্যুর কারণ। কিন্তু আমার এলাকাতেই (রংপুরে) প্রায় ৫০-৬০ হাজার বিড়ি শ্রমিক কাজ করে। তাদের বিকল্প চাকরির একটা ব্যবস্থা না করে তাদের সরিয়ে দিলে বাঁচবে কি করে। পাশাপাশি সিগারেটে ট্যাক্স সুবিধা দিয়ে বিড়িকে বঞ্চিত করা ঠিক হবে না।

তিনি বলেন, আমাদের জাতীয় রাজস্ব আয়ে শিল্পখাতের অবদান ৩১ শতাংশ। আমি বাজেটের পোশাকখাতে ভর্তুকি ১ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ২ শতাংশ করা প্রস্তাব করছি। আমরা সঠিক পথেই এগোচ্ছি। আগামী ৫ বছর পর এই সংসদে ১০ লাখ কোটি টাকার বাজেট করতে পারবো। 

বাণিজ্যমন্ত্রী আরও বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম সাধারণ মানুষের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যেই রয়েছে। গত রমজান মাসে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম সাধারণ মানুষের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে থাকায় অনেকে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছে। 

বাংলাদেশ সময়: ১৮১৮ ঘণ্টা, জুন ২৫, ২০১৯ 
এসকে/এএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: সংসদ অধিবেশন
করোনা থেকে রক্ষায় নফল ইবাদত ও দোয়ায় শবে বরাত পালিত
মেয়ের কাছে যৌতুক চেয়ে উল্টো যৌতুক দিতে হলো ছেলেকে
করোনা: ফরজ নামাজের পরেই বন্ধ মসজিদের দরজা
চমেক হাসপাতালে পিপিই দিলো সানশাইন চ্যারিটি
চট্টগ্রামে আরও ১০৪ জনের করোনা পরীক্ষা, আক্রান্ত নেই


করোনা: বাংলাদেশে শুধু বয়স্ক নয়, ঝুঁকিতে সব বয়সীরাই
পুলিশ প্রধান হিসেবে আমি অত্যন্ত গর্বিত ও আনন্দিত: আইজিপি
জাতীয় অধ্যাপক সুফিয়া আহমেদের ইন্তেকাল
কোয়ারেন্টিনে থাকা ব্যক্তিকে অ্যাপে নজরদারি করবে পুলিশ
মসজিদে মুসল্লি নিয়ন্ত্রণে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নজরদারি