ঢাকা, বুধবার, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, ১২ আগস্ট ২০২০, ২১ জিলহজ ১৪৪১

জাতীয়

কাচপুরে ৩০ পাকা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১১৫ ঘণ্টা, জুন ২৪, ২০১৯
কাচপুরে ৩০ পাকা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ  অভিযানে ৩ তলা এ বাড়িটিও ভেঙে দেওয়া হয়

নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের কাচপুর শীতলক্ষ্যা নদীর পূর্ব তীরে গড়ে ওঠা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করেছে বিআইডব্লিউটিএ নারায়ণগঞ্জ নদীবন্দর কর্তৃপক্ষ। 

রোববার (২৩ জুন) সকাল ১০টা থেকে নির্বাহী ম্যাজিস্টেট মোস্তাফিজুর রহমানের নেতৃত্বে এ উচ্ছেদ অভিযান চালান ভ্রাম্যমাণ আদালত।  

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোস্তাফিজুর রহমান জানান, সকাল থেকে বিকেল চারটা পর্যন্ত প্রায় ৩০টি অবৈধ স্থাপনা গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

৬০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে একটি তিনতলা ভবনের মালিককে।  

বিআইডব্লিউটিএ নারায়ণগঞ্জ নদীবন্দরের যুগ্ম পরিচালক গুলজার আলী জানান, শীতলক্ষ্যা নদীর পূর্ব তীরে কাচপুরের পুরান বাজার এলাকার নওয়াব আব্দুল মালেক জুট মিলের পাকা দেয়াল, একটি তিনতলা ভবন, দশটি একতলা ভবন ও গাইডওয়াল, দেয়াল, বাঁশের বেড়াসহ প্রায় ৩০টি কাঁচা-পাকা অবৈধ স্থাপনা ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়।

তিনি আরো জানান, আব্দুল মালেক জুট মিল শীতলক্ষ্যা নদীর তীরে ৩শ ফুট বাই ৫০ ফুট জায়গা ভরাট ও দখল করে গুদাম নির্মাণ করেছিল। এর আগে গত এক বছর আগে কয়েক দফায় নোটিশ দেওয়ার পরও কর্তৃপক্ষ তাদের অবৈধ স্থাপনাগুলো সরিয়ে না নেওয়ায় উচ্ছেদ করা হয়েছে। এছাড়া তারা অনুমোদনের কোনো বৈধ কাগজপত্রও দেখাতে পারেনি। তাদের নদীর জায়গায় স্থাপনা সরিয়ে নিতে সাতদিনের সময় দেওয়া হয়েছে।

এছাড়া নদীর তীর দখল করে গড়ে ওঠা সোলায়মান মিয়া একটি তিনতলা ভবনের আংশিক গড়ে তোলায় তা ভেঙে দেওয়া হয়েছে। তিনতলা ভবনের পাশের একটি মসজিদের সামনে একতলা বিশিষ্ট অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করায় সেটিও গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়।  

উচ্ছেদ অভিযানে আরো উপস্থিত ছিলেন বিআইডাব্লিউটিএ'র নারায়ণগঞ্জ নদী বন্দরের যুগ্ম-পরিচালক গুলজার আলী, উপ-পরিচালক মো. শহিদুল্লাহ, সহকারী পরিচালক এহতেশামুল পারভেজসহ অন্য কর্মকর্তারা।

বাংলাদেশ সময়: ২১০৯ ঘণ্টা, জুন ২৩, ২০১৯
এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa