ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭, ০১ অক্টোবর ২০২০, ১২ সফর ১৪৪২

জাতীয়

এবার মা-বাবাকে নিয়ে ঈদ করতে চায় শিশু মাসুদ

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৪৫৫ ঘণ্টা, জুন ১, ২০১৯
এবার মা-বাবাকে নিয়ে ঈদ করতে চায় শিশু মাসুদ নতুন জামা পরে দারুন খুশি শিশু মাসুদ/ছবি: বাংলানিউজ

কলমাকান্দা (নেত্রকোণা) থেকে: প্রায় দুই বছর হতে চললো মা-বাবা দু’জন দু’দিকে চলে গেছেন। তারপর থেকে বলতে গেলে মা-বাবার মায়ামমতা ছাড়াই দাদা-দাদির কাছে বড় হচ্ছে শিশু মাসুদ।

দাদি আহের বানু বলেন, ‘মাসুদকে নিয়ে করা বাংলানিউজের প্রতিবেদনের পর অনেক জামা-কাপড় ও আর্থিক সহযোগিতা পেয়ে ঈদ আনন্দ ভাগাভাগিতে মা-বাবাকে কাছে পেতে ব্যাকুল হয়েছে তার মন।  শিশুর ধারণা যেমন করে তার পোশাকের অভাব ঘুচেছে, তেমনি চাইলেই তাদের মা-বাবাকে এনে দিতে পারবে’।

‘মাসুদ বারবার বলছে সাংবাদিক চাচাকে বলো মা-বাবাকে ঈদে নিয়ে আসতে। মা-বাবার সঙ্গে ঈদে অনেক মজা করবো আমরা। কিন্তু ছেলে আলফত (মাসুদের বাবা) মাসুদের মাকে রেখে নতুন বিয়ে করে চলে গেছে চার সন্তানকে রেখে। চলে গেছে মাসুদের মা মদিনা আক্তারও! এরপর থেকেই বিভিন্ন জায়গায় দিনমজুরি করে হলেও নাতি-নাতনিদের ভরণপোষণ করে যাচ্ছি। কিন্তু চলছে না। আর্থিক দৈন্যতা কাটিয়ে উঠে চলতে পারি না সচ্ছলভাবে। ভয়াবহ রোগবালাই লেগেই থাকে মাসুদের দাদা মঙ্গল আলীর’।

এদিকে অষ্টম শ্রেণিতে পড়ুয়া মাসুদের বড়বোন মারুফা বাংলানিউজকে বলে, আমরা চাই আপনারা আমাদের মা-বাবার সঙ্গে থাকার ব্যবস্থা করে দেন। বাবা আবারো বিয়ে করেছেন আমাদের খোঁজখবর নেন না। দাদা অসুস্থ, কিছুদিন পরপরই সমস্ত শরীরে ফোসকা পড়ে যায়। তখন কাজকর্ম করতে পারেন না আমাদের খুব কষ্ট হয়। আর্থিক অভাবে চিকিৎসাও হচ্ছে না। দাদা ছাড়া আমাদের সংসার চালানোর কেউ নেই। তিনি দেশের বিভিন্ন প্রান্তে গিয়ে পারিশ্রমিকের বিনিময়ে কৃষি শ্রমিক হিসেবে কাজ করেন।

মাসুদের হাঁস বেচে ঈদের জামা কেনার বিষয়টি বাংলানিউজে প্রকাশের পর ব্যাপকভাবে পরিচিতি পায় মাসুদ। অনেকেই সাহায্য সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছেন।  

এরই পরিপ্রেক্ষিতে উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) কার্যালয়, সংশ্লিষ্ট থানা প্রাঙ্গণে সহায়তার জন্য ডাকা হলে খবর পেয়ে আম্মা (মদিনা) সেখানে যান। সহায়তা গ্রহণ করেন। এছাড়াও বিভিন্ন পর্যায়ের মানুষ মাসুদকে সহায়তা দিচ্ছেন।

অসুস্থ দাদা মঙ্গল আলী বাংলানিউজকে জানায়, সংসারের বিষয় যে কারণে মাসুদের মা-বাবা তাদের সন্তান রেখে অন্যত্র চলে যাওয়ার কথা না বলে গোপন করি।

কিন্তু সাংবাদিক বাসায় হাজির হলে যখন মাসুদের মা-বাবাকে দেখাতে পারিনি আমরা তখন প্রকৃত ঘটনা খুলে বলি।

** শিশু মাসুদের এখন অনেক জামা-কাপড়
** হাঁস বেচে ঈদের জামা কিনবে শিশু মাসুদ

বাংলাদেশ সময়: ০০৪৪ ঘণ্টা, জুন ০১, ২০১৯
এসএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa