ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৪ আগস্ট ২০২০, ১৩ জিলহজ ১৪৪১

জাতীয়

সহজ শর্তে ভ্রাম্যমাণ ব্যবসায়ী-হকারদের ভ্যান দেবে রাসিক

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৪-২৮ ০১:৫৯:২২ পিএম
সহজ শর্তে ভ্রাম্যমাণ ব্যবসায়ী-হকারদের ভ্যান দেবে রাসিক

রাজশাহী: ভ্রাম্যমাণ ব্যবসায়ী ও রাস্তার পাশে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের বিশেষ ভ্যান দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজশাহী সিটি করপোরেশন (রাসিক)। এসব ভ্যানে সিটি করপোরেশনের নির্ধারিত সময়ে মহানগরে ব্যবসা করতে পারবেন ভ্রাম্যমাণ ব্যবসায়ীরা।

রাজশাহী সিটি করপোরেশন সূত্র মতে, গত ১৫ এপ্রিল থেকে ২৪ এপ্রিল পর্যন্ত রাসিকের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সমর কুমার পালের নেতৃত্বে ফুটপাত ও রাস্তার পাশে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান পরিচালিত হয়।  

এসব অভিযানে অবৈধ অনেক দোকান ভাঙা পড়েছে।

ফুটপাত ও রাস্তার পাশে ভ্রাম্যমাণ ব্যবসায়ীদের কথা চিন্তা করে তাদের ব্যবসার জন্য ভ্যান দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষ।  

সিটি করপোরেশনের মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটনের নির্দেশনা মতো একটি ভ্যান তৈরি করা হয়েছে। শিগগিরই আরও বিভিন্ন মডেলের ভ্যান তৈরি করা হবে।  

এর মধ্যে সবচেয়ে সুন্দর ও ভালো ভ্যানটি সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে ভ্রাম্যমাণ ব্যবসায়ী ও হকারদের সরবরাহ করা হবে। এ ভ্যানে করে নির্ধারিত সময় ব্যবসা করে ভ্যান সরিয়ে নিয়ে নিজেদের জায়গায় রাখতে হবে।

এ ব্যাপারে সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র-১ সরিফুল ইসলাম বাবু বাংলানিউজকে জানান, সিটি মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন ও দৃষ্টিনন্দন মহানগর গড়তে কাজ করে যাচ্ছেন। সিটি মেয়রের নির্দেশনায় ভ্রাম্যমাণ ব্যবসায়ীদের ভ্যান দেওয়ার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

তিনি আরও জানান, নাগরিকদের চলাচলের সুবিধার জন্য ফুটপাত ও রাস্তার পাশে অবৈধ দোকান বা স্থাপনা করতে দেওয়া হবে না। তবে ব্যবসায়ীরা সিটি করপোরেশনের বেঁধে দেওয়া সময়সীমার মধ্যে সরবরাহকৃত ভ্যানে ব্যবসা করতে পারবেন। ভ্যানের জন্য মূল্য পরিশোধ করতে হবে। ব্যবসায়ীরা কিস্তিতে সেই টাকা পরিশোধের সুযোগ পাবেন। একই সঙ্গে আগ্রহী ব্যবসায়ীদের সিটি করপোররেশনে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। ভ্যান সরবরাহের জন্য নীতিমালাও প্রস্তত করা হচ্ছে।    

গত ৯ এপ্রিল রাজশাহী সিটি করপোরেশনের বিশেষ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সিদ্ধান্ত অনুযায়ী গত ১৫ এপ্রিল থেকে ২৪ এপ্রিল পর্যন্ত ফুটপাত ও রাস্তার পাশে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান পরিচালিত হয়।  

অন্যদিকে একই সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, প্রতিদিন সকাল থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ফুটপাত বা রাস্তার পাশে দোকান বসাতে পারবেন না ব্যবসায়ীরা। ফুটপাত ও রাস্তার পাশের ব্যবসায়ীরা বিকেল ৪টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত ব্যবসা করতে পারবেন।  

একই সঙ্গে কোনো ব্যবসায়ী ফুটপাত বা রাস্তায় স্থায়ীভাবে ব্যবসার মালামাল/সরঞ্জাম রাখতে পারবেন না। বিকেল ৪টায় মালামাল এনে দোকান বসিয়ে রাত ১০টা পর্যন্ত ব্যবসা করতে পারবেন। এরপর রাত ১০টায় দোকান সরিয়ে নিয়ে যেতে হবে।

বাংলাদেশ সময়: ০৯৫৭ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৮, ২০১৯
এসএস/আরবি/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa