মাধবপুরে ব্যবসায়ীকে ছুরিকাঘাত, ২ মোটরসাইকেল জব্দ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: প্রতীকী

walton

হবিগঞ্জ: হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলায় মিলন মিয়া (২৮) নামে এক ব্যবসায়ীকে ছুরিকাঘাত করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। ঘটনার পর হামলাকারীদের ফেলে যাওয়া দু’টি মোটরসাইকেল জব্দ করে পুলিশ।

শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) বিকেল ৫টার দিকে উপজেলার কালীরবাজারে এ ঘটনা ঘটে। আহত মিলন মাধবপুর উপজেলার আহম্মদপুর গ্রামের আব্দুন নূরের ছেলে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, আহাম্মদপুর জামে মসজিদে জুম্মার নামাজে খুতবার সময় বাচ্চাদের কথা বলার জের ধরে মিলনের সঙ্গে কথার কাটাকাটি হয় মাধবপুর উপজেলার সোয়াবই গ্রামের সিরাজ আলীর ছেলে শাকিব মিয়ার। বিকেলে শাকিব তার লোকজনকে নিয়ে কালীবাজার এলাকায় মিলনের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা চালিয়ে তাকে ছুরিকাঘাত করে। 

পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে রেফার করেন।

কাশিমনগর পুলিশ ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুর্শেদ আলম বাংলানিউজকে বলেন, হামলাকারীদের আটকে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে পুলিশ। ঘটনাস্থল থেকে দু’টি মোটরসাইকেল জব্দ করা হয়েছে। তিবেদন লেখা পর্যন্ত মামলা দায়ের করা হয়নি। তবে মিলনের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে নগদ টাকা এবং মালামাল লুটপাট হয়েছে বলে মৌখিকভাবে তার পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করে।
 
মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেলে অফিসার সঞ্জয় পাল বাংলানিউজকে বলেন, মিলনের বুকে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় রেফার করা হয়। 

তবে পরিবারের লোকজন তাকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাচ্ছেন বলে নিশ্চিত করেন তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ১৮২০ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৯, ২০১৯
জিপি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: হবিগঞ্জ ছুরিকাহত
Nagad
মাস্কাট থেকে ফিরলেন ২৫৪ বাংলাদেশি
পর্যটকদের জন্য খুললো ভূ-স্বর্গ কাশ্মীর
রাঙামাটিতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ২ শ্রমিকের মৃত্যু
ফ্যাসিবাদী গান গেয়ে বিতর্কিত জার্মান অধিনায়ক নয়্যার
করোনা: বগুড়ায় একদিনে সুস্থ ৫৯, শনাক্ত ৪৫


প্রতি বছর ঢলে ভাসছে মুহুরী-কহুয়া-সিলোনীয়া পাড়ের মানুষ
যমুনার পানি বিপৎসীমার ৭৭ সে.মি. উপরে
একজন রাষ্ট্রনায়কের বিদায়
কোরবানির হাট কাঁপাবে নাগরপুরের ‘খোকা বাবু’
সাহেদের তথ্য চেয়ে ২ সংস্থাকে দুদকের চিঠি