ডুয়েটে টেন্ডার জমা দিতে ছাত্রলীগের বাধার অভিযোগ

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

গাজীপুরে অবস্থিত ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (ডুয়েট) ছাত্রলীগের কর্মীদের বিরুদ্ধে রোববার ঠিকারদারদের টেন্ডার জমা দানে বাধা দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গাজীপুর: গাজীপুরে অবস্থিত ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (ডুয়েট) ছাত্রলীগের কর্মীদের বিরুদ্ধে রোববার ঠিকারদারদের টেন্ডার জমা দানে বাধা দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

টেন্ডার জমা দেওয়ার অপরাধে ছাত্রলীগের কর্মীরা ঠিকাদারদের আটকে রেখে মারধর ও টেন্ডারের সিডিউল ছিনতাই করারও বলে অভিযোগ উঠেছে।

রোববার বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে এসব অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে। এর পরিপ্রেক্ষিতে কর্তৃপক্ষ টেন্ডার বাতিলের মৌখিক ঘোষণা দেয়।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, টেক্সটাইল কৌশল বিভাগের যন্ত্রপাতি কেনার জন্য ১ কোটি ৫ লাখ টাকার কার্যাদেশ দিয়ে দরপত্র আহ্বান করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। রোববার ছিল দরপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন।

শেষ দিনে টেন্ডার জমা দিতে গেলে ছাত্রলীগের কর্মীরা বেশ কয়েকজন ঠিকাদারকে দরপত্র জমা দিতে বাধা দেয়। তাদের কথা না শুনে এক ঠিকাদার টেন্ডার জমা দিতে গেলে একজনের কাছ থেকে তারা সিডিউল ছিনিয়ে নেয়। এছাড়া আরও এক ঠিকাদারের প্রতিনিধিকে তারা মারধর ও আটকে রাখে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

একপর্যায়ে উপাচার্যের কার্যালয়ের সামনে অরাজকতা সৃষ্টি হলে পুলিশ এসে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে। পরে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এক বৈঠকে ওই টেন্ডার বাতিলের মৌখিক ঘোষণা দেয় এবং সোমবার তা আনুষ্ঠানিকভাবে নোটিশ দেওয়া হবে বলে জানা গেছে।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের দরপত্র মূল্যায়ন কমিটির  চেয়ারম্যান শওকত ওসমান টেন্ডার বাতিলের বিষয়টি নিশ্চিত করে বাংলানিউজকে জানান, এক ঠিকাদারের কাছ থেকে সিডিউল ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়ার পর টেন্ডারটি বাতিল করা হয়েছে। তবে কাউকে মারধর কিংবা আটকে রাখার কোনো ঘটনা নিয়ে তাদের কাছে কেউ অভিযোগ করেননি।

এদিকে, বিশ্ববিদ্যালয়ের দায়িত্বশীল একটি সূত্র জানায়, প্রকল্পের বরাদ্দ করা টাকা দিয়ে শিক্ষার্থীদের গবেষণাগারে যন্ত্রপাতি কেনার জন্য এ দরপত্র আহ্বান করা হয়েছিল। আগামী জুন মাসে ওই প্রকল্পের মেয়াদ শেষ হবে। এ অবস্থায় নতুন করে টেন্ডার দিয়ে যন্ত্রপাতি কেনা নিয়ে জটিলতা সৃষ্টি হবে। কারণ, অনেক যন্ত্রপাতি বিদেশ থেকে আমদানি করতে হবে। সে ক্ষেত্রে অল্প সময়ে এ কাজ করা প্রায় অসম্ভব ব্যাপার হয়ে দাঁড়াবে।

যোগাযোগ করা হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাধিক শিক্ষক বাংলানিউজকে জানান, ছাত্রলীগের কিছু সংখ্যক নেতাকর্মীদের কাছে তারা অসহায় হয়ে পড়েছেন। এতে শিক্ষা কার্যক্রম দারুনভাবে ব্যাহত হচ্ছে।
অপরদিকে, হুমায়ুন কবির কিরন নামে এক ঠিকাদার বাংলানিউজকে অভিযোগ করেন, বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে কর্মরত ঠিকাদারদের কাছ থেকে ছাত্রলীগের কিছু নেতাকর্মী বিভিন্ন অজুহাতে চাঁদা আদায় করছেন।

চাঁদা নাদেওয়ায় তিনি নিজেও মাসখানেক আগে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের হামলার শিকার হন।

এছাড়া চাঁদা না পেয়ে ছাত্রলীগের কর্মীদের বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন কাজ বন্ধ করে দেওয়ার অভিযোগও রয়েছে। এর আগে জাতীয় শোক দিবস পালনের জন্য ছাত্রলীগের কর্মীরা ঠিকাদারদের কাছে মোটা অংকের টাকা চাঁদা দাবি করেন বলেও অভিযোগ রয়েছে। পরে কিছু টাকা দিয়ে বিষয়টি নিষ্পত্তি করা হয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন ঠিকাদার বাংলানিউজকে অভিযোগ করেন, ছাত্রলীগের কর্মীরা বিভিন্ন অজুহাতে তাদের কাছে চাঁদা দাবি করছেন। না দিলে সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে তাদের।

তারা আরও অভিযোগ করেন, এর আগে কখনো ক্যাম্পাসে ঠিকাদারদের চাঁদাবজির শিকার হতে হয়নি। বিভিন্ন অনুষ্ঠানে তারা অল্প কিছু টাকা খুশি হয়ে শিক্ষার্থীদের দিতেন। কিন্তু ইদানিং পরিস্থিতি ভয়াবহ হয়ে উঠেছে। এভাবে চলতে থাকলে তারা সেখানে কোনো কাজ করতে পারবেন না।

এ প্রসঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মাসুম বাংলানিউজকে জানান, তার জানা মতে, এসব ঘটনার সঙ্গে ছাত্রলীগের কেউ জড়িত নেই। তারপরও বিষয়টি তিনি খোঁজ নিয়ে দেখবেন বলে জানান।

বাংলাদেশ সময়: ০০৩৭ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৮, ২০১১

Nagad
প্রভাতী ইন্স্যুরেন্সের লভ্যাংশ ঘোষণা
নিউইয়র্কে পাঠাওয়ের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ফাহিম খুন
ছোটপর্দায় আজকের খেলা
কথায় কথায় অনলাইনে খাবার অর্ডার করেন, নিরাপদ তো? 
শীর্ষ চারের লড়াইয়ে এগিয়ে গেল চেলসি


এন্ড্রু কিশোরের শেষকৃত্যানুষ্ঠান শুরু, চলছে প্রার্থনা
বার বার অবস্থান পরিবর্তন, দালালের সহায়তায় দেশত্যাগের চেষ্টা
স্বাস্থ্যবিধি মেনেই চলছে ব্যাংকের কার্যক্রম
করোনা: চট্টগ্রামে নতুন শনাক্ত ১৬৭
খুলনায় দিয়াশলয় নিয়ে মারামারিতে যুবক নিহত