পরকীয়ার জেরেই হত্যা করা হয় জুয়েলকে

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন। ছবি: বাংলানিউজ

walton

ব্রাহ্মণবাড়িয়া: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলার জুয়েল মিয়া (২৬) হত্যার রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ। পরকীয়ার জেরেই তাকে হত্যা করা হয় বলে জানিয়েছেন জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি) মোহাম্মদ আলমগীর হোসেন।

php glass

বুধবার (১০ এপ্রিল) দুপুরে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এ তথ্য জানানো হয়। 

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলমগীর হোসেন জানান, নাসিরনগর উপজেলার চাপরতলা ইউনিয়নের চাপরতলা গ্রামের হারুন মিয়ার স্ত্রী আসমার সঙ্গে জুয়েলের দীর্ঘদিন ধরে পরকীয়া চলছিল। হারুন বিষয়টি বুঝতে পেরে তাদের দুই জনকে সতর্ক করে দেন। এরপর তারা সম্পর্ক চালিয়ে গেলে হারুন কৌশলে জুয়েলকে বাড়িতে ডেকে নিয়ে এসে তাকে হত্যা করেন। পরে ছুরিকাঘাতসহ তার মুখমণ্ডল বিকৃত করে জুয়েলের মরদেহ ডোবায় ফেলে দেন।

এ ঘটনার পাঁচদিন পর ওই ডোবা থেকে জুয়েলের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় নিহত জুয়েলের চাচা আব্দুল হকের করা মামলার সূত্র ধরে পুলিশ তদন্ত শুরু করে। তদন্তে পরকীয়ার বিষয়টি বেরিয়ে আসলে হারুন ও তার স্ত্রীকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ। তাদের দুইজনকে এ মামলায় গ্রেফতার দেখানো হলেও আরও পাঁচজন পলাতক রয়েছেন। তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে জানান আলমগীর হোসেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪৯ ঘণ্টা, এপ্রিল ১০, ২০১৯
এনটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: পরকীয়া ব্রাহ্মণবাড়িয়া
নৈরাজ্য ও নেতিবাচক রাজনীতির দিন শেষ: নাসিম
রূপগঞ্জে ফ্রি চিকিৎসা পাবে ৩৫ হাজার দুস্থ রোগী 
রাজশাহীতে বসুন্ধরা ও কিং ব্র্যান্ড সিমেন্টের ইফতার 
শিবগঞ্জের পাগলা নদী খনন কাজের উদ্বোধন
৫ দিনে দুবাইয়ের ১৬টি লোকেশনে ‘মিশন এক্সট্রিম’র শুটিং


হাতিরঝিলে ময়লার ভ্যান থেকে নবজাতকের মরদেহ উদ্ধার
চুরি করে ওয়াসার পানি বিক্রির দায়ে কারাদণ্ড
পার্বত্যাঞ্চলে পুনরায় সেনাক্যাম্প চালুর দাবি
চুয়াডাঙ্গায় পৃথক ঘটনায় ৩ জনের মৃত্যু
প্রতিপক্ষরা এখনও আমাকে ভয় পায়: গেইল