ধূমপানজনিত রোগে বছরে চিকিৎসা ব্যয় ৫ হাজার কোটি টাকা

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

ধূমপানের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ ক্ষতি ছাড়াও ধূমপানজনিত রোগের চিকিৎসায় প্রতি বছর রাজস্ব খাত থেকে সরকারের ৫ হাজার কোটি টাকা খরচ হয়

ঢাকা: ধূমপানের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ ক্ষতি ছাড়াও ধূমপানজনিত রোগের চিকিৎসায় প্রতি বছর রাজস্ব খাত থেকে সরকারের ৫ হাজার কোটি টাকা খরচ হয়

একই সঙ্গে পরিবেশও ঝুঁকির মধ্যে পড়ছে।

রোববার বেলা ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাবে  ‘তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন সংশোধনে জনগণের প্রত্যাশা ও করণীয়’ শীর্ষক গোল টেবিল বৈঠকে বক্তারা এ অভিমত ব্যক্ত করেন।

তারা আইনের যথাযথ প্রয়োগ এবং কর্পোরেট প্রতিষ্ঠানগুলোকে সামাজিক দায়বদ্ধ হওয়ার পরামর্শ দেন।

ধূমপানের ক্ষতিকর দিক বিবেচনায় তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন সংশোধন করা উচিত বলেও মনে করেন বক্তারা।

ইউনাইটেড ফোরাম এগিনেস্ট টোবাকো (ইউএফএটি) এবং ওয়ার্ক ফর বেটার বাংলাদেশ (ডব্লিউবিবি ট্রাস্ট) যৌথভাবে এ বৈঠকের আয়োজন করে।

আলোচনায় পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলনের (পবা) চেয়ারম্যান আবু নাসের খান বলেন, তামাকের বিরুদ্ধে রাজনৈতিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। এটা একক কোনও রাজনৈতিক দলের ক্ষতির বিষয় নয়, সামগ্রিকভাবে দেশের মানুষের সমস্যা।

তিনি তামাক নিয়ন্ত্রণ আইনটি সংশোধন এবং যথাযথ প্রয়োগের ওপরও গুরুত্বারোপ করেন।

নারীপক্ষের সভাপতি অ্যাডভোকেট হাবিবুন নেসা বলেন, ধূমপানের পরোক্ষ ক্ষতির শিকার হয় নারী ও শিশু। ছোট বেলায় শিশুদের এ বিষয়ে সচেতন করে তুলতে হবে।

সাংস্কৃতিক সংগঠক রোকেয়া প্রাচী বলেন, শিশুরাই এক সময় দেশের নেতৃত্ব দেবে। তাই স্কুল থেকে যদি তাদেরকে ধূমপানের ক্ষতিকর প্রভাব বিষয়ে সচেতন করা যায়, তবে এ বিষয়ে ভাল ফল পাওয়া যাবে।

পাশাপাশি তিনি পুলিশ প্রশাসনকে ধূমপানবিরোধী একটি বিশেষ সেল গঠন করে তা তদারকির আহ্বান জানান।

সভাপতির বক্তব্যে ইউএফএটি’র সাংগাঠনিক সম্পাদক ডা. সোহেল রেজা চৌধুরী জানান, ন্যাশনাল কারিকুলাম অ্যান্ড টেক্সট বোর্ড (এনসিটিবি) ২০১৩ সালের নতুন বইয়ে তামাকবিরোধী কনটেন্ট সংযুক্ত করার আশ্বাস দিয়েছে।

এছাড়া মেডিকেল কলেজের পাঠ্যসূচিতে এ বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হতে পারে বলে জানান তিনি।

তিনি সরকারের কাছে তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন সংশোধনেরও জন্য আহ্বান জানান।

অন্যান্যের মধ্যে টিএফকে’র মিডিয়া ও অ্যাডভোকেসি কর্মকর্তা তাইফুর রহমান, ব্র্যাক কর্মকর্তা মমিনুল ইসলাম, পলিসি রিসার্স ফর ডেভেলপমেন্ট অল্টারনেটিভ এর গবেষক শাহিনুর বেগম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

বৈঠকে জানানো হয়, দেশে তামাকজনিত রোগে প্রতিদিন ১৬০ জন মানুষ মারা যায়।

বক্তারা সব ধরণের তামাকজাত দ্রব্যকে সংজ্ঞায়িত, পাবলিক প্লেসে ধূমপান নিষিদ্ধের চিহ্ন ব্যবহার, বিড়ি-সিগারেটের প্যাকেটে ধূমপানের ভয়ংকর ছবি সংযুক্তকরণ, কোম্পানিগুলোকে শাস্তির আওতায় আনার দাবি জানানো হয়।

বাংলাদেশ সময়: ২০৩৬ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৭, ২০১১

Nagad
পাটকল বন্ধের সিদ্ধান্ত আত্মঘাতী
ঢাকায় ৭ জুলাই থেকে ফ্লাইট চালাবে মালিন্দ এয়ার
দক্ষিণ আফ্রিকার বর্ষসেরা ক্রিকেটার ডি কক
কাউকেই অতিরিক্ত বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করতে হবে না: সচিব
ডিএসইর চেয়ে বেশি লেনদেন সিএসইতে


সৈয়দপুরে করোনায় আরও একজনের মৃত্যু
না’গঞ্জে করোনায় মারা যাওয়া মুক্তিযোদ্ধার দাফনে খোরশেদ
সরকার সীমান্ত হত্যার প্রতিবাদ করতে পারে না: রিজভী
করোনা: না’গঞ্জে আক্রান্ত ৫ হাজারের ৪ হাজার সুস্থ
রোনালদোদের কাজ আরও সহজ করে দিলেন ইব্রা-রেবিচ