বাথরুমের গ্রিল ভেঙে পালালো আসামি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

হাসপাতালের বাথরুমের ভাঙা গ্রিল

walton

বরিশাল: গ্রেফতার এড়াতে শিশু অপরহণ ও হত্যা মামলার আসামি দুখু মিয়া শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বাথরুমের গ্রিল ভেঙে পালিয়ে গেছেন।

php glass

মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) ভোরের দিকে পুলিশের চোখে ধুলা দিয়ে হাসপাতালের চতুর্থ তলায় ইএনটি ওয়ার্ডের বাথরুমের গ্রিল খুলে হাতকড়াসহ পালিয়ে যান তিনি। এ নিয়ে হাসপাতালের রোগীদের মাছে বেশ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

পলাতক দুখু মিয়া রংপুরের বাসিন্দা। নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা থানায় এক শিশুকে অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায় ও পরবর্তীতে হত্যার অভিযোগে দায়েরকৃত একটি মামলার আসামি তিনি। 

গত ৪ মার্চ ঢাকা পুলিশ ব্যুরো ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) পুলিশ তাকে বরিশাল নগরের পলাশপুরের গুচ্ছগ্রামে ভাড়া বাসা থেকে গ্রেফতার করতে গেলে গলায় ব্লেড দিয়ে আঘাত করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিলেন দুখু মিয়া।

হাসপাতালে আসামি দুখু মিয়ার হেফাজতের দায়িত্বে থাকা বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) আমিনুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, গলায় আঘাতজনিত কারণে গত ৪ ফেব্রুয়ারি থেকে দুখু মিয়াকে শেবাচিম হাসপাতালের চতুর্থ তলায় ইএনটি ওয়ার্ডে ১নং বেডে ভর্তি রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিলো।

এএসআই আমিনুল বলেন, রাত ৩টার দিকে দুখু মিয়া বাথরুমে যাবার কথা বলেন। এজন্য আমি এবং কনস্টেবল রিয়াদ তার এক হাতে হ্যান্ডকাপ পরিয়ে ওয়ার্ডের বাথরুমে নিয়ে যাই। দুখু বাথরুমে ঢুকে অনেক জোরে কল ছেড়ে দেন। কিন্তু বাথরুম থেকে বের হতে দেরি হওয়া এবং কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে বাথরুমের দরজায় ধাক্কা দেই। এতেও কোনো সাড়া শব্দ না পেয়ে দরজা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করতেই দেখতে পাই বাথরুমের জানালার গ্রিল খুলে বাথরুমের প্যানের উপর ফেলে রাখা। যে জুতা পরে দুখু মিয়া বাথরুমে ঢুকেছিলেন সেই জুতা জোড়াও পড়ে আছে।

এএসআই আমিনুল বলেন, আসামি দুখু মিয়া সুস্থ ছিলেন। এজন্য ইএনটি ওয়ার্ডের চিকিৎসকদের একাধিকবার বলেছি হাসপাতালের প্রিজন সেলে পাঠানোর জন্য। কিন্তু তাদের আসা-যাওয়ায় কষ্ট হবে বলে তাকে ওয়ার্ডেই ভর্তি রাখে।

এ বিষয়ে কোতয়ালি মডেল থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) মো. নুরুল ইসলাম বলেন, আসামির হেফাজতের দায়িত্বে থাকা পুলিশ জানিয়েছে যে দুখু মিয়া জানালার গ্রিল খুলে হ্যান্ডকাপ নিয়ে পালিয়েছে। তবে আসামির পালানোর পেছনে পুলিশের কোনো গাফিলতি রয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। পাশাপাশি পালিয়ে যাওয়া আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭০৫ ঘণ্টা, মার্চ ২৬, ২০১৯
এমএস/এমজেএফ

বাগেরহাটবাসীকে শিক্ষিত, মার্জিত, মেধাবী ও দক্ষ হতে হবে
তাপদাহে ওষ্ঠাগত রাজশাহীর জনজীবন
চবির সাবেক শিক্ষার্থীদের পুনর্মিলনী ১৮ নভেম্বর
শাহবাগে চাকরির বয়স ৩৫ করার দাবিতে সমাবেশ, আটক ৭
আদিতমারীতে গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার 


টাঙ্গাইলে ভুয়া চিকিৎসকের কারাদণ্ড
অনশনরত রোহিঙ্গাদের নির্যাতন করছে সৌদি আরব!
উন্নয়‌নের অগ্রযাত্রা ধরে রাখ‌তে শেখ হা‌সিনার বিকল্প নেই
গাজীপুরে অটো‌রিকশা-কভার্ডভ্যানের সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ৫
বিদেশে নেওয়ার আশ্বাসে ৮ কোটি টাকা হাতিয়ে নিলেন তারা