মির্জাপুরে এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে হত্যা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: প্রতীকী

walton

টাঙ্গাইল: জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে মো. আজিজুল ইসলাম (৩০) নামে এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৫ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

php glass

শুক্রবার (০৮ মার্চ) বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে ঢাকায় নেওয়ার পথে আজিজুল মারা যান। 

আজিজুল ইসলাম উপজেলার দেওভোগ গ্রামের আ. রউফের ছেলে। তিনি বগুড়া ক্যান্টনমেন্ট আর্টিলারি কোরে কর্মরত ছিলেন।

আটকরা হলেন- দেওভোগ গ্রামের আব্দুর রশিদ মিয়ার ছেলে বেলাল মিয়া (৬৫), একই গ্রামের ফিরোজ মোল্লার ছেলে খাইরুল মোল্লা (১৮), আমজাদ মোল্লার ছেলে আকরাম মোল্লা (১৯), রাজ্জাজ মোল্লার ছেলে মেহসীন মোল্লা (২৮) ও রফিক মোল্লার ছেলে লিটন মোল্লা (১৭)।

মির্জাপুর থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মুরাদ বাংলানিউজকে জানান, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে বুধবার রাতে দেওভোগ গ্রামের বাকী মোল্লার ছেলে কামরুল ও আব্দুর রউফ মিয়ার ছেলে রাসেলের মধ্যে মারামারি হয়। পরে স্থানীয়রা বিষয়টি মীমাংসার জন্য বৃহস্পতিবার সালিশি বৈঠকের কথা বলেন। কিন্তু কামরুল বৈঠকের আগেই রাসেলের ওপর হামলা চালিয়ে তাকে পিটিয়ে আহত করেন। 

এদিকে, রাসেলের বড় ভাই সেনা সদস্য আজিজুল ইসলাম বৃহস্পতিবার রাতে ছুটিতে বাড়ি এসে এ ঘটনা জানতে পারেন। মীমাংসার কথা হওয়ার পরও কেন তার ভাইকে মারা হলো তা জানতে শুক্রবার সকালে আজিজুল তার চাচাদের নিয়ে গ্রামের উত্তরপাড়ায় যান। একপর্যায়ে উভয়পক্ষের মারামারি শুরু হলে আজিজুলসহ উভয়পক্ষের কমপক্ষের ছয়জন আহত হন। আহতদের মধ্যে আজিজুলকে প্রথমে মির্জাপুর কুমুদিনী হাসপাতালে ও পরে ঢাকায় নেওয়ার পথে বিকেলে তিনি মারা যান। এছাড়া আহত তিনজনকে উপজেলাস্থ জামুর্কী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৫৯ ঘণ্টা, মার্চ ০৮, ২০১৯
এনটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: টাঙ্গাইল হত্যা
চবির সাবেক শিক্ষার্থীদের পুনর্মিলনী ১৮ নভেম্বর
শাহবাগে চাকরির বয়স ৩৫ করার দাবিতে সমাবেশ, আটক ৭
আদিতমারীতে গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার 
টাঙ্গাইলে ভুয়া চিকিৎসকের কারাদণ্ড
অনশনরত রোহিঙ্গাদের নির্যাতন করছে সৌদি আরব!


উন্নয়‌নের অগ্রযাত্রা ধরে রাখ‌তে শেখ হা‌সিনার বিকল্প নেই
গাজীপুরে অটো‌রিকশা-কভার্ডভ্যানের সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ৫
বিদেশে নেওয়ার আশ্বাসে ৮ কোটি টাকা হাতিয়ে নিলেন তারা
‘ট্যাক্স না দেয়ার সংস্কৃতি থেকে বের হতে হবে’
২০৩০ সালের মধ্যে গুণগত শিক্ষা নিশ্চিত করতে হবে