সুবর্ণচরে গণধর্ষণ: আসামি হেঞ্জু মাঝির স্বীকারোক্তি

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: প্রতীকী

নোয়াখালী: ভোটের জেরে নোয়াখালীর সুবর্ণচরে চার সন্তানের জননী গণধর্ষণের ঘটনায় জড়িত এজাহারভুক্ত আসামি মো. কামাল ওরফে হেঞ্জু মাঝি স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

শনিবার (১২ ডিসেম্বর) বিকেলে হেঞ্জু মাঝি নোয়াখালী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক শোয়েব উদ্দিন খানের আদালতে এ স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা জাকির হোসেন বাংলানিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

এর আগে গৃহবধূ ধর্ষণের ঘটনায় ২ নম্বর আমলি আদালতের জ্যেষ্ঠ বিচারক নবনীতা গুহের আদালতে ছয়জন স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়। এ নিয়ে মোট সাত আসামি জবানবন্দি দিয়েছে। এ মামলায় মোট ১১ জন আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।  

শুক্রবার (১১ জানুয়ারি) ভোরে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) কুমিল্লার দাউদকান্দি এলাকা থেকে কামাল ওরফে হেঞ্জু মাঝিকে গ্রেফাতার করে। তিনি সুবর্ণচর উপজেলার চরজুবলী ইউনিয়নের মধ্যম বাগ্যা গ্রামের মৃত চান মিয়ার ছেলে।

বাংলাদেশ সময়: ২০৩৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১২, ২০১৯
জিপি

বিএফডিসিতে বুলবুলের দ্বিতীয় জানাজা সম্পন্ন
ফেব্রুয়ারিতে একসঙ্গে দুইপক্ষের বিশ্ব ইজতেমা
লক্ষ্মীপুরে সাত দিনে সড়কে ঝরলো ১১ প্রাণ
নেভাল একাডেমিতে নিয়োগ
ভয়ংকর সড়কে প্রাণ হাতে নিয়ে যাত্রা
স্বস্তি ফিরিয়ে আনে তাওবা
অদ্ভূত কারণে খেলা বন্ধ
বিএনপির আন্দোলনে জনগণ সাড়া দেবে এটা দুঃস্বপ্ন: কাদের
ব্যাংকিং খাতে অনিয়ম তদন্তে কমিশন গঠন করতে নোটিশ
‘কাউন্সেলিংয়ে মাদক থেকে দূরে রাখা সম্ভব’