মামলার রায় পক্ষে আনার প্রলোভন দেখিয়ে গণধর্ষণ, আটক ২

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

প্রতীকী

কুমিল্লা: কুমিল্লায় নারী নির্যাতনের মামলার রায় পক্ষে আনার প্রলোভন দেখিয়ে এক নারীকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।

ওই ঘটনায় বুধবার (০৯ জানুয়ারি) দুপুরে মামলা দায়েরের পর আনিছুর রহমান ও লিটন বিশ্বাস নামে অভিযুক্ত দুই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

জেলার সদর দক্ষিণ মডেল থানার লালমাই উপজেলার শানিচোঁ গ্রামে এক ব্যক্তির নির্জন বাড়িতে এই গণধর্ষণের ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, জেলার দেবিদ্বার উপজেলার চাঁনপুর গ্রামের চার সন্তানের জননী তার স্বামী আবদুল মালেকের বিরুদ্ধে আদালতে নারী নির্যাতনের মামলা দায়ের করেন। এ মামলার রায় পক্ষে আনার প্রলোভন দেখিয়ে কুমিল্লার আদালতের এক আইনজীবীর সহকারী জহিরুল ইসলাম (৩৫) ওই নারীকে গত ২৮ ডিসেম্বর (শুক্রবার) শানিচোঁ গ্রামের এক আইনজীবীর নির্জন বাড়িতে নিয়ে আসেন। সেখানে তাকে দুপুর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত আটকে রেখে বাড়ির দারোয়ান লিটন বিশ্বাস (৩৮), আরেক আইনজীবী সহকারী আনিছুর রহমান (৩৫) মিলে পালাক্রমে ধর্ষণ করেন।

এ ঘটনায় ওই নারী বিভিন্ন স্থানে প্রতিকার চেয়ে বিচার না পেয়ে নিরুপায় হয়ে এবং প্রভাবশালী আসামিদের হুমকির মুখে আদালতে মামলা দায়ের করতে ব্যর্থ হন। পরে বুধবার দুপুরে সদর দক্ষিণ মডেল থানায় ওই তিনজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন।

সদর দক্ষিণ মডেল থানার উপ-পরিদরর্শক (এসআই) খাদেমুল বাহার জানান, ‘মামলার এজাহারভুক্ত আসামি আনিছুর রহমান ও লিটন বিশ্বাসকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পরবর্তীতে বিকেলে তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। অপর আসামি জহিরুল ইসলামকে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে’।

বাংলাদেশ সময়: ২২৪০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৯, ২০১৯
জেডএস

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ধর্ষণ
‘সিটি-উপজেলা নির্বাচন ইসির আরেকটি প্রহসন’
সাবেক সচিব ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে চার্জশিট অনুমোদন
দেখে নিন আইপিএলের প্রথম পর্বের সূচি
‘আওয়ামী লীগ চায় বিএনপি শক্তিশালী থাকুক’
বগুড়ায় মা ভবানী মন্দিরে পূণ্যার্থীদের মিলনমেলা


জাবিতে র‌্যাগিং বন্ধে প্রশাসনের ভিন্নধর্মী পদক্ষেপ
সালমান মুক্তাদিরকে সিটিটিসির জিজ্ঞাসাবাদ
বইমেলায় বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা
সিআইইউতে প্রোগ্রামিং কনটেস্টে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই
আপিলের নথি গায়েবের অভিযোগ স্বতন্ত্র প্রার্থীর