সাভারে শিশু শ্রমিককে মারধরের অভিযোগ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

হোটেল।

walton

ঢাকা (সাভার): অসুস্থতার কারণে কাজে যেতে না পারায় এক শিশু শ্রমিককে নির্মমভাবে মারধরের অভিযোগ উঠেছে আশুলিয়ার এক হোটেল মলিকের বিরুদ্ধে।

রোববার (১৪ অক্টোবর) দুপুরে আশুলিয়ার দোসাইদ এলাকার শাহজালাল হোটেলের মালিকের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ উঠে।

নির্যাতিত শিশুটির নাম আতিক মিয়া (১২)। আতিক মায়ের সঙ্গে দোসাইদের বাসাইদ এলাকার বাবুল মিয়ার বাড়িতে ভাড়া থেকে শাহজালালের হোটেলে কাজ করতো।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, দোসাইদ এলাকার শাহজালাল হোটেলে প্রায় দুই বছর ধরে কাজ করছে শিশু শ্রমিক আতিক মিয়া। শনিবার রাতে সে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পরে। এর কারণে রোববার সকালে যথাসময়ে কাজে যেতে পারেনি। দুপুরের অসুস্থতার বিষয়টি হোটেল মালিক শাহজালালকে জানাতে এলে ওই শিশু শ্রমিককে হোটেলের পেছনে নিয়ে যান তিনি। গামছা দিয়ে শিশু আতিকের হাত ও মুখ বেঁধে নির্মমভাবে পিটিয়ে আহত করেছেন হোটেল মালিক শাহজালাল।

একপর্যায়ে বিষয়টি স্থানীয়রা জানতে পেরে শিশুটিকে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি করেন।

এদিকে মারধরের পর শিশুটি ওই হোটেলে আর কাজ করতে না চাইলে তাকে মেরে গুম করে ফেলার হুমকি দেওয়ারও অভিযোগ উঠেছে হোটেল মালিকের বিরুদ্ধে।

মারধরের বিষয়ে জানতে চাইলে হোটেল মালিক শাহজালাল বলেন, সকালে হোটেলে কাজে না আসায় আমার অনেক সমস্যা হয়েছে তাই শিশুটিকে মেরেছি। এতে দোষের কিছু নেই। আমার হোটেলের কর্মচারীকে আমি মেরেছি তাতে কার কি?

এ ব্যাপারে আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ রিজাউল হক দিপু বাংলানিউজকে বলেন, কোনোও শিশুকে মারধরের বিষয়ে আমাদের কাছে অভিযোগ আসেনি। তবে অভিযোগ পেলে বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান পুলিশের ওই কর্মকর্তা।

বাংলাদেশ সময়: ২০৪৬ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৪, ২০১৮
এপি/এএটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: সাভার
ঢাকা উত্তরে বিধি ভঙ্গের হিড়িক, ১৯ দিনে ৪৪ অভিযোগ
মুরগি-কবুতর পালনে স্বাবলম্বী ঠাকুরগাঁওয়ের রহিজুল
যাদের সঙ্গে কবিতার যোগ, তারা আত্মীয়: মুনমুন মুখার্জী
বিমানবন্দরে ১৫৩ কার্টন সিগারেট জব্দ
বার্সাকে হটিয়ে শীর্ষে রিয়াল মাদ্রিদ


শিক্ষক সংকটে বাগেরহাটের দুটি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়
আন্তর্জাতিক মানের হচ্ছে মোংলা বন্দর, একনেকে উঠছে প্রকল্প
ঋষিধামে কুম্ভমেলা শুক্রবার
গ্র্যাজুয়েটদের চাকরির পথ দেখালো ইউজিসি
করোনা ভাইরাসে চীনে মৃত বেড়ে ৮০