ভিজিএফের চাল ওজনে কম দেওয়ায় ইউপি কার্যালয়ে হামলা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ইউপি কার্যালয়ে ভাঙচুর। ছবি: বাংলানিউজ

walton

খুলনা: খুলনার দিঘলিয়া উপজেলার সেনহাটি ইউনিয়ন পরিষদে (ইউপি) দুস্থ গোষ্ঠীর খাদ্যসহায়তার (ভিজিএফ) চাল ওজনে কম দেওয়ায় ইউপি কার্যালয়ে হামলার অভিযোগ ওঠেছে। 

ঈদুল আজহা উপলক্ষে অসহায় ও দুস্থদের মধ্যে বরাদ্দকৃত ভিজিএফের চাল ওজনে কম পাওয়ায় শনিবার (১৮ আগস্ট) দুপুরে এ হামলা চালায় সেখানে আসা মানুষজন। 

খবর পেয়ে স্থানীয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শম্পা কুন্ডু ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি শান্ত করার চেষ্টা চালিয়েও ব্যর্থ হন। পরে ভিজিএফের চাল নিতে আসা ক্ষুব্ধ জনতা তাকেও অবরুদ্ধ করে রাখে। 

এতে প্রায় ঘণ্টা দুয়েক চাল বিতরণ কার্যক্রম বন্ধ থাকার পর জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে পুণরায় তা শুরু হয়। 

স্থানীয় সূত্র জানায়, ঈদুল আজহা উপলক্ষে অসহায় ও দুস্থদের জন্য সরকার দিঘলিয়া উপজেলার সেনহাটি ইউনিয়নের পাঁচ হাজার ২৯৬ জনের মধ্যে ১ লাখ ৫ হাজার ৯২০ কেজি চাল বরাদ্দ দেয়। সকাল সাড়ে ৯টা থেকে ইউপি চেয়ারম্যান গাজী জিয়াউর রহমান ওরফে জিয়া গাজী চাল বিতরণ শুরু করেন। বিতরণকালে ট্যাগ অফিসার, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা না থাকায় তার প্রতিনিধি নবির হোসেন ও প্রকল্প অফিসের উপ-সহকারী সিরাজুল ইসলামের উপস্থিতিতে চাল বিতরণ শুরু হয়। কিন্তু মাথাপিছু ২০ কেজি চাল দেওয়ার কথা থাকলোও প্রত্যেককে ১৫ থেকে ১৭ কেজি করে চাল দেওয়া হচ্ছিল। ওজনে চাল কম দেওয়ার বিষয়টি নিয়ে অসহায় ও দুস্থদের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দেয়। পরে বিষয়টি সবার মধ্যে ছড়িয়ে পড়লে চাল নিতে আশা অসহায় ও দুস্থ লোকজন ইউপির পাশ্ববর্তী উপজেলা প্রেসক্লাবের সামনের খোলা জায়গায় জড়ো হতে থাকেন।

পরে খবর পেয়ে ইউএনও শম্পা কুন্ডু ঘটনাস্থলে আসেন। এ সময় তিনি নিজেই চাল ওজন করে দেখেন প্রতি কেজিতে তিন থেকে চার কেজি কম। কিন্তু অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কোনো পদক্ষেপ না নিয়ে চাল নিতে আশা ব্যক্তিদের লিখিত অভিযোগ করতে বলেন তিনি। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে তাৎক্ষণিক সমাধানের দাবিতে তারা তাকে ঘেরাও করে রাখেন। পরে পুলিশের হস্তক্ষেপে তিনি সেখান থেকে সেনহাটি ইউপি কার্যালয়ে গিয়ে চাল বিতরণ কার্যক্রম স্থগিত ঘোষণা করেন। এ সময় দুস্থ-অসহায় ব্যক্তিরা ইট পাটকেল ও লাঠিসোটা নিয়ে ইউপি কার্যালয়ে হামলা চালিয়ে ইউপি কার্যালয়ে জানালার কাঁচ ভাঙচুর করে। 

পরে দুপুরে ইউএনও শম্পা কুন্ডু, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নাইমুল ইসলাম ও দিঘলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাবিবুর রহমানের উপস্থিতিতে চাল বিতরণ শুরু হয়।

চাল কম দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে ইউএনও শম্পা কুন্ডু বাংলানিউজকে বলেন, যারা চাল কম পেয়েছে তাদের লিখিত অভিযোগ করতে বলা হয়েছে। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দিঘলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাবিবুর রহমান বাংলানিউজকে বলেন, ভিজিএফ’র চাল কম দেওয়াকে কেন্দ্র করে সেনহাটি ইউপি কার্যালয়ে বিশৃঙ্খলা  সৃষ্টি হয়। এতে ইউপি কার্যালয়ের জানালার কাঁচ ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে।

পরে পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন। এ ঘটনায় কেউ আহত হয়নি। পরিস্থিতি বর্তমানে স্বাভাবিক রয়েছে।

এর আগে ২০১৬ সালে ঈদুল আজহায় ১৫০ বস্তা চাল আত্মসাতের ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যান গাজী জিয়াউরের বিরুদ্ধে দিঘলিয়া থানায় মামলা দায়ের করা হয়। ওই মামলায় আদালতে চার্জশিট দাখিল করা হলে গত ১৯ জুলাই স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগ ইউপি-১ অধিশাখার এক প্রজ্ঞাপনে চেয়ারম্যান জিয়াউরকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। কিন্তু তিনি প্যানেল চেয়ারম্যানের কাছে দায়িত্ব হস্তান্তর না করেই উচ্চ আদালতে আপিল করেন।
 
বাংলাদেশ সময়: ২২০৭ ঘণ্টা, আগস্ট ১৮, ২০১৮
এমআরএম/আরআইএস/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: চাল চাল নিয়ে চালবাজি
Nagad
তিন দেশের পানিতে বন্যা, সর্বোচ্চ পানি ১৭ জুলাই
অবৈধভাবে বিদেশে গিয়ে নির্যাতনের শিকার হলে দায় কার?
২০ জুলাই হোটেল শ্রমিক ফেডারেশনের বিক্ষোভ সমাবেশ
রাজনীতিতে একজন শাহজাহান সিরাজ
এরশাদের দুই ছেলেকে নিয়ে আমি এগিয়ে যাবো: বিদিশা


প্রকল্পের কাজে অনিয়ম: উপজেলা প্রকৌশলী বরখাস্ত
মাদারীপুরে ভেজাল খাদ্যের কারখানা সিলগালা-জরিমানা
বগুড়া-যশোর উপ-নির্বাচন সুন্দর হয়েছে: ইসি সচিব
শাহজাহান সিরাজের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতির শোক
বাবুলের মৃত্যুতে মিনিস্টার ও মাইওয়ান পরিবারের শোক