php glass

বিনম্র শ্রদ্ধায় বঙ্গবন্ধুকে স্মরণ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

walton

ঢাকা: বিনম্র শ্রদ্ধা, ভালোবাসা আর গভীর শোকাবহ পরিবেশে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্মরণ করছে জাতি। 

বুধবার (১৫ আগস্ট) দিবসের শুরুতেই বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাতে লাখো মানুষের ঢল নামে রাজধানীর ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে। 

সকাল সাড়ে ৬টায় রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে রক্ষিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। 

এর পর দলের সভাপতি হিসেবে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ এবং মন্ত্রীসভার সিনিয়র সদস্যদের নিয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান শেখ হাসিনা। 

রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী শ্রদ্ধা জানানোর পর সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা জানানোর জন্য ৩২ নম্বর চত্বর উন্মুক্ত করে দেয়া হয়৷ এরপর রাজনৈতিক দল ও বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা জানানে শুরু হয়৷ বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে আসা মানুষের ভিড়ে রাসেল স্কয়ার থেকে কলাবাগান পর্যন্ত রাস্তা জনসমুদ্রে পরিণত হয়৷ 

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট স্বাধীনতাবিরোধী দেশি-বিদেশি ষড়যন্ত্রকারীদের হাতে নির্মমভাবে  সপরিবারে জীবন দেন বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। ঘাতকরা রাতের অন্ধকারে ধানমন্ডির ৩২ নম্বরের বাড়িতে গিয়ে বঙ্গবন্ধু ও তার স্ত্রী, তিন পুত্র, দুই পুত্রবধূসহ পরিবারের সদস্যদের নির্মমভাবে হত্যা করে। দেশের বাইরে থাকায় ভাগ্যক্রমে প্রাণে বেঁচে যান বঙ্গবন্ধুর দুই কন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা।

এদিকে, দেশব্যাপী সরকারিভাবে বঙ্গবন্ধুর ৪৩তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসে পালিত হচ্ছে। ভোরে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে সরকারি, আধা সরকারি, বেসরকারি স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানসহ সব প্রতিষ্ঠানে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হয় এবং কালো পতাকা উত্তোলন করা হয়। দিসবটি উপলক্ষে আগের দিন মঙ্গলবার রাত থেকেই রাজধানীর পাড়া-মহল্লায় বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণ বাজানো হয়। আওয়ামী লীগ এবং এর বিভিন্ন অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের পক্ষ থেকে পাড়া-মহল্লায় সুস্থদের মধ্যে খাবার বিরতণ করা হচ্ছে। 

বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে ভোর থেকেই বুকে কালো ব্যাচ ধারণ করে মানুষ ছুটতে থাকে ধানমন্ডি ৩২ নম্বরের দিকে। সকাল ৭টার আগেই ধানমন্ডি ৩২ নম্বরকে কেন্দ্র করে পুরো এলাকা জনসমুদ্রে পরিণত হয়। রাসেল স্কয়ার থেকে কালাবাগান, সোবহানবাগ, স্কয়ার হাসপাতালসহ পুরো এলাকায় লাখো জনতার ঢল নামে। বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে ফুল নিয়ে সারিবদ্ধভাবে বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মী ও সমর্থকরা এগিয়ে যায় ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু ভবনের সামনের চত্বরের দিকে। নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে দেওয়া হয়েছে পুরো এলাকা।

আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, শ্রমিক লীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ, আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ, যুব মহিলা লীগসহ বিভিন্ন সংগঠন, বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, শিক্ষক, আইনজীবী, চিকিৎসক, মুক্তিযোদ্ধা, পেশাজীবী সংগঠনের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়। দুপুর ১২টা পর্যন্ত ধানমন্ডির ৩২ নম্বরের দিকে মানুষ ছুটতে থাকে। 

ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে শ্রদ্ধা জানানোর পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যান বনানী কবরস্থানে। সেখানে তিনি ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে নির্মম হত্যাকাণ্ডের শিকার তার পরিবারের সদস্যদের কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। আওয়ামী লীগ ও এর বিভিন্ন সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরাও বনানীতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। সেখানেও জনতার ঢল নামে।
 
সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যান গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায়। সেখানে তিনি বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান এবং ফাতেহা পাঠ ও দোয়া মাহফিলে অংশ নেন। 

এদিকে, বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি সংগঠনের পক্ষ থেকে আলোচনা সভা, কোরানখানি, দোয়া মাহফিল, রক্তদান কর্মসূচিসহ দিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হচ্ছে। 

বাংলাদেশ সময়: ১৩২৪ ঘণ্টা, আগস্ট ১৫, ২০১৮ 
এসকে/এসআই

মানিকগঞ্জে বেড়েই চলেছে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা
স্মরণকালের ভয়াবহ সিডিউল বিপর্যয়ে পশ্চিম রেল
লোহাগাড়ায় কার-মাইক্রোবাস সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ৯
ইনসেপ্টায় মেডিকেল প্রমোশন অফিসার নিয়োগ
ডেঙ্গু প্রতিরোধে জনসচেতনতায় আ’লীগের চিকিৎসা সেল


হালদা দূষণ, এশিয়ান পেপার মিল বন্ধের নির্দেশ
সিনিয়র সিটিজেনরা দেশের সম্মানিত ব্যক্তি: মেয়র সাদিক
খালেদা মুক্ত হলে সরকার ক্ষমতায় থাকতে পারবে না: ফারুক
রুয়েট শিক্ষক লাঞ্ছনার ঘটনায় রাবি শিক্ষক সমিতির নিন্দা
ঈদ পরবর্তী প্রথম কার্যদিবসে বেড়েছে সূচক