বৈধ কাগজপত্র না থাকায় ১৬ বিদেশি নাগরিক আটক

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

কক্সবাজার

কক্সবাজার: পাসপোর্ট, ভিসা ও অনুমোদন ছাড়া কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে কাজ করার অভিযোগে ১৬ বিদেশি নাগরিককে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

বৃহস্পতিবার (১৯ এপ্রিল) বিকেল ৩টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত উখিয়া ও টেকনাফে দু’টি বিশেষ চেকপোস্ট বসিয়ে তাদের আটক করা হয়। আটকদের মধ্যে- দুইজন জার্মানের, ছয়জন যুক্তরাজ্যের এবং আটজন যুক্তরাষ্ট্রের।

তারা হলেন- জার্মানের নাগরিক ও নাফ রেডিও কমিউনিটি ৯৯.২ এফএম’র মার্শাল ও অ্যান্ড্রুস লাঙ্গ, আমেরিকার নাগরিক ও বেসরকারি সেবা সংস্থা এসএএলটিএফএলআই’র এনটওনিটি মেরি ও আন্ড্রে লুনিসিয়া, যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক ও হেল্প দ্যা নিডি’র স্যামুয়েল কে হাসলাম, মেডিলাইন বেলী হাসলাম এবং টাটুম এডলি নেলসন, ট্রাসি মিচেল হাসলাম, মালাইসা ডান নেলসন, জন স্টিভেন ইভলিন এবং যুক্তরাজ্যের নিজার নাগিব দাহান, মার্কাস জেমস ভ্যালান্সি,  মাজাফার, খালিদ হোসাইন, ইফতেখার মাসুদ এবং ড্যানিশ রিফিউজি কাউন্সিলের  লিন্ডসে গ্রিম সু।

র‌্যাব সূত্র জানায়, কিছু বিদেশি নাগরিক পাসপোর্টবিহীন ও কোনো প্রকার বৈধ কাগজপত্র ছাড়া উখিয়া এবং টেকনাফ থানায় কর্মরত এমন তথ্য ছিল র‌্যাবের কাছে। এর ভিত্তিতে বিকেলে ১৬ বিদেশি নাগরিককে আটক করে বাংলাদেশে অবস্থানের বৈধতা যাচাইয়ের জন্য উখিয়া থানায় হস্তান্তর করা হয়।

র‌্যাব-৭ কক্সবাজার ক্যাম্প কমান্ডার মেজর রুহুল আমিন বাংলানিউজকে বলেন, আটকদের মধ্যে ১২ জনের পাসপোর্ট এবং ভিসা সঙ্গে নেই এবং বাকি ৪ জনের বিজনেস ও টুরিস্ট ভিসা থাকলেও আরআরআরসি‘র অনুমতি ব্যতিত তারা টেকনাফ ও উখিয়ায় অবস্থান আইনত অবৈধ।

তিনি আরো বলেন, জিজ্ঞাসাবাদ ও কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য উখিয়া থানায় পাঠানো হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ২২৫৫ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৯, ২০১৮
টিটি/টিএ

ক্ষুরা রোগের নতুন ট্রাইভ্যালেন্ট টিকা উদ্ভাবন
সৌদি আরবের পথে প্রধানমন্ত্রী 
বরিশালে ১১ মৃৎশিল্পীকে সম্মাননা
‘অর্ডার অব রিও ব্রানকো’ পেলেন পররাষ্ট্র সচিব 
বিশ্বকাপ ট্রফি আসছে বাংলাদেশে
খাদ্য অধিকার আইনের দাবিতে বরিশালে মানববন্ধন
টেকনাফে ১২ হাজার পিস ইয়াবাসহ মাদকবিক্রেতা আটক
দেশে বছরে ইঁদুর ৫৪ লাখ লোকের খাবার নষ্ট করে
ফরহাদ খাঁ দম্পতি হত্যা: ফাঁসি কমিয়ে যাবজ্জীবন ২ আসামির
শান্তা আমানাহ শরিয়াহ ফান্ডের অনুমোদন