২৪ রাইফেলস ব্যাটেলিয়নের বিচার: ২ সাক্ষীকে ৪৯ আসামির জেরা

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

ঢাকা: বিডিআর বিদ্রোহের ঘটনায় ২৪ রাইফেলস ব্যাটেলিয়নের ৬৬৭ আসামির বিচারের জন্য গঠিত বিশেষ আদালতে বুধবার দুজন সাীকে জেরা করেন ৪৯ আসামি।

মামলার ৫ম সাক্ষী মো. ফরিদ আফ্রাদকে ৫ জন আসামির জেরা বাকি রেখে ২টা ৩৫ মিনিটে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টা পর্যন্ত আদালত মুলতবি ঘোষণা করা হয়। আদালতের ঘোষণা অনুযায়ী ৩০ জন আসামি ফরিদকে জেরা করবেন।

ঢাকা: বিডিআর বিদ্রোহের ঘটনায় ২৪ রাইফেলস ব্যাটেলিয়নের ৬৬৭ আসামির বিচারের জন্য গঠিত বিশেষ আদালতে বুধবার দুজন সাীকে জেরা করেন ৪৯ আসামি।

মামলার ৫ম সাক্ষী মো. ফরিদ আফ্রাদকে ৫ জন আসামির জেরা বাকি রেখে ২টা ৩৫ মিনিটে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টা পর্যন্ত আদালত মুলতবি ঘোষণা করা হয়। আদালতের ঘোষণা অনুযায়ী ৩০ জন আসামি ফরিদকে জেরা করবেন।

বুধবার সকাল সোয়া ১০টায় বিডিআর মহাপরিচালক মেজর জেনারেল রফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে পিলখানায় বিডিআর সদর দপ্তরের দরবার হলের বিশেষ আদালত ৭-এ এ বিচারকাজ শুরু হয়।

৪র্থ সাক্ষি মেজর আসিফ আবদুর রউফকে জেরার মধ্য দিয়ে আদালতের কার্যক্রম শুরু হয়। তাকে জেরা শেষে প্রথম দফা বিরতি ঘোষণা করা হয়।

বেলা ১১টা ৩৫ মিনিটে ২০ মিনিট বিরতির পর ফরিদের সাক্ষ্য নেওয়া শুরু হয়। তার সাক্ষ্য দেওয়া শেষ হলে তাকে জেরা করেন আসামিরা। জেরা অসমাপ্ত রেখে বিচারকাজে দ্বিতীয় দফা বিরতি ঘোষণা করা হয়।

উল্লেখ্য, সাক্ষ্য দেওয়ার সময় ফরিদ ভিডিও ফুটেজ মোবাইল কললিস্ট, স্থিরচিত্রসহ বিভিন্ন প্রমাণ আদালতে উপস্থাপন করেন।

বেলা ১টা ১৫ মিনিটে দ্বিতীয় দফা বিরতি পর বেলা দেড়টায় ৫ম সাক্ষীকে আবার জেরা করা শুরু হয়। এ সময় একে একে ২৫ আসামি ফরিদ আফ্রাদকে জেরা করেন।

আদালত সূত্র জানায়, আদালতে আরও পাঁচ সাক্ষী সাক্ষ্য দেওয়ার জন্য প্রস্তুত রয়েছেন। সাক্ষী সিপাহী ফরিদকে জেরা করা হলে পর্যায়ক্রমে বাকি সাক্ষীদের সাক্ষ্য নেওয়া হবে।

এদিকে, গতকাল ৩য় সাী নায়েক মো. মোতালেব মিয়া ৩৩ জন আসামির বিরুদ্ধে স্যা দেন এবং আসামিরা তাকে জেরা করেন। ওইদিনই ৪র্থ সাক্ষি ২৪ রাইফেল ব্যাটেলিয়নের সাবেক অধিনায়ক মেজর আসিফ আবদুর রউফ সাক্ষ্যগ্রহণ তাকে জেরা করেন আসামি। মেজর আসিফ আবদুর রউফকে জেরা অসমাপ্ত রেখে বিকেল পৌনে ৩ টায় আদালত মুলতবি ঘোষণা করা হয়।

দরবার হলের স্থাপিত বিশেষ আদালতের বিচারকের সহযোগী হিসেবে রয়েছেন লে. কর্নেল একেএম গোলাম রব্বানী, মেজর সাইদ হাসান তাপস ও অ্যাটর্নি জেনারেলের প্রতিনিধি ডেপুটি অ্যাটোর্নি জেনারেল অ্যাডভোকেট মো. সোহরায়র্দী। আদালতে প্রসিকিউটরের দায়িত্ব পালন  করছেন লে: কর্নেল মো: সামছুর রহমান।

প্রসঙ্গত, ২০০৯ সালের ২৫ ও ২৬ ফেব্রুয়ারি পিলখানা বিদ্রোহের  ঘটনায় বিডিআরে নিযুক্ত ৫৭ সেনা কর্মকর্তাসহ মোট ৭৩ জন নিহত হন।

বাংলাদেশ সময়: ১৬০০ ঘণ্টা, অক্টোবর ০৬, ২০১০



মেহেরপুরে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু
আশুলিয়ায় জুয়া খেলার সময় আটক ৫
অসহায় তিন পরিবারের পাশে ঈশ্বরদীর ইউএনও   
ইউজিসির নির্দেশনা উপেক্ষা করে রাবিতে সান্ধ্য কোর্স চালু
রূপগঞ্জে চার প্রতিষ্ঠানে অবৈধ গাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন


অবৈধ বালু উত্তোলন: ড্রেজার মেশিন ধ্বংস-জরিমানা
পুলিশের ভুলে একদিন জেল খাটলেন নিরপরাধ মিজান
মধুপুরে থাই রাষ্ট্রদূতের কৃষি খামার পরিদর্শন
কুষ্টিয়ায় যুবককে কুপিয়ে-পায়ের রগ কেটে হত্যা
ভৈরবে মাদকদ্রব্য অফিসে আগুনের ঘটনায় মামলা