কর্নেল তাহেরের গোপন বিচারের নথি হাইকোর্টে তলব

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

মুক্তিযুদ্ধের সেক্টর কমান্ডার কর্নেল তাহেরের ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে গোপন বিচারের নথিপত্র তলব করেছেন হাইকোর্ট।
আগামী ৩ সপ্তাহের মধ্যে মামলার সব রিপোর্ট আদালতে পেশ করতে স্বরাষ্ট্র সচিব, প্রতিরক্ষা সচিব এবং আইজি প্রিজনসহ সাতজনকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

ঢাকা: মুক্তিযুদ্ধের সেক্টর কমান্ডার কর্নেল তাহেরের ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে গোপন বিচারের নথিপত্র তলব করেছেন হাইকোর্ট।

আগামী ৩ সপ্তাহের মধ্যে মামলার সব রিপোর্ট আদালতে পেশ করতে স্বরাষ্ট্র সচিব, প্রতিরক্ষা সচিব এবং আইজি প্রিজনসহ সাতজনকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বিচারপতি এ এইচ এম শামসুদ্দিন চোধুরী ও শেখ মোহাম্মদ জাকির হোসেনের বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

রিটটি দায়ের করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও তাহেরের ভাই অধ্যাপক ড.আনোয়ার হোসেন, কর্নেল তাহেরের স্ত্রী লুৎফা তাহের এবং তাহেরের আরেক ভাই আবু ইউসুফের স্ত্রী ফাতেমা ইউসুফ।

১৯৭৬ সালের মার্শাল ল’ রেগুলেশন ১৬ এর আওতায় ওই বিচার ও শাস্তি কেন অবৈধ ও অসাংবিধানিক হবে না তা জানতে চেয়েছেন আদালত।


রিটকারীদের আইনজীবী ড. শাহদীন মালিক বলেন, ‘ ১৯৭৬ সালের ২১ জুলাই কর্নেল তাহেরকে ফাঁসি দেওয়া হয়। সেই ফাঁসির প্রক্রিয়া ছিল অত্যন্ত গোপন। এছাড়া ওই আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করার সুযোগ রাখা হয়নি।’

বিচারের এই গোপনীয়তা এবং আপিলের সুযোগ না থাকার বিধানকে মধ্যযুগীয় বিচার ব্যবস্থা বলেও মত দেন তিনি।

আদালতের নির্দেশের পর রিটকারিদের একজন অধ্যাপক আনোয়ার হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, ‘আজ ঐতিহাসিক দিন। ৩৪ বছর পর আমাদের আর্জি গ্রহণ করেছেন উচ্চ আদালত। আমরা আদালতের কাছে কৃতজ্ঞ। আমাদের বাবা-মা বেঁচে থাকলে তারা খুব খুশি হতেন। তারা মৃত্যুর সময় দেখেছেন তাদের ছেলের নামে রাষ্ট্রদোহের অভিযোগ রয়েছে।’

বাংলাদেশ সময় ১৩৩৪ ঘণ্টা, আগস্ট ২৩, ২০১০

চাঁপাইনবাবগঞ্জে ট্রেনে কাটা পড়ে অজ্ঞাত যুবক নিহত
বেলজিয়ামে সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি কিশোর নিহত
মাদক মামলায় এক ব্যক্তির ১০ বছর কারাদণ্ড
সমালোচনা না করে দেশের সমস্যা সমাধানের আহ্বান তাজুলের
জনগণের জন্য কাজ করতে পারলে নিজেকে ভাগ্যবান মনে করি


চীনে ভ্রমণ স্থগিতের কথা ভাবছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়
ধানের শীষে ভোট চাইলেন তাবিথের মা
ইশরাকের গণসংযোগে হামলায় ফখরুলের প্রতিবাদ
ভাঙা হৃদয় জোড়া লাগালেন ব্র্যাড পিট ও জেনিফার অ্যানিস্টন
অটোমেশনে দুর্নীতি কমবে: অর্থমন্ত্রী