বন্যা: হিলি স্থলবন্দরে ১০-১২ কোটি টাকার মালামাল নষ্ট

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

দু’দিনের টানা বর্ষণ ও ভারতীয় পানির ঢলে দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম হিলি স্থলবন্দরে বন্যা দেখা দিয়েছে। ফলে যে কোনো সময় বন্ধ হতে পারে আমদানি-রপ্তানি। বন্যার পানি আমদানিকারদের গুদামে প্রবেশ করায় প্রায় ১০ থেকে ১২ কোটি টাকার মালামাল নষ্ট হয়ে গেছে।

দিনাজপুর: দু’দিনের টানা বর্ষণ ও ভারতীয় পানির ঢলে দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম হিলি স্থলবন্দরে বন্যা দেখা দিয়েছে। ফলে যে কোনো সময় বন্ধ হতে পারে আমদানি-রপ্তানি। বন্যার পানি আমদানিকারদের গুদামে প্রবেশ করায় প্রায় ১০ থেকে ১২ কোটি টাকার মালামাল নষ্ট হয়ে গেছে।

এছাড়া দিনাজপুর জেলার নিম্নাঞ্চলও পাবিত হয়েছে। সারাদিন বৃষ্টিপাত হওয়ায় বন্দরে বেশিরভাগ সময়ই লোড-আনলোড বন্ধ ছিল।

হিলি স্থলবন্দরে দু’দিনের টানা বর্ষণে নদ-নদীর পানি বেড়ে যায়। কিন্তু রোববার বিকেলে অতিবৃষ্টিতে সন্ধ্যার মধ্যে রাস্তার ওপর হাঁটু পানি জমে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হওয়ায় ভারতীয় পণ্যবাহী ট্রাকগুলো ঝুঁকির মধ্যে পণ্য নিয়ে দেশে প্রবেশ করছে। এ অবস্থায় ভারত যে কোনো সময় পণ্য আমদানি-রপ্তানি বন্ধ করে দিতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

হাকিমপুর সিএন্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ফেরদৌস রহমান বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম.বিডিকে জানান, হিলি স্থলবন্দরের প্রায় ১৫০টি গোডাউনে পানি প্রবেশ করেছে। এতে প্রায় ১০-১২ কোটি টাকার তি হয়েছে। বৃষ্টির কারণে রোববার প্রায় লোড-আনলোড বন্ধ ছিল। রাস্তাগুলো হাঁটু পানিতে তলিয়ে গেছে। এ অবস্থায় ভারত আমদানি-রপ্তানি বন্ধ করে দিতে পারে।

দিনাজপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের পানি পরিমাপ বিভাগের সহকারী প্রকৌশলী আব্দুর রাজ্জাক
বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম.বিডিকে জানান, এখনো জেলার সব নদ-নদীর পানি বিপদসীমার নিচেই রয়েছে। তবে পানি বাড়তে শুরু করেছে।

বাংলাদেশ সময়: ২০৪৫ঘণ্টা, আগস্ট ২২, ২০১০

চাঁপাইনবাবগঞ্জে ট্রেনে কাটা পড়ে অজ্ঞাত যুবক নিহত
বেলজিয়ামে সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি কিশোর নিহত
মাদক মামলায় এক ব্যক্তির ১০ বছর কারাদণ্ড
সমালোচনা না করে দেশের সমস্যা সমাধানের আহ্বান তাজুলের
জনগণের জন্য কাজ করতে পারলে নিজেকে ভাগ্যবান মনে করি


চীনে ভ্রমণ স্থগিতের কথা ভাবছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়
ধানের শীষে ভোট চাইলেন তাবিথের মা
ইশরাকের গণসংযোগে হামলায় ফখরুলের প্রতিবাদ
ভাঙা হৃদয় জোড়া লাগালেন ব্র্যাড পিট ও জেনিফার অ্যানিস্টন
অটোমেশনে দুর্নীতি কমবে: অর্থমন্ত্রী