ঢাকা, বুধবার, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, ১২ আগস্ট ২০২০, ২১ জিলহজ ১৪৪১

জাতীয়

তিনশো ফুটে গরু বেচা-কেনা শুরু

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৫৫ ঘণ্টা, আগস্ট ৩০, ২০১৭
তিনশো ফুটে গরু বেচা-কেনা শুরু তিনশো ফুটের পশুর হাট থেকে গরু নিয়ে ফিরছেন এক ক্রেতা/ ছবি: কাশেম হারুন

ঢাকা: ‘মুলামুলি করবেন না, একদাম ১ লাখ ৫!’ রাজধানীর ৩০০ ফুট পশুর হাটে গরু ব্যবসায়ী আজিজ খান ক্রেতা ইউনুস আলীর উদ্দেশে এভাবেই দাম হাঁকেন তার গরুর।  উত্তরে ক্রেতা বললেন, ‘৮০ এক, ৮০ দুই, ৮০ তিন!’ অবশেষে সাড়া না পেয়ে চলে গেলেন ইউনুস আলী।

তিনশো ফুট সড়কে বসা পশুর হাটে গিয়ে দেখা গেছে, রাস্তার দুই পাশে সারিবদ্ধভাবে বাঁশের খুটিতে লাল, কালো, সাদাসহ বিভিন্ন রঙের হাজার হাজার গরু বাঁধা রয়েছে। এসব গরুর বেশির ভাগই ছোট ও মাঝারি আকারের।

যার মূল্য ৫০ হাজার থেকে ১ লাখ টাকা পর্যন্ত।

দেশি গরুর পাশাপাশি হাটে ভারতীয় ও নেপালি গরুও দেখা গেছে। হাঁটতে হাঁটতে হাটের ভিতরে যেতে যেতে দেখা যায় আরও গরু নিয়ে আসছেন ব্যাপারিরা।

বাজারে আসা ক্রেতাদের কাছে জানতে চাইলে তারা বাংলানিউজকে বলেন, গত বছরের চেয়ে গরুর দাম বেশি। গত বছর যে গরু ৬০ হাজার টাকায় বিক্রি হয়েছে। এবার সেই গরু ৭০ থেকে ৭৫ হাজার টাকায়ও কেনা যাচ্ছে না।
 
অফিস সেরে গরু কিনতে আসা ওষুধ কোম্পনি রেনেটার কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন, গরু ব্যবসায়ীরা এখনও দামাদামি করছে। ব্যবসায়ীরা এখনো গরু ছাড়ছে না।  

তিনি বলেন, সকালে মুন্সীগঞ্জ থেকে দুটি গরু কিনেছি। আরো দুটি গরু কিনবো বলে হাটে এসেছি। কিন্তু দামে মিলছে না। সকালে ৬৪ এবং ৭৮ হাজার টাকা করে দুটি গরু কিনেছি। সে হিসেবে অন্তত ১৫-২০ হাজার টাকা বেশি দাম এই হাটে।
 
কুষ্টিয়ার কুমার খালির থেকে আসা গরু ব্যবসায়ী শহিদুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন, এবার মোট ৯টি গরু হাটে এনেছি। যার মূল্য ৫৫ হাজার থেকে ১ লাখ ৫০ টাকা পর্যন্ত। সোমবার বিক্রির জন্য আসার পর বুধবার বিকেলে ৫৫ হাজার টাকায় একটি গরু বিক্রি করেছি। এখনো বাকি রয়েছে ৮টি। আশা করছি, কাল ও পরশু বিক্রি হবে।
 
কুষ্টিয়ার চুয়াডাঙ্গা থেকে দুটি গরু নিয়ে এসেছেন ব্যবসায়ী নজরুল ইসলাম। বাংলানিউজকে তিনি বলেন, দুটি গরু ৩ লাখ টাকায় বিক্রি জন্য বাজারে এনেছি। এখন পর্যন্ত ২ লাখ ৭০ হাজার পর্যন্ত দাম উঠেছে।  একটু লাভ হলেই বিক্রি করে দেবো।
 
পশুর হাটের ১ নম্বর তফসিলের সুপারভাইজার শরিফ দেওয়ান বাংলানিউজকে বলেন, তিন চারদিন আগে থেকে হাটে গরু আসতে শুরু করেছে। হাটে বিক্রেতাও এসেছে কিন্তু বুধবার বিকেল থেকে গরু বিক্রি শুরু হয়েছে। অনান্য বছরের চেয়ে এখন পর্যন্ত গরু দাম একটু বেশি।
 
পরিসংখ্যান তুলে ধরে তিনি বলেন, মঙ্গলবার আমাদের তফসিলে ১০০টি গরু বিক্রি হয়েছে। অথচ আজ বিকেলে থেকে অন্তত ৫০০ গরু বিক্রি হয়েছে। হাটে একটি স্পেশাল তফসিলসহ মোট ৮টি তফসিল রয়েছে। সবগুলোতেই একইভাবে গরু বিক্রি হয়েছে।
 
বাংলাদেশ সময়: ২১৫২ ঘণ্টা, ‍আগস্ট ৩০, ২০১৭
এমএফআই/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa