ঢাকা, শুক্রবার, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৪ আগস্ট ২০২০, ২৩ জিলহজ ১৪৪১

জাতীয়

গরুর অভাব নেই, শুধু ক্রেতার আকাল!

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩৪৬ ঘণ্টা, আগস্ট ২৭, ২০১৭
গরুর অভাব নেই, শুধু ক্রেতার আকাল! হরগজ গ্রামের গরুর হাট। ছবি: বাংলানিউজ

সাটুরিয়ার হরগজ গ্রাম থেকে: সারি সারি গরুর গাড়ি এসে থামছে ছোট্ট সড়কের পাশে।আশপাশের এলাকা থেকেও আসতে শুরু করেছে গরু। হাটে যেন অভাব নেই গরুর। কিন্তু ক্রেতা কোথায়? আর যারাও আছেন তারা দরদামের মধ্যেই রয়েছে।

রোববার (২৭ আগস্ট) দুপুরে সাটুরিয়ার হরগজ গ্রামের গরুর হাটে দেখা যায় এমনই দৃশ্য। মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ার হরগজ ইউনিয়নের একমাত্র গ্রাম এটি।

অর্থাৎ একটি গ্রাম নিয়েই একটি ইউনিয়ন।

এ গ্রামেই ১৯৭২ সালে শুরু হয়ে এখন পর্যন্ত ঐতিহ্যবাহী হাটের সুখ্যাতি ধরে রেখেছে এটি। হরগজ শহীদস্মৃতি উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে অবস্থিত এই হাটে বিভিন্ন আকার আকৃতির প্রায় তিন হাজারের বেশি গরু রয়েছে। মানিকগঞ্জ, সাটুরিয়ার, ধামরাই, বাথুলীসহ আশপাশের বিভিন্ন এলাকা থেকে আসে এখানকার গরুগুলো। এবার বন্যার কারণে হাটে ব্যাপক হারে গরুর এসেছে। কমদামে ভালো গরু কেনাবেচার জন্য এ হাটের সুনাম আছে।

কিন্তু নেই শুধু ক্রেতা। অনেক ব্যাপারি আবার এসেছে এখান থেকে গরু কিনে অন্য স্থানে নিয়ে বিক্রির জন্য। কিন্তু কোরবানির বেচাকেনা এখনো তেমন একটা নেই বল্লেই চলে। অনেকে গরু কিনতে এলেও দরদামই করে চলেছেন । কেনার নামটি নেই। উদ্দেশ্য দাম আরো কমিয়ে ‘সস্তায় দাও মারা’।  


অপরদিকে বিক্রেতাও দাম একটু বেশিই হাঁকছেন। দেশের বন্যা পরিস্থিতি, গো-খাদ্যের দাম বৃদ্ধিসহ বেশ কিছু কারণে যে ক্ষতি ও বাড়তি খরচ হয়েছে তা পুষিয়ে নেওয়া। কিন্তু দরদামই সার, কাজের কাজ কিছুই হচ্ছে। গরুভরা হাটে গরু বিক্রি একদমই হচ্ছে না।  

এ হাটে নিরাপত্তার জন্য রয়েছে সিসিটিভি ক্যামেরা, পশু হাসপাতালের মেডিকেল টিম, নিরাপত্তার জন্য পুলিশ সদস্যসহ প্রতিষ্ঠানটির অনেকে।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৪৩ ঘণ্টা, আগস্ট ২৭, ২০১৭
এসএইচএন/জেএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa