কমলাপুরে চলছে ঈদযাত্রার শেষদিনের টিকিট বিক্রি 

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

কমলাপুর রেলস্টেশনে টিকিট প্রত্যাশীদের ভিড়। ছবি: রানা/বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

ঢাকা: ৩১ আগস্ট (বৃহস্পতিবার) রেলে ঈদ যাত্রার শেষ দিন। এদিন বাড়ি ফেরার টিকিটের সবচেয়ে দীর্ঘ মানুষের লাইন কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে। ২৩ টি লাইনে টিকিট দেওয়া শুরু হয়েছে।

মঙ্গলবার (২২ আগস্ট) সকাল ৮ টা থেকে দেওয়া হচ্ছে ৩১ আগ‌স্টের ৩১ টি আন্তনগর ট্রেনের অগ্রিম টি‌কিট। সারাদিন দেওয়া হবে প্রায় ২৬ হাজার টিকিট।
 
কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন ম্যানেজার সীতাংশু চক্রবর্তী বাংলানিউজকে জানান, সারাদিনে প্রায় সাড়ে ২৬ হাজার টিকিট বিক্রি হবে। এছাড়া অন্যান্য চলতি ট্রেন মিলিয়ে টিকিট বিক্রি হবে ৫০ হাজার।
 
মোট টিকিটের ৬৫ শতাংশ দেওয়া হচ্ছে কাউন্টার থেকে। বাকি ৩৫ শতাংশের ২৫ শতাংশ অনলাইন ও মোবাইলে। ৫ শতাংশ ভিআইপি ছাড়াও রেল কর্মকর্তা-কমচারীদের জন্য বরাদ্দ রয়েছে ৫ শতাংশ। 
 
ঈদ উপলক্ষে প্রতিদিন প্রায় ২ লাখ ৬০ থেকে ৬৫ হাজার যাত্রী আনা নেওয়া করবে রেলওয়ে।

ঈদ উপলক্ষে আসছে ২৯ থেকে ১ সেপ্টেম্বর এবং ঈদের পর ৩ থেকে ৯ সেপ্টেম্বর সাত জোড়া বিশেষ ট্রেন চলাচল করবে। ঢাকা থেকে দেওয়ানগঞ্জ, রাজশাহী, পার্বতীপুর এবং চট্টগ্রাম থেকে চাঁদপুর রুটে যাত্রী পরিবহন করবে এসব বিশেষ ট্রেন।
 
শোলাকিয়া ঈদগায় যাতায়াতের জন্য ঈদের দিন ভৈরববাজার থেকে কিশোরগঞ্জ এবং ময়মনসিংহ থেকে কিশোরগঞ্জ রুটে দু’টি ট্রেন চালানো হবে।

এদিকে, বন্যায় বন্ধ থাকার পর সোমবার দুপুরের পর থেকে উত্তরবঙ্গের সঙ্গে ঢাকার রেল যোগাযোগ পুনরায় স্থাপন হয়েছে। এছাড়া বিলম্বিত ট্রেনগুলোও আস্তে আস্তে শিডিউলে ফিরছে। 

ঢাকা থেকে চলছে উত্তরাঞ্চলের একতা, ধুমকেতু, সুন্দরবন, নীলসাগর, রংপুর এক্সপ্রেস, সিল্কসিটি, লালমনি, পদ্মা, দ্রুতযান এক্সপ্রেস ট্রেন।
 
২ দিন বন্ধ থাকার পর ঢাকা-কলকাতা আন্তঃদেশীয় ট্রেন যোগাযোগ ‘মৈত্রী এক্সপ্রেস’ও ছেড়ে যাচ্ছে নিয়মিত সময়ে।
 
বাংলাদেশ সময়: ০৮২২ ঘণ্টা, আগস্ট ২২, ২০১৭
এসএ/এমএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ঈদে বাড়ি ফেরা
নেতাকর্মীদের মুক্তি দিতে সরকারকে ফখরুলের চিঠি
সঙ্কটকালে গ্রাহকসেবায় সর্বোচ্চ চেষ্টা করতে হবে: জিপি সিইও
চট্টগ্রামে আরও ৩ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত
ময়মনসিংহে পুলিশ সদস্যসহ করোনায় আক্রান্ত ২ 
টিসিবির পণ্য ক্রয়ে ৩ ফুট দূরত্ব বজায় রাখার নির্দেশ


জামালপুর লকডাউন
করোনায় যুক্তরাজ্যে ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ৯৩৬ মৃত্যু, মোট ৭০৯৫
দোষ স্বীকার করে প্রাণভিক্ষা চাইলেন বঙ্গবন্ধুর খুনি মাজেদ
সচেতন হচ্ছে না মানুষ, জনসচেতনতা তৈরিতে ব্যস্ত প্রশাসন
করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ডিজিটাল ম্যাপ সমৃদ্ধ করছে যুবকরা