ফেনীতে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে পিয়ন আটক

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

অফিস সহকারীকে (পিয়ন) কৃষ্ণ চন্দ্র দাস/ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

ফেনী: ফেনী সরকারি জিয়া মহিলা কলেজের এক শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগে কৃষ্ণ চন্দ্র দাস (৩০) নামে ফেনী সরকারি কলেজের এক অফিস সহকারীকে (পিয়ন) আটক করেছে পুলিশ।

কৃষ্ণ চন্দ্র দাস পাঁছগাছিয়া ইউনিয়নের মালাকার বাড়ির হারাদন চন্দ্র দাসের ছেলে।

বুধবার (০৭ জুন) দুপুরে ভুক্তভোগী ছাত্রীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর আবুল কালাম আজাদ কৃষ্ণ চন্দ্র দাসকে পুলিশে সোপর্দ করেন।

ছাত্রীর পরিবার সূত্র জানা গেছে, গত ৬ মে ফেনী সরকারি কলেজ কেন্দ্রে অনার্স তৃতীয় বর্ষের পরীক্ষায় নকল করার অভিযোগে সরকারি জিয়া মহিলা কলেজের সমাজকর্ম বিভাগের শিক্ষার্থীকে (ভুক্তভোগী ছাত্রী) বহিস্কার করা হয়। পরে ওই শিক্ষার্থী কান্নাকাটি শুরু করলে তার বহিষ্কার আদেশ প্রত্যাহার করে দেবে বলে পাশের একটি কক্ষে নিয়ে তাকে ধর্ষণ করে ওই অফিস সহকারী।

কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আবুল কালাম আজাদ বলেন, সকালে ভুক্তভোগী ছাত্রী ওই অফিস সহকারী কৃষ্ণ চন্দ্র দাসের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করলে তাকে পুলিশের হাতে সোপর্দ করা হয়।

ফেনী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাশেদ খান চৌধুরী জানান, আসামিকে আটক করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮১৫ ঘণ্টা, জুন ০৭, ২০১৭
এসএইচডি/ওএইচ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ধর্ষণ
স্ত্রীর সঙ্গে অভিমান: শ্বশুরবাড়ীতেই স্বামীর আত্মহত্যা
রাজউক আর দুর্নীতি এখন সমার্থক: ইফতেখারুজ্জামান
ভোটগ্রহণের পরিবেশ নিশ্চিত করুন: ইসিকে তাবিথ
সেই নারীর খোঁজে হাসপাতালে স্বামী
প্রচারণার জোয়ার ভোটের বাক্সেও দেখতে চান মেনন


আমার কোনো গ্রুপ নেই, চবি ছাত্রলীগ নিয়ে নওফেল
দারুণ দুর্দশায় মাইলি সাইরাস
মোদী ঢাকায় আসছেন ১৭ মার্চ
ঢাকার ভোট পর্যবেক্ষণে থাকছেন ৬৭ বিদেশি পর্যবেক্ষক
করোনাভাইরাস আতঙ্ক প্রভাব ফেলেছে চীনের ক্রীড়াঙ্গনেও