তিস্তার পানিবণ্টন চুক্তি হচ্ছে : দীপু মনি

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

মনমোহনের সফরে তিস্তা নদীর পানি বণ্টন চুক্তি অনিশ্চিত বলে ভারতের পররাষ্ট্রসচিবের বক্তব্যের ৫ ঘণ্টা সময়ের মধ্যেই বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী দীপু মনি বললেন, ‘মনমোহনের সফরেই তিস্তার পানি বণ্টন চুক্তি হচ্ছে।’

ঢাকা: মনমোহনের সফরে তিস্তা নদীর পানি বণ্টন চুক্তি অনিশ্চিত বলে ভারতের পররাষ্ট্রসচিবের বক্তব্যের ৫ ঘণ্টা সময়ের মধ্যেই বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী দীপু মনি বললেন, ‘মনমোহনের সফরেই তিস্তার পানি বণ্টন চুক্তি হচ্ছে।’

মনমোহনের সফর ও পানি বণ্টন না হওয়ার বিষয়ে সোমবার সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে এক বৈঠক শেষে পরাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটা থেকে রাত সাড়ে নয়টা পর্যন্ত ‘উপ-আঞ্চলিক সহযোগিতা সংক্রান্ত কমিটি’র এ বৈঠক হয়।

বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের কাছে দেওয়া বক্তব্যের মাধ্যমে পানি চুক্তি নিয়ে সংশয়ের আপাত অবসান ঘটালেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

বৈঠক শেষে দীপু মনি বলেন, ‘গত বছর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নয়াদিল্লি সফরের সময় দুই প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে স্বাক্ষরিত যৌথ ইশতেহারের বাস্তবায়নের অগ্রগতি নিয়ে আলোচনা হয়েছে।’

দীপু মনি বলেন, ‘আমরা শুধু ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে যোগাযোগ বাড়ানোর ওপরই গুরুত্ব দেই না, আমরা চাই দক্ষিণ এশিয়ার সবদেশগুলোর মধ্যেই যোগাযোগ উন্নত হোক।’

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘তিস্তার পানি বণ্টন চুক্তি হচ্ছে না- ভারতের পক্ষ থেকে আমরা এখন পর্যন্ত এমন কোনও ইঙ্গিত পাইনি।’  

তিনি বলেন, ‘চুক্তি অবশ্যই হবে। সবার সম্মতির ভিত্তিতেই হবে।’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘তিস্তার পানি বণ্টন নিয়ে চুক্তিপত্রে যা লেখা হয়েছিল তা অপরিবর্তিত আছে।’

তিনি বলেন, ‘রোববার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে করা সংবাদ সম্মেলনে আমি যা বলেছিলাম, চুক্তির বিষয়াবলী এখন পর্যন্ত তা-ই আছে। আগামীকালও (মঙ্গলবার মনমোহনের সফরে) তা থাকবে এবং অবশ্যই চুক্তি হবে।’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমি ভারতের পররাষ্ট্রসচিবে বক্তব্যের ভিডিও ফুটেজ দেখেছি, তিনিও এমন কিছু বলেননি যে আমরা মনে করতে পারি চুক্তি হচ্ছে না।’

দীপু মনি বলেন, ‘তিনিও (ভারতের পররাষ্ট্রসচিব) সবার সম্মতির প্রয়োজনের কথা বলেছেন।’

মমতা বন্দোপাধ্যায়ের বাংলাদেশ সফরে না আসা প্রসঙ্গে দীপু মনি বলেন, ‘মমতা ব্যানার্জি আসছেন না। উনি না আসলেও চুক্তি হবে। তার না আসা ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়। এ ব্যাপারে আমি কোনও মন্তব্য করতে চাই না।’

তিনি বলেন, ‘তবে ভারত সরকার অবশ্যই বিষয়টির সমাধান করবে।’

দীপু মনি বলেন, ‘আমি যতদূর জানি, মমতা বন্দোপাধ্যায় বাংলাদেশে আসবেন। আপনারা হয়তো জানেন, আগামী মাসে রাজ্যসভায় ওনার উপ-নির্বাচন হবে। একারণে হয়তো তিনি আসতে পারছেন না। পরে উনি নিশ্চয়ই আসবেন।’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশের মানুষের প্রতি মমতার ভালোবাসা রয়েছে; তার প্রতিও বাংলাদেশের মানুষের ভালবাসা রয়েছে।’

মসিউর রহমান সাংবাদিকদের এসময় বলেন, ‘আমরা নেতিবাচক কোনও কিছু পাইনি।’  

নয়াদিল্লিতে বিকেলে ভারতের পররাষ্ট্রসচিব রঞ্জন মাথাই এক সংবাদ সম্মেলন করে জানান, তিস্তার পানি বণ্টন চুক্তি অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।

এদিন বিকেলেই পররাষ্ট্রসচিব মোহাম্মদ মিজারুল কায়েস বাংলানিউজকে জানান, ‘ঢাকায় ভারতীয় হাইকমিশনারের কাছে বিষয়টি সম্পর্কে ব্যাখ্যা জানতে চাওয়া হয়েছে।’

গণভবনে বৈঠকে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত, কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, পানিসম্পদমন্ত্রী রমেশ চন্দ্র সেন, বাণিজ্যমন্ত্রী কর্নেল (অব.) ফারুক খান, নৌ পরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান, যোগাযোগমন্ত্রী সৈয়দ আবুল হোসেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. দীপু মনি, প্রধানমন্ত্রীর প্রশাসন ও সংস্থাপন বিষয়ক উপদেষ্টা এইচটি ইমাম, আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী, অর্থনৈতিক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. মসিউর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে সার্বিক বিষয় নিয়ে আলোচনা হওয়ার কথা বৈঠক সূত্র জানায়।

মঙ্গলবার দুপুরে ভারতের প্রধানমন্ত্রী ড. মনমোহন সিং দুই দিনের সফরে বাংলাদেশে আসছেন।

বাংলাদেশ সময়: ২১৫০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ০৫, ২০১১

৩১ দেশে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা তুলে নিচ্ছে জার্মানি সরকার
ঈদে প্রকাশ হলো ইকরিমিকরির গান
লকডাউন: মৃত্যুপথযাত্রী মাকেও দেখতে যাননি ডাচ প্রধানমন্ত্রী
নারগিস ফাখরির সঙ্গে তাপসের গান ‘নিত দিন জিয়া মারা’
কোটচাঁদপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত


ধরা পড়ে আবারও বিয়ের পিঁড়িতে নারী ভাইস চেয়ারম্যান
নারায়ণগঞ্জে সর্বোচ্চ করোনা শনাক্তের দিন শহর ফাঁকা!
বোলারদের মাস্ক ব্যবহারের পরামর্শ মিসবাহ’র
শিরোইল পুলিশ ফাঁড়ির ১৮ সদস্য কোয়ারেন্টিনে
লালা ব্যবহার নিষিদ্ধ হলে মানুষ আর ক্রিকেট দেখবে না: স্টার্ক