গাংনীতে মুক্তিযোদ্ধা আজিজুর রহমানের জীবনাবসান

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

স্বাধীনতার জন্য লড়াই করে দেশকে হানাদারমুক্ত করতে পারলেও মৃত্যুর কাছ থেকে নিজেকে মুক্ত করতে পারেননি বীর মুক্তিযোদ্ধা আজিজুর রহমান। দীর্ঘ ১৩ দিন মৃত্যুযন্ত্রণা ভোগের পর অবশেষে মারা গেলেন তিনি।

মেহেরপুর: স্বাধীনতার জন্য লড়াই করে দেশকে হানাদারমুক্ত করতে পারলেও মৃত্যুর কাছ থেকে নিজেকে মুক্ত করতে পারেননি বীর মুক্তিযোদ্ধা আজিজুর রহমান। দীর্ঘ ১৩ দিন মৃত্যুযন্ত্রণা ভোগের পর অবশেষে মারা গেলেন তিনি।

সোমবার ভোরে বঙ্গবন্ধু মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান আজিজুর রহমান।

গত ২৪ আগস্ট গাংনী উপজেলার মানিকদিয়া গ্রামে পুলিশের উপস্থিতিতে শালিস বৈঠক চলাকালে বিএনপির লোকজন তাকে ইট দিয়ে মাথায় আঘাত করলে তিনি মারাত্মক আহত হন।

মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে প্রথমে গাংনী হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল ও শেষে বঙ্গবন্ধু মেডিক্যালে পাঠানো হয়। সেখানেই সোমবার ভোর ৪টায় কর্তব্যরত চিকিৎসক আজিজুর রহমানকে মৃত ঘোষণা করেন।

মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ২ ছেলে,২ মেয়ে ও আত্মীয়স্বজনসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

সোমবার বিকেল ৫টায় মানিকদিয়া গ্রামের নিজ বাড়িতে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় তার দাফন সম্পন্ন হবে বলে জানিয়েছেন সাবেক সাংসদ ও আওয়ামী লীগ নেতা মকবুল হোসেন।

নিহত আজিজুর রহমান স্বাধীনতা যুদ্ধে ৮ নম্বর সেক্টরে ড. তৌফিক-ই-এলাহি চৌধুরীর নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৫০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ০৫, ২০১১

শ্রীমঙ্গলে ৬৭ মামলায় ৭৫ হাজার টাকা জরিমানা
আড়াইহাজারে দগ্ধ আরও একজনের মৃত্যু
সিলেটে ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত ৪৮ জন
নালিতাবাড়ীতে বজ্রপাতে যুবকের মৃত্যু
বগুড়ায় একদিনে সর্বোচ্চ করোনা রোগী শনাক্ত


সাবেক মেয়র কামরানের স্ত্রী করোনা আক্রান্ত
বাগেরহাটে আ’লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ১
নিহত ৫ জনের পরিচয় শনাক্ত করেছে ইউনাইটেড কর্তৃপক্ষ
ইউনাইটেড হাসপাতালে আগুন: মৃতদের মধ্যে ৩ জন করোনা পজিটিভ
ঢামেকে সংগ্রহ করা প্লাজমা রোগীদের শরীরে প্রয়োগ