গাজীপুরে সড়ক ভেঙ্গে যাওয়ায় বিজিএমইএর উদ্বেগ প্রকাশ

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

পোশাক শিল্পপ্রধান গাজীপুর, আশুলিয়া ও কোনাবাড়ি এলাকায় সড়ক ব্যবস্থা ভেঙ্গে পড়ায় ওই এলাকার পোশাক কারখানাগুলোতে সৃষ্ট বিপর্যয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে দেশের শীর্ষ পোশাক রপ্তানিকারক সংগঠন বিজিএমইএ।



গাজীপুর: পোশাক শিল্পপ্রধান অধ্যুষিত গাজীপুর, আশুলিয়া ও কোনাবাড়ি এলাকায় সড়ক ব্যবস্থা ভেঙ্গে পড়ায় ওই এলাকার পোশাক কারখানাগুলোতে সৃষ্ট বিপর্যয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে দেশের শীর্ষ পোশাক রপ্তানিকারক সংগঠন বিজিএমইএ।

বুধবার বিজিএমইএর সচিব মো. মুস্তাফিজুর রহমান স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, সময়মতো মেরামত না করায় গত কয়েকদিনের বিরতিহীন বৃষ্টিতে সমস্যার নতুন মাত্রা যোগ করে এলাকার সড়ক পরিস্থিতিকে আরও বিপর্যয়ের দিকে ঠেলে দেওয়া হয়েছে।

কারখানাগুলোতেও উদ্যোক্তা ও ক্রেতারা যেতে পারছেন না। গত তিন দিনের বৃষ্টির  কারণে ইতোমধ্যে ওই এলাকার বেশ কিছু পোশাক কারখানা নির্ধারিত সময়ের মধ্যে তৈরি পোশাক জাহাজীকরণ করতে ব্যর্থ হয়েছেন। বিজিএমইএ কর্তৃপক্ষ চলমান পরিস্থিতিকে পোশাক শিল্পের জন্য বিপর্যয়কর বলে অভিহিত করেছেন।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, টঙ্গী-গাজীপুর মহাসড়কে আগে থেকেই ছোট-বড় অসংখ্য গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। গত তিন দিন যাবৎ বড় গর্তগুলো পানিতে ডুবে যাওয়ায় এ মহাসড়কে যানবাহন চলাচল অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে।

অন্যদিকে, এ সড়কে বিশ্বরোডের প্রবেশ মুখগুলো ভেঙ্গে গেছে। ফলে ট্রাক ও কভার্ড ভ্যান প্রবেশ করতে পারছে না। ট্রাক প্রবেশের চেষ্টা করা হলেও তা উল্টে পড়ছে। আর একটি ট্রাক উল্টে গেলে শত শত গাড়ি ঘন্টার পর ঘন্টা আটকে থাকছে।

তাছাড়া, ট্রাক ও কভার্ড ভ্যানের কলকব্জাও নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। ফলে ট্রাক ও কভার্ড ভ্যান মালিকরা  ওই এলাকায় মালামাল পরিবহনে অনাগ্রহ প্রকাশ করছেন।

কোনাবাড়িতেও গাড়ি প্রবেশ করতে পারছে না। টঙ্গী-ঘোড়াশাল সংযোগ সড়ক একলেন হওয়ায় তীব্র যানজটের কারণে এবং রাজেন্দ্রপুর থেকে গাজিপুরে যে বিকল্প সড়ক গেছে, সেগুলোতেও গর্ত থাকার কারণে ট্রাক ও কভার্ড ভ্যান প্রবেশ করতে পারছে না।

ময়মনসিংহ মহাসড়কের অবস্থাও ভাল নয়। এ কারণে আশুলিয়া মহাসড়কের উপর মাত্রাতিরিক্ত চাপ সৃষ্টি হয়েছে। এ সড়ক এক লেন হওয়ায় অতিরিক্ত চাপ মোকাবেলায় হিমশিম খাচ্ছে। ফলে গাজীপুর চৌরাস্তার পরে যে পোশাক কারখানাগুলো আছে, সেগুলোতে একপ্রকার অচলাবস্থারই সৃষ্টি হয়েছে।
 
এমতাবস্থায় পোশাক শিল্পের স্বার্থে অনতিবিলম্বে ঢাকা-আব্দুল¬াহপুর-বাইপাইল-টাঙ্গাইল মহাসড়কে সংস্কার কার্যক্রম গ্রহণের জন্য বিজিএমইএ সভাপতি জনাব মো: সফিউল ইসলাম (মহিউদ্দিন) সরকারকে অনুরোধ জানিয়েছেন।

তিনি আরও বলেন, এ ব্যাপারে কালক্ষেপণ করা হলে নিকট ভবিষ্যতে আরও অনেক পোশাক কারখানা রপ্তানি আদেশ অনুযায়ী তৈরি পোশাক জাহাজীকরণে ব্যর্থ হয়ে এয়ার শিপমেন্ট করতে বাধ্য হবেন। ফলে উদ্যোক্তারা আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হবেন।

উল্লেখ্য, আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন বড় বড় কমপ্ল¬ায়েন্ট পোশাক কারখানাগুলো গাজীপুরেই অবস্থিত। এ এলাকায় অবস্থিত রপ্তানিমুখী তৈরি পোশাক শিল্প প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা মোট ৯১২টি এবং এগুলোতে প্রায় ১০-১২ লাখ শ্রমিক কাজ করে। এই কারখানাগুলো বছরে প্রায় ৫ থেকে ৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের তৈরি পোশাক রপ্তানি করছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮০৯ ঘণ্টা, আগস্ট ১০, ২০১১

পঞ্চগড়ে ভাষা সৈনিক সুলতান বইমেলা শুরু
চুয়াডাঙ্গায় গাঁজাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার
৬ বছর পর কোন্দলপূর্ণ শিবগঞ্জ উপজেলা আ’লীগের সম্মেলন
'লাইটিং দ্য ফায়ার অব ফ্রিডম' দেখলেন প্রধানমন্ত্রী-রেহানা
ইতালিতে করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রথম মৃত্যু


ফেনী ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের আলোকচিত্র প্রদর্শনী
মহেশপুর সীমান্ত দিয়ে অবৈধভাবে প্রবেশকালে আটক ৪ 
জাতীয় হ্যান্ডবল দলের গোলরক্ষক সোহান দুর্ঘটনায় নিহত
গ্রন্থমেলায় মুহাম্মদ আসাদুজ্জামানের ‘ভালোবাসার গল্প’
কলকাতার বাংলাদেশ উপদূতাবাসে অন্যরকম একুশ