রসু খাঁ’র মামলা পুন:তদন্তের আবেদন

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

বহুল আলোচিত সিরিয়াল কিলার রসু খাঁ’র বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম বিভাগীয় দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে বিচারাধীন একটি হত্যা মামলা পুন:তদন্তের আবেদন জানিয়েছে রাষ্ট্রপক্ষ।



চট্টগ্রাম: বহুল আলোচিত সিরিয়াল কিলার রসু খাঁ’র বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম বিভাগীয় দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে বিচারাধীন একটি হত্যা মামলা পুন:তদন্তের আবেদন জানিয়েছে রাষ্ট্রপক্ষ।

ফরিদপুরের কিশোরী পপিকে ধর্ষণ ও শ্বাসরোধ করে হত্যার ঘটনায় দায়ের হওয়া এ মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ও দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের পিপি অ্যাডভাকেট আইয়ূব খান মঙ্গলবার এ আবেদন জানান।

ওই ট্রাইব্যুনালের বিচারক রবিউল হাসান আগামী ১৬ আগস্ট এ আবেদনের ওপর শুনানির দিন নির্ধারণ করেছেন।

পিপি আইয়ূব খান বাংলানিউজকে বলেন, ‘তদন্তকারী কর্মকর্তা চার্জশিটে বিভিন্ন ডকুমেন্ট সংযুক্ত না করায় এবং মামলার বিভিন্ন তথ্য অসম্পূর্ণ থাকায় বিচার প্রক্রিয়ায় বিভিন্ন সমস্যা হচ্ছে। এজন্য পুন:তদন্তের আবেদন করা হয়েছে।’

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০০৯ সালের ৯ ফেব্রুয়ারি চাঁদপুর জেলার ফরিদগঞ্জ থানার হাঁসা গ্রামের হাঁসা বিল থেকে অজ্ঞাতনামা এক মহিলার ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে ফরিদগঞ্জ থানার এস আই মীর মাহাবুবুর রহমান বাদী হয়ে নিহতের পরিচয় উল্লেখ ছাড়াই একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

২০০৯ সালের ২০ জুলাই রাতে চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ থানার হাঁসা গ্রামের হাঁসা বিল থেকে পারভিন নামে স্থানীয় এক মহিলার ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধার করেন। ২২ জুলাই রসু খাঁ নিজের পরিচয় গোপন করে বাবুল নামে ০১৮২৪৬৫৪৫৭৬ নম্বরের একটি মোবাইল ফোন থেকে ওসিকে ফোন (নম্বর-০১৭১৩৩৭৩৭১৮) করে খুনের বিষয়ে কিছু তথ্য দেয়। ভয়েস রেকর্ডে থাকা এসব তথ্যের সূত্র ধরে তদন্ত করতে গিয়ে পুলিশ রসু খাঁকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়।

গ্রেপ্তারের পর রসু খাঁ ৯ ফেব্রুয়ারি তারিখে নিহত ওই কিশোরীর নাম পপি এবং তার বাড়ি ফরিদপুর জেলায় বলে জানিয়ে তাকে হত্যার কথা স্বীকার করে।
এমনকি পারভিন হত্যার ঘটনায় আদালতে দেওয়া ১৬৪ ধারার জবানবন্দীতেও রসু খাঁ বিষয়টি উল্লেখ করেন। তবে কিশোরীর বিষয়ে এরে চেয়ে বিস্তারিত আর কোন তথ্য রসু খাঁ জবানবন্দীতে বা পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে জানায়নি।

পিপি বাংলানিউজকে বলেন, ‘রসু খাঁ এবং ওসি’র মোবাইল সিম এবং ভয়েস রেকর্ড চাজর্শিটের সঙ্গে কেস ডকেটে সংযুক্ত করা হয়নি। আদালতে রসু খাঁর জবানবন্দীটিও সংযুক্ত করা হয়নি। আদালত শুনানির সময় নিজেই এসব বিষয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। ন্যায়বিচারের স্বার্থে এ মামলার পুন:তদন্ত হওয়া প্রয়োজন।’

উল্লেখ্য, রসু খাঁর বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় দায়ের হওয়া ১১টি মামলার মধ্যে চাঁদপুর থানায় দায়ের হওয়া চারটি হত্যা মামলা বর্তমানে চট্টগ্রাম বিভাগীয় দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে বিচারাধীন আছে।

চট্টগ্রাম আদালতে হাজিরা দিতে এসে গত ১ জুন রসু খাঁ আদালত প্রাঙ্গনে হ্যান্ডকাপ পরা অবস্থায় পুলিশের উপস্থিতিতে তার বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মামলার সাক্ষী ছানোয়ার হোসেনের ওপর হামলা চালায়।

এরপর গত ৩১ জুলাই চট্টগ্রামে আদালতের কাঠগড়ায় এক সহ-আসামিকে গলায় ধারালো ব্লেইড বসিয়ে জখম ও হত্যার চেষ্টা করেন রসু খাঁ। তবে ধস্তাধস্তিতে রসু খাঁর হাত থেকে ব্লেইড পড়ে যাওয়ায় এ যাত্রায় বেঁচে যান দেলোয়ার নামে ওই সহ-আসামি।

রসু খাঁ বর্তমানে চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারে আটক আছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৩০ঘণ্টা, আগস্ট ০৯, ২০১১

শরীয়তপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ গেলো ২ কলেজছাত্রের
আড়াইহাজারে যুবলীগ নেতাসহ ৫ জনের জেল
ভাষাশহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে জ্বলে উঠলো ৫২শ' মোমবাতি
সারাদেশে একুশের প্রথম প্রহরে ভাষাশহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা
গর্বের সঙ্গে বাংলার ব্যবহার চায় ভারতের নদীয়ার প্রতিনিধিদল


ভেঙে পড়লো রাসিক মেয়র লিটনের সংবর্ধনা মঞ্চ
রামুতে বর্ণমালা হাতে হাজারো শিক্ষার্থীর কন্ঠে একুশের গান
ভাষাশহীদদের প্রতি বিরোধী দলীয়নেতা রওশনের শ্রদ্ধা
মাতৃভাষার জন্য ভালোবাসা
একুশে ফেব্রুয়ারি: বাঙালির আত্মপরিচয়ের দিন