পাল্টে যাচ্ছে সংস্থাপন মন্ত্রণালয়ের নাম

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

সাধারণ মানুষের বোঝার জন্য পাল্টে যাচ্ছে সংস্থাপন মন্ত্রণালয়ের নাম। নাম পরিবর্তনের পাশাপাশি বদলে যাচ্ছে এর মিশন, ভিশন ও মূল্যবোধও।

ঢাকা: সাধারণ মানুষের বোঝার জন্য পাল্টে যাচ্ছে সংস্থাপন মন্ত্রণালয়ের নাম। নাম পরিবর্তনের পাশাপাশি বদলে যাচ্ছে এর মিশন, ভিশন ও মূল্যবোধও।

এরই মধ্যে এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাবনা নীতিগত অনুমোদন দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। বুধবার ‘প্রশাসনিক উন্নয়ন সংক্রান্ত সচিব কমিটি’র বৈঠকেও এর অনুমোদন দেওয়া হয়।

জানা  গেছে, শিগগিরই প্রস্তাবিত তিনটি নাম মন্ত্রিসভায় উপস্থাপন করা হবে। মন্ত্রিসভার অনুমোদন পাওয়ার পর সংসদে পাশ হলেই নতুন নামে আত্মপ্রকাশ করবে সরকারের এ গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়। নতুন মিশন, ভিশন ও কর্মপ্রণালী নিয়ে নতুনভাবে যাত্রা শুরু করবে এ মন্ত্রণালয়।

প্রস্তাবিত নামের মধ্যে রয়েছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়, বেসামরিক সেবা বিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং গণ-কর্মচারী ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়।  

এ বিষয়ে বুধবার সংস্থাপন সচিব ইকবাল মাহমুদ বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম.বিডিকে বলেন, ‘আজকের বৈঠকে সংস্থাপন মন্ত্রণালয়ের নাম পরিবর্তনে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। শিগগিরই মন্ত্রিসভায় তা উপস্থাপন করা হবে।’

মন্ত্রণালয়ের নাম পরিবর্তনের যুক্তি দিয়ে সংস্থাপন সচিব বলেন, ‘এর প্রধান কারণ হল সংস্থাপন মানে কী সাধারণ মানুষ তা বুঝতে পারে না। বিশ্বের কেউই বুঝতে পারে না। দেশটা যেহেতু সাধারণ মানুষের, তাই এ মন্ত্রণালয়ও তাদের। তারা যেন বুঝতে পারে এ মন্ত্রণালয়ের কী কাজ। সেজন্য মন্ত্রণালয়ের নাম পরিবর্তন করা হচ্ছে।’

নাম পরিবর্তনের পাশাপাশি মন্ত্রণালয়ের নতুন করে মিশন-ভিশনও প্রণয়ন করা হচ্ছে জানিয়ে ইকবাল মাহমুদ বলেন, ‘মন্ত্রণালয়ের আগে কোনো মিশন-ভিশন ছিল না। আমরা নতুন করে মন্ত্রণালয়ের মিশন-ভিশন তৈরি করছি।’

মন্ত্রণালয়ের মূল্যবোধেও পরিবর্তন আসবে বলে জানান তিনি।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, একুশ শতকের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় প্রশাসনিক সংস্কারের মাধ্যমে একটি দ, গণমুখী, স্বচ্ছ ও জবাবদিহিমূলক জনপ্রশাসন গড়ে তোলার উদ্যোগ নেয় সরকার। এ ল্েয এরই মধ্যে  সিভিল সার্ভিস অ্যাক্ট, পদোন্নতি/পদায়ন নীতিমালা, ক্যারিয়ার প্ল্যানিং, মন্ত্রণালয়গুলোর গুচ্ছায়ন, মাঠ প্রশাসন সংস্কার এবং সংস্থাপন মন্ত্রণালয়ের কার্যপরিধি পুনর্বিন্যাস ও নতুন নামকরণের পদপে নেওয়া হয়েছে।

এডিবি ও ইউএনডিপির আর্থিক ও কারিগরী সহায়তায় সংস্থাপন মন্ত্রণালয়ের নাম পরিবর্তনের জন্য ৬ টি নাম প্রস্তাব করা হয়।

এগুলো হল- জনসেবা ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়, গণকর্মচারী ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়, জনপ্রশাসন ও সাংগঠনিক ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়, বেসামরিক সেবা বিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং জনসেবা সংগঠন ও উন্নয়ন বিষয়ক মন্ত্রণালয়।

এর মধ্য থেকে মন্ত্রণালয়ের মিশন, ভিশন ও মূল্যবোধের আলোকে প্রস্তাবিত নামগুলো চুলচেরা বিশ্লেষণ করে তিনটি নাম মন্ত্রিসভায় পাঠানোর সিদ্ধান্ত হয়।

সংস্থাপন মন্ত্রণালয় থেকে মন্ত্রণালয়ের কার্যপরিধি পুনর্বিন্যাস এবং ভিশন, মিশন, মূল্যবোধ নির্ধারণ ও মন্ত্রণালয়ের কর্মপ্রকৃতির সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ একটি নতুন নাম নির্ধারণে গত বছর এ প্রক্রিয়া শুরু হয়।

প্রাথমিকভাবে সব সচিব, বিভাগীয় কমিশনার, জেলা প্রশাসক ও সংস্থাপন মন্ত্রণালয়ে কর্মরতদের কাছে সংস্থাপন মন্ত্রণালয়ের একটি নতুন নাম চাওয়া হয়।

পরে ইউএনডিপির আর্থিক সহায়তায় সংস্থাপন মন্ত্রণালয়ের কার্যপরিধি পর্যালোচনা এবং ভিশন, মিশন ও মূল্যবোধ নির্ধারণসহ নতুন নামকরণে সরকারি, বেসরকারি পর্যায়ে ২৮ অক্টোবর দিনব্যাপী এক কর্মশালার আয়োজন করা হয়।

ওই কর্মশালায় স্টেকহোল্ডারদের পরামর্শের ভিত্তিতে সংস্থাপন মন্ত্রণালয়ের নতুন নামের সুপারিশ করা হয়।

এ সংক্রান্ত একটি খসড়া প্রধানমন্ত্রীর কাছে পাঠালে তিনি তা অনুমোদন দিয়ে সচিব কমিটিতে পাঠান।

১৩ মে সচিব কমিটির বৈঠকে বিষয়টি উত্থাপন করা হলে আরো যাচাই-বাছাইয়ের জন্য সিদ্ধান্ত হয়।

এতে বলা হয়- ভিশন, মিশন, মূল্যবোধ ও মন্ত্রণালয়ের নাম বাংলা ও ইংরেজিতে পাশাপাশি লিখতে হবে এবং প্রস্তাবিত নাম ও কর্মপ্রকৃতির মধ্যে যাতে কোনো অসামাঞ্জস্য না থাকে সে বিষয়টি পুঙ্খানুরূপে যাচাই-বাছাই করে পরবর্তী সচিব কমিটির বৈঠকে পাঠানোর সুপারিশ করা হয়।  

বাংলাদেশ সময়: ২০১৭ ঘণ্টা, আগস্ট ১১, ২০১০

খুলনায় এমপি নারায়ণ চন্দের ছেলের আত্মহত্যার চেষ্টা
মাকে নিয়ে তীর্থে নয়, ক্যাসিনোয় গেলেন অক্ষয়
শীতকালীন রোগে মৃত্যু ৫৭ জনের
মনিরামপুরের সাবেক ওসি ছয়রুদ্দিনকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ
মোদী-অমিতের মিথ্যা কথার তালিকা দিল কংগ্রেস


পুলিশকে জনগণের পক্ষে কাজ করার আহ্বান ইশরাকের
‘ই-পাসপোর্ট ডিজিটাল জগতে দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করবে’
সিএএ স্থগিত করতে ভারতীয় সুপ্রিম কোর্টের অস্বীকৃতি
ঝালকাঠিতে ২ ‘মাদক ব্যবসায়ী’ আটক
কাউন্সিলর প্রার্থী সারোয়ারের প্রার্থিতা বাতিল চান তাবিথ