২৪ আগস্টের সভায় মতামত দেবে সংবিধান সংশোধন কমিটি

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

আগামী সভায় মতামত জানাবে সংবিধান সংশোধনে গঠিত বিশেষ কমিটি। কমিটির পরবর্তী সভা অনুষ্ঠিত হবে ২৪ আগস্ট।

ঢাকা: আগামী সভায় মতামত জানাবে সংবিধান সংশোধনে গঠিত বিশেষ কমিটি। কমিটির পরবর্তী সভা অনুষ্ঠিত হবে ২৪ আগস্ট।

আদালতের রায়ে পঞ্চম সংশোধনী বাতিলের পর ’৭২ এর সংবিধানে ফিরে যেতে এ কমিটি গঠিত হয়।
 
রোববার কমিটির মুলতবি সভায় সর্বোচ্চ আদালতের রায় এবং সংবিধানের বর্তমান অবস্থা পর্যালোচনা করে তৈরি ৪টি প্রতিবেদন উপস্থাপন করা হয়। এ প্রতিবেদনের ওপর ভিত্তি করেই কমিটি সদস্যরা তাদের মতামত জানাবেন।

সভা শেষে কমিটির কো-চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মণ্ডলির সদস্য সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত প্রেস ব্রিফিংয়ে এ কথা জানান।

সর্বোচ্চ আদালতের দু’টি রায় এবং সংবিধানের চতুর্থ সংশোধনীর পূর্ব ও পরবর্তী অবস্থা, পঞ্চম সংশোধনীর পরের অবস্থা এবং বর্তমান অবস্থা পর্যালেচনা করে প্রতিবেদনগুলো তৈরি করা হয়েছে। এতে আদালতের রায়ের সঙ্গে ৭২’র মূল সংবিধান এবং বর্তমান সংবিধানের সঙ্গতি ও অসঙ্গতিগুলো চিহ্নিত করা হয়েছে।

এ চারটি প্রতিবেদনের মধ্যে দু’টি তৈরি করেছে আইন কমিশন, একটি আইন মন্ত্রণালয় এবং আরেকটি সংশোধন কমিটির চেয়ারম্যান ও কো-চেয়ারম্যানের পক্ষে সংসদ সচিবালয়।

প্রতিবেদনের লিখিত কপি কমিটির প্রত্যেক সদস্যকে দেওয়া হয়েছে।

এদিকে, সংবিধান সংশোধনের ১৫ সদস্যের কমিটিকে বর্ধিত করে ১৭ সদস্য করা হয়েছে। নতুন সদস্যরা হলেন আইনমন্ত্রী ব্যারিস্টার শফিক আহমেদ এবং আইন কমিশনের চেয়ারম্যান। এ দু’জন আমন্ত্রিত সদস্য হিসেবে কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত হয়েছেন।

তবে ব্রিফিংয়ে সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত বলেন, ‘এ দু’জনকে কো-অপট করা হয়েছে। তারা কমিটির স্থায়ী সদস্য হিসেবে কাজ করবেন।’

সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত আরো বলেন, ‘যে চারটি প্রতিবেদন কমিটিতে এসেছে তা সদস্যরা পড়ে আসবেন। আগামী সভায় এ প্রতিবেদন নিয়ে আলোচনা হবে এবং মূল সংবিধানের সংশোধন, পরিবর্তন এবং সংযোজন-বিয়োজনের কাজ শুরু করতে পারব।’

এ সময় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নে জবাবে সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত জানান, হাইকোর্ট, সুপ্রিম কোর্টের রায় এবং মূল সংবিধানের মধ্যে কিছু অসঙ্গতি রয়েছে।

আরেক প্রশ্নের জবাবে সুরঞ্জিত সেগগুপ্ত বলেন, সর্বোচ্চ আদালতের রায়ে পঞ্চম সংশোধনী বাতিলের পর দালাল আইন পুনরুজ্জীবিত হয়েছে। এ আইনে বিচারের জায়গা প্রশ্বস্থ হয়েছে। সামরিক শাসন দিয়ে দালাল আইন বাতিল করা হয়েছিল।

কমিটির চেয়ারম্যান সাজেদা চৌধুরীর সভাপতিত্বে রোববারের সভায় আব্দুর রাজ্জাক ছাড়া কমিটির সবাই উপস্থিত ছিলেন। অসুস্থতার কারণে আব্দুর রাজ্জাক সভায় থাকতে পারেননি।

জাতীয় সংসদ ভবনের মন্ত্রিপরিষদ কক্ষে বিকেলে পৌনে চারটায় এ সভা শুরু হয়ে প্রায় দেড় ঘণ্টা চলে।

বাংলাদেশ সময়: ২০৪০ ঘণ্টা, আগস্ট ০৮, ২০১০
 

সাইফের সিনেমার প্রচারণায় লারা
সুনামগঞ্জে চাচার হাতে ভাতিজা খুন
সৌন্দর্যের জগতে ফারহানা চৈতির বাধাহীন পথচলা
ফেনী ইউনিভার্সিটিতে শিক্ষক-কর্মকর্তা নিয়োগ
ডিএনসিসির ৮ ভেন্যু থেকে করা হবে নির্বাচনী মালামাল বিতরণ


লালমনিরহাট কারাগারের জেলার আর নেই
খুবির মেডিক্যাল সেন্টারের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন
যশোরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ২ জন নিহত
বানরের খামচি খেয়ে যুব বিশ্বকাপ শেষ অজি ব্যাটসম্যানের
গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত রাজশাহীবাসী