কর্ণফুলীর তীরে স্যাটেলাইট শহর

বিনিয়োগের জন্য এডিবির সঙ্গে আলোচনা শুরু করছে সিডিএ

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

চট্টগ্রামে কর্ণফুলী নদীর তীর ঘেঁষে স্যাটেলাইট শহর গড়তে বিনিয়োগের জন্য এশিয়া উন্নয়ন ব্যাংকের (এডিবি) সঙ্গে আলোচনা শুরু করছে সিডিএ। এ প্রকল্পের সম্ভাব্য ব্যয় ধরা হয়েছে ১৫ হাজার ১৯৫ কোটি টাকা। একইসঙ্গে চট্টগ্রামে সমন্বিত যোগাযোগ ব্যবস্থা গড়তে একটি প্রকল্প এডিবির কাছে উপস্থাপন করা হবে।

চট্টগ্রাম : চট্টগ্রামে কর্ণফুলী নদীর তীর ঘেঁষে স্যাটেলাইট শহর গড়তে বিনিয়োগের জন্য এশিয়া উন্নয়ন ব্যাংকের (এডিবি) সঙ্গে আলোচনা শুরু করছে সিডিএ। এ প্রকল্পের সম্ভাব্য ব্যয় ধরা হয়েছে ১৫ হাজার ১৯৫ কোটি টাকা। একইসঙ্গে চট্টগ্রামে সমন্বিত যোগাযোগ ব্যবস্থা গড়তে একটি প্রকল্প এডিবির কাছে উপস্থাপন করা হবে।
 
সোমবার এ দুটি প্রকল্প নিয়ে ঢাকায় এডিবির অফিসে সংস্থার কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা করবেন সিডিএর উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের একটি দল। এজন্য সিডিএর প্রধান প্রকৌশলী ইকবাল আহমেদ মজুমদার, উপ-প্রধান পরিকল্পনাবিদ শাহীনুর ইসলাম খানসহ চার সদস্যের একটি দল এখন ঢাকায় অবস্থান করছেন।
 
এ প্রসঙ্গে সিডিএর উপ-প্রধান নগর পরিকল্পনাবিদ শাহীনুর ইসলাম খান বাংলানিউজকে বলেন, ‘গত এপ্রিলে এডিবির একটি প্রতিনিধি দল চট্টগ্রাম সফরে এলে সিডিএর বিভিন্ন প্রকল্পে অর্থায়নের জন্য তাদের কাছে উপস্থাপন করা হয়। তখন গুরুত্বপূর্ণ এ দুটি প্রকল্পের ব্যাপারে তারা আগ্রহ প্রকাশ করে এবং এডিবির বার্ষিক লোনে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য প্রকল্পের বিস্তারিত তথ্য দিতে বলে। এরই অংশ হিসেবে সোমবারের বৈঠকে আমরা এ দুটি প্রকল্প তাদের কাছে উপস্থাপন করবো।’
 
তিনি বলেন, ‘রিভার ফ্রন্ট ডেভলপমেন্ট প্রকল্পের মাধ্যমে শহরের ওপর চাপ কমাতে কর্ণফুলী নদীর তীরে  স্বয়ংসম্পূর্ণ সমন্বিত শহর গড়া হবে। এই প্রকল্পের আওতায় নদীর তীর ঘেঁষে কালুরঘাট ব্রিজ থেকে শাহ আমানত সেতু পর্যন্ত আট কিলোমিটার এলাকা জুড়ে আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্বলিত শহর এবং নদীকেন্দ্রিক পর্যটন জোন গড়ে তোলা হবে। গড়ে তোলা হবে হাই ক্লাস রেডিসেনডিশিয়াল এলাকা।  পাঁচ তারকা হোটেল, শপিং মল, বোট ক্লাব, ক্যাবল পার্ক, গার্মেন্ট ভিলেজ, থিম পার্ক, মিউজিয়াম, স্কুল-কলেজ-বিশ্বদ্যিালয়, হাসপাতাল, স্পোর্টস জোনসহ সবই থাকবে এই শহরে। পাশাপাশি  নিম্নবিত্তদের জন্য আলাদা হাউজিং প্রকল্প এবং নদীর তীরে জেলেপাড়ার ঐতিহ্য সংরক্ষণ করা হবে।’
 
সিডিএর এ পরিকল্পনাবিদ আরও বলেন, ‘চট্টগ্রাম শহরে রেল, সড়ক ও নদীপথে সমন্বিত যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে আমরা এডিবির সহায়তা চাইবো। এ দুটি প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে পুরো চট্টগ্রাম শহরের চেহারা পাল্টে যাবে।’

বাংলাদেশ সময় : ০৪২৪ ঘণ্টা, মে ২৩, ২০১১

ওসির গাড়িতে গর্ভবতী নারীকে নেওয়া হলো হাসপাতালে
রামগতিতে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় সাংবাদিক নিহত
করোনায় সিরিয়ায় প্রথম মৃত্যু
স্বল্প পরিসরে চেক ক্লিয়ারিং করার নির্দেশ
করোনায় ইতালিতে আরও ৭৫৬ জনের মৃত্যু


করোনাভাইরাস মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রীর বার্তা
প্রধানমন্ত্রীর তহবিলে ১ দিনের বেতন দিলেন সেনা সদস্যরা
মাঠে নেমে সহায়তা করছেন বলিউড তারকারা
ল্যাব না থাকলেও সিংড়ায় গেল দুই'শ করোনা টেস্টিং কিট
মানুষকে টেলিফোনে চিকিৎসাসেবা দিতে ফারাজের উদ্যোগ