মহাজোট আমলে ১৫৭ এমপিকে প্লট দিয়েছে রাজউক: সংসদে প্রতিমন্ত্রী

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

ক্ষমতাসীন মহাজোট সরকারের আমলে মোট ১৫৪ জন সংসদ সদস্যকে বিভিন্ন আয়তনের প্লট বরাদ্দ দিয়েছে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক)।

সংসদ থেকে: ক্ষমতাসীন মহাজোট সরকারের আমলে মোট ১৫৪ জন সংসদ সদস্যকে বিভিন্ন আয়তনের প্লট বরাদ্দ দিয়েছে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক)।

রোববার জাতীয় সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বে সংসদ সদস্য গোলাম দস্তগীর গাজীর প্রশ্নের জবাবে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী আব্দুল মান্নান খান এ তথ্য জানান। আব্দুল মান্নান খানের অনুপস্থিতিতে তা পাঠানো লিখিত বক্তব্য থেকে উত্তর দেন নৌ পরিবহনমন্ত্রী শাহজাহান খান

তিনি বলেন, ‘২০০৯ সালে পূর্বাচল নতুন শহর প্রকল্পে ৫০ জনকে ১০ কাঠা আয়তনের, ২ জনকে সাড়ে ৭ কাঠা আয়তনের ও ১ জনকে ৫ কাঠার প্লট দিওয়া হয়েছে।’

তিনি জানান, ২০০৯ ও ২০১০ সালে উত্তরা ৩য় প্রকল্পে ৫ কাঠা করে মোট ৮৫ জনকে ও ২০১১ সালে পূর্বাচল নতুন শহর প্রকল্পে ১৯ জনকে সাড়ে সাত কাঠা করে প্লট বরাদ্দ দেওয়া হয়।

২০০১ সাল থেকে এখন পর্যন্ত মোট ২৮০ জন সংসদ সদস্য রাজউক থেকে প্লট বরাদ্দ পেয়েছেন বলেও জানান তিনি।

২০০৯ সালে পূর্বাচল নতুন শহর প্রকল্পে ১০ কাঠা করে বরাদ্দ পাওয়া ৫০ জন এমপি’র তালিকা:

দেওয়ান ফরিদ গাজী, ফরিদা আক্তার, খন্দকার আসাদুজ্জামান, রণজিৎ কুমার রায়, আজিজুল হক চৌধুরী, মোস্তফা ফারুক মোহাম্মদ, শামসুল হক চৌধুরী, মমতাজ বেগম, এবিএম আশরাফউদ্দিন নিজান, মো. জিয়াউল হক মৃধা, গোলাম মোস্তফা, বিএম মোজাম্মেল হক। রাশেদ খান মেনন, নসরুল হামিদ, শেখ আব্দুল ওহাব, একেএম এ আওয়াল (সাইদুর রহমান), আফাজ উদ্দিন আহমেদ, মো: মুজিবুল হক, এবিএম আবুল কাশেম, মো. শুফকুল ইসলাম, ননী গোপাল মন্ডল, গোলাম কিবরিয়া টিপু, লুৎফুল হাই, আসাদুজ্জামান খান, ড. মো. আনোয়ার হোসেন, আব্দুল্লাহ আল কায়সার, রেহানা আকতার রানু, মো. মজহারুল হক প্রধান, অপু উকিল, মাহবুব উদ্দিন খোকন, এএইচএম হামিদুর রহমান আযাদ, মো. মোজাহার আলী প্রধান, মো: ফরিদুল হক খান, মাঈন উদ্দিন খান বাদল, মো. গোলাম মাওলা রনি, মিজানুর রহমান খান, মো. আব্দুল ওদুদ, নাসিমুল আলম চৌধুরী, হাবিবুন নাহার, ড. আকরাম হোসেন চৌধুরী, নাজিম উদ্দিন আহমেদ, মো. নজরুল ইসলাম, মো. আমজাদ হোসেন, যতীন্দ্র লাল ত্রিপুরা, জুনাইদ আহমেদ পলক, আবুল কালাম আজাদ, কেএম খালিদ, মনোরঞ্জন শীল গোপাল, গোলাম দস্তগীর গাজী, মো: আলী আজগর,

৫ কাঠা একজন: সাধন চন্দ্র মজুমদার
সাড়ে ৭ কাঠা করে ২ জন: মাহফুজা মন্ডল (রিনা), নূরজাহান বেগম,

২০০৯ ও ২০১১ সালে সম্প্রসারিত উত্তরা ৩য় পর্ব প্রকল্পে ৫ কাঠা করে ৮৫ জনের তালিকা:

ফরিদুন্নাহার লাইলী, মো. জসীম উদ্দিন, আব্দুল্লাহ আল ইসলাম, বেগম সুলতানা তরুণ, ননী গোপাল ম-ল, সাধন চন্দ্র মজুমদার, মো. আহাদ আলী সরকার, নওয়াব আলী আব্বাস খান, শফিকুল আজম খান, মো. আলী আজগর, মো. আব্দুল ওয়াদুুদ, আসমা জেরীন ঝুমু, আহমেদ নাজনীন সুলতানা, মো: মেজবাহউদ্দিন ফরহাদ, বেগম পারভীন তালুকদার, মঞ্জুর কাদের কোরাইশী, শেফালী মমতাজ, কাজী ফারুক কাদের, তহুরা আলী, নূর আফরোজ আলী, মো. আব্দুস সাত্তার, জাহিদ আহসান রাসেল, মো. ইসহাক তালুকদার, শাহ জিকরুল আহমেদ, মু. জিয়াউর রহমান, নারায়ণ চন্দ্র চন্দ, শাহিদা তারেখ দীপ্তি, মো. কামরুল ইসলাম আলী, মো. ইসরাফিল আলম, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, জুনাইদ আহমেদ পলক, মো. আবু জহির, মো: হায়াতুর রহমান খান, মো. আনোয়ারুল আশরাফ খান, আনিসুল ইসলাম মন্ডল, শামসুর রহমান শরীফ, মো, রহমত আলী, মো. হোসেন মকবুল শাহরিয়ার, মো. মোসলেম উদ্দিন, খাদিজা খাতুন শেফালী, মো. আশরাফ আলী খান খসরু, একেএম হাফিজুর রহমান, মোস্তফা ফারুক মোহাম্মদ, জহিরুল হক ভূঁইয়া মোহন, মো. একরামুল করিম চৌধুরী, শওকত আরা বেগম, মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, মো. মুরাদ হাসান, মো. শহীদুজ্জামান সরকার, মো. আফসারুল আমিন, মো. ইলিয়াছ উদ্দিন মোল্লাহ, আকম বাহাউদ্দিন, মো. আসলামুল হক, মো. আব্দুল ওয়াদুদ, মো. মকবুল হোসেন, মো. আব্দুর রহমান বদি, মো. লুৎফুর রহমান, জাহানার বেগম, রণজিৎ কুমার রায়, মো. মেরাজ উদ্দিন মোল্লা, সাফিয়া খাতুন, বেগম নূর-ই-হাসনা লিলি চৌধুরী, মো.জয়নাল আবেদীন, মোল্ল্যা জালাল উদ্দিন, জেআইএম মোস্তফা আলী, বেনজীর আহমেদ, জোবেদা খাতুন, খন্দকার আব্দুল বাতেন, আজিুল হক চৌধুরী, আনম শামসুল ইসলাম, মো. মতিউর রহমান, রুবী রহমান, মো. জাফর আলী, গোলাম ফারুক খন্দকার প্রিন্স, গিয়াস উদ্দিন আহমেদ, সুলতানা বুলবুল, নাসিম ওসমান, মো. আব্দুল জলিল, মো. নূরুল ইসলাম সুজন, মো. শাহ আলম, খালেদুর রহমান টিটো, মো. শফিকুল ইসলাম, মো, একাব্বর হোসেন, মো. ফজলে হোসেন বাদশা, মুহা. ইমাজ উদ্দিন প্রামানিক।

২০১১ সালে পূর্বাচল নতুন শহর প্রকল্পে সাড়ে সাত কাঠা করে ১৯ জনের তালিকা:

লে; কর্নেল (অব:) ফারুক আহম্মেদ ফরুক খান, ডা. ক্যাপ্টেন (অব.) মজিবুর রহমান ফকির, প্রমোদ মানকিন, সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত, এনামুল হক, এথিন রাখাইন, ওয়ারেসাত হোসেন বেলাল বীর প্রতীক, নাসরিন জাহান রতনা, মীর শওকাত আলী বাদশা, ফরিদা রহমান, তালুকদার মো. তৌহিদ জং (মুরাদ), সানজিদা খানম, এবিএম আনোয়ারুল হক, মো: জাকির হোসেন, মো. মতিউর রহমান, মেহের আফরোজ (চুমকি), এ, কে, এম, ফজলুল হক, মো. মনোয়ার হোসেন চৌধুরী, আকম মোজাম্মেল হক,  

বাংলাদেশ সময়: ১৭৫৮ ঘণ্টা, মে ২২, ২০১১

চিকিৎসাধীন চট্টগ্রামের শীর্ষ তিন করোনাযোদ্ধা
শনির দশা কাটছে না রাজশাহীর আমের
লিবিয়ায় বেঁচে যাওয়া বাংলাদেশি যে লোমহর্ষক বর্ণনা দিলেন
স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা
পত্নীতলায় সড়ক দুর্ঘটনায় ২ ভাইয়ের মৃত্যু


দৌলতদিয়া ঘাটে বাড়ছে যাত্রীদের চাপ
ফতুল্লায় করোনা আক্রান্ত হয়ে আ’লীগ নেতার মৃত্যু
ঠাকুরগাঁওয়ে প্রথম করোনার উপসর্গ নিয়ে এক যুবকের মৃত্যু
চাষিদের স্বপ্ন হাঁড়িভাঙা আমে
নীলফামারীতে অতিবৃষ্টির কারণে ধান নিয়ে বিপাকে কৃষক