php glass

গেজেট প্রকাশ না হলেও

বাসভাড়া নেওয়া হচ্ছে ইচ্ছামতো

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

গণপরিবহনে ভাড়া আদায়ে নৈরাজ্যকর পরিস্থিতি বৃহস্পতিবার পর্যন্ত লক্ষ্য করা গেছে। এক্ষেত্রে সরকারের কেনো হুমকিই কাজে আসছে না। গত শুক্রবার থেকে এম পরিস্থিতি শুরু হয়েছে।

ঢাকা: গণপরিবহনে ভাড়া আদায়ে নৈরাজ্যকর পরিস্থিতি বৃহস্পতিবার পর্যন্ত লক্ষ্য করা গেছে। এক্ষেত্রে সরকারের কেনো হুমকিই কাজে আসছে না। গত শুক্রবার থেকে এম পরিস্থিতি শুরু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার যোগাযোগমন্ত্রী সৈয়দ আবুল হোসেন বাস মালিকদের প্রতি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, ‘ভাড়া বেশি নিলে বাসের লাইসেন্স বাতিল করা হবে।’

সোমবার মন্ত্রণালয়ের বৈঠকে ভাড়া পুনর্নির্ধারণ করার পরে বলা হয়- নতুন করে গেজেট প্রকাশ না হওয়া পর্যন্ত কোনো পরিবহনে বাড়তি ভাড়া নেওয়া যাবে না। কিন্তু তা কোনো কাজেই আসছে না।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে বাস যাত্রীদের কাছ থেকে বেশি ভাড়া নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মশিউর রহমান নামের এক বাসযাত্রী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘পরিবহন সেক্টরে সরকারের কোনো নিয়ন্ত্রণ আছে বলে মনে হয় না।’

তিনি বলেন, ‘সভার থেকে মতিঝিলের ভাড়া আগে ছিল ৪০ টাকা। বৃহস্পতিবার সুপার বাস পরিবহনে নেওয়া হলো ৬০ টাকা। অর্থাৎ ৫০ শতাংশ বাড়তি ভাড়া আদায় করা হচ্ছে। প্রতিবাদ করেও কোনো লাভ হচ্ছে না।’
 
সুমন নামের এক যাত্রী বলেন, ‘মনে হচ্ছে দেশের মালিক বনে গেছেন পরিবহন মালিকরা। তারা যেভাবে মনে করছেন, ঠিক সেভাবেই ভাড়া আদায় করছেন। আসাদগেট থেকে শাহবাগের দূরত্ব খুব বেশি হলে ৪ কিলোমিটার। সেখানে রাজধানী পরিবহনে আমার কাছ থেকে ভাড়া রাখা হয়েছে ১৫ টাকা। আগের ভাড়া কিংবা নতুন ভাড়া কোনোটাই এর ধারে কাছে নেই।’
 
সুপার বাস সার্ভিসের প্রেস ক্লাব কাউন্টারের টিকেট বিক্রেতা জাহাঙ্গীর হোসেন বাংলানিউজকে বলেন, ‘আমরা এখনও গেজেট পাইনি। সে কারণে যাত্রীদের কাছ থেকে বলে কয়ে কিছু বেশি রাখতেছি।’

তিনি বলেন, ‘প্রেস ক্লাব থেকে জিরানী পর্যন্ত ৪৩ কিলোমিটার রাস্তা আগে যেখানে ৫০ টাকা নেওয়া হতো, এখন সেখানে ৬০ টাকা রাখা হচ্ছে। গেজেট এবং নতুন টিকিট পাওয়া গেলে সেভাবে দাম রাখা হবে।’

উল্লেখ্য, সিএনজির দাম বাড়ার পর সোমবার সচিবালয়ে যোগাযোগমন্ত্রীর সভাপতিত্বে পরিবহন মালিক ও শ্রমিক নেতাদের সঙ্গে ত্রিপক্ষীয় বৈঠকে গণপরিবহনের নতুন ভাড়া নির্ধারণ করা হয়।

বৈঠকে কিলোমিটারে ৩৫ পয়সা হারে বাসভাড়া বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়। ঢাকা ও চট্টগ্রাম মহানগরীতে চলাচলকারী বাস ও মিনিবাসের ক্ষেত্রে প্রতি কিলোমিটারে ভাড়া যথাক্রমে ১ দশমিক ৫৫ ও ১ দশমিক ৪৫ টাকা নির্ধারণ করা হয়।

সর্বনি¤œ ভাড়া নির্ধারণ করা হয় বড় বাসে ৭ টাকা ও মিনিবাসের ৫ টাকা। দূরপাল্লার বাসে ভাড়া ৯৪ ও ৯৭ পয়সা থেকে বাড়িয়ে করা হয় ১ টাকা ১৫ পয়সা।

১২ মে সিএনজির দাম প্রতি ঘনমিটার ১৬ টাকা ৭৫ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ২৫ টাকা এবং ৫ মে সকল জ্বালানির দাম লিটার প্রতি ২ টাকা বাড়ানোর পর বাসভাড়ার নতুন এ হার নির্ধারণ করে সরকার।

বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় যাত্রীবেশে বাসভাড়া আদায়ের অবস্থা পর্যবেক্ষণে বের হন স্থানীয় সরকার প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক। তিনি মোহাম্মদপুর টাউনহল থেকে এটিসিএল কোম্পানির বাসে চড়ে মোহাম্মদপুর-মতিঝিল রুটে চলাচলকারী এটিসিএল কোম্পানির একটি বাসে টিকেট কেটে বিভিন্ন কাউন্টারে কোনো গন্তব্যের জন্য কত ভাড়া আদায় হচ্ছে তা পর্যবেক্ষণ করেন। মিরপুর-মতিঝিল রুটে চলাচলকারী শতাব্দি পরিবহনের যাত্রীরা অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের বিষয়টি প্রতিমন্ত্রীর গোচরে আনেন। তাৎক্ষণিকভাবে নির্দিষ্ট গন্তব্যের টিকেট চেক করে অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় সংশ্লিষ্ট বাস কোম্পানির বিরুদ্ধে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের দায়ে জিডি করার নির্দেশ দেন প্রতিমন্ত্রী। পরে ৩ যাত্রী বাদী হয়ে মোহাম্মদপুর থানায় ওই বাস কোম্পানির বিরুদ্ধে পৃথক জিডি করেন।

বিআরটিএর পরিচালক সাইফুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন, ‘আজকের মধ্যেই নতুন গেজেট প্রকাশ করা হবে। গেজেট প্রকাশের পরে কোনো অনিয়ম হলে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হবে।’

নতুন গেজেট প্রকাশের পরে ভাড়া আদায়ের বিষয়ে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হবে বলে তিনি জানান।

বাংলাদেশ সময়: ১৬২৪ ঘণ্টা, মে ১৯, ২০১১

টানা দুই জয়ে কাবাডি চ্যাম্পিয়নশিপের কোয়ার্টারে বাংলাদেশ
আশুলিয়ায় মাদক মামলার পলাতক আসামি গ্রেফতার
আগরতলায় বন সংরক্ষণ বিষয়ক ৩ দিনের কর্মশালা
সেই কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যা করেছিলেন হাফেজ মুজিবুল
বানিয়াচংয়ে ৩ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা


বাঘারপাড়ায় ৬৭১ বস্তা সরকারি চাল জব্দ
বগুড়া-সৈয়দপুর গ্যাস সরবরাহে জমি অধিগ্রহণ প্রক্রিয়া শুরু
নারায়ণগঞ্জে ইটভাটার বিদ্যুৎ লাইনে জড়িয়ে শিশুর মৃত্যু
সিলেটে সেরা করদাতার সম্মাননা পাচ্ছেন ৩৫ জন
র‌্যাবের অভিযানে ৭ মাদকবিক্রেতা আটক