php glass

চবির শাটল ট্রেনের নিরাপত্তা

গুরুত্বপূর্ণ স্টেশনে পুলিশ ও স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ করা হবে

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শাটল ট্রেনের চালক ও সহকারীদের সঙ্গে ছাত্রদের মারমুখী আচরণ প্রতিরোধে উদ্বুদ্ধকরণ কর্মসূচি হাতে নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শাটল ট্রেনের চালক ও সহকারীদের সঙ্গে ছাত্রদের মারমুখী আচরণ প্রতিরোধে উদ্বুদ্ধকরণ কর্মসূচি হাতে নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

সেইসঙ্গে শাটল ট্রেনের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে গুরুত্বপূর্ণ স্টেশনে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েন এবং চট্টগ্রাম বিশ্বদ্যিালয় স্টেশন এবং ষোলশহর রেল স্টেশনে স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ করার সিদ্ধান্ত হয়েছে।
 
রোববার দুপুরে সিআরবি রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের সদর দফতরে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ, রেলওয়ে কর্মকর্তা এবং শ্রমিক প্রতিনিধিদের এক যৌথসভায় এসব  সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এর আগে সকালে শাটল ট্রেনের চালক এবং এক কর্মচারীকে মারধোরের প্রতিবাদে সিআরবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করে রেলওয়ে রানিং স্টাফ শ্রমিক-কর্মচারী সমিতি।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার রাতে কিছু ছাত্রের অনুরোধ না রেখে বিশ্বদ্যিালয়গামী শাটল ট্রেন নির্ধারিত সময়ে ছেড়ে দেওয়ায় ওই ট্রেনের চালক এবং তার সহকারীকে মেরে গুরুতর জখম করে কিছু উচ্ছৃঙ্খল ছাত্র।

এ ঘটনার প্রতিবাদে গত শুক্রবার শাটল ট্রেন চলাচল বন্ধ রাখে ট্রেনের চালকরা।

পরে দোষীদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেওয়ায় শনিবার থেকে আবার ট্রেন চলাচল  শুরু হয়।

পূর্বাঞ্চলের উপ-পরিচালক (জনসংযোগ) রাশিদা সুলতানা গনি বাংলানিউজকে জানান, বৈঠকে শাটল ট্রেনের চালককে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের প্রহারের ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ আনুষ্ঠানিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করে। সেইসঙ্গে তাদের ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক রাখার জন্য অনুরোধ করে।

 তিনি বলেন, ‘ওই ঘটনায় দোষীদের চিহ্নিত করে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেওয়া হয়েছে।’

রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক ইউসুফ আলী মৃধার সভাপতিত্বে বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন চবির প্রক্টর ড. মোহাম্মদ আখতার হোসেন, রানিং স্টাফ শ্রমিক-কর্মচারী সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলীসহ রেলওয়ে পুলিশ এবং বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
 
রাশিদা সুলতানা আরও জানান, শাটল ট্রেনে চালক এবং শিক্ষার্থীদের মধ্যে অপ্রীতিকর ঘটনা রোধে প্রতিটি বগিতে উদ্বুদ্ধকরণমূলক পোস্টার সাঁটানো হবে।

এছাড়া নিরবচ্ছিন্ন ট্রেন চলাচল বজায় রাখতে বিভাগীয় রেল কর্তৃপক্ষ এবং বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর দপ্তরের মধ্যে নিয়মিত যোগযোগ রাখারও সিদ্ধান্ত হয়েছে।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন রানিং স্টাফ শ্রমিক-কর্মচারী সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলীও।

তিনি বাংলানিউজকে বলেন, ‘ভবিষ্যতে যেন এ ধরনের ঘটনা আর না ঘটে সে ব্যাপারে আমরা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে নিরাপত্তা চেয়েছি। প্রক্টর শাটল ট্রেনের পাশাপাশি শ্রেণী কক্ষে এ ব্যাপারে ছাত্রদের উদ্বুদ্ধ করবেন বলে জানিয়েছেন। পাশাপাশি শাটল ট্রেনে বিশৃঙ্খলা রোধে  ছাত্রদের নিয়ে কমিটি  গঠন করা হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।‘

ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনায় শাটল ট্রেনের টালক বা কেউ আহত, পঙ্গু বা নিহত হলে নির্দিষ্ট অংকের  ক্ষতিপূরণ দেওয়ার জন্য কর্তৃপক্ষের কাছে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে বলেও জানান মোহাম্মদ আলী।

বাংলাদেশ সময়: ১৯২২ ঘণ্টা, এপ্রিল ১০, ২০১১

ছাত্র রাজনীতি
কফিনের ভেতর কথা বলে কে!
যুক্তরাষ্ট্রে ভবনে বাড়ি খেয়ে শতাধিক পাখির মৃত্যু
আইয়ুব বাচ্চু নেই, আইয়ুব বাচ্চু আছেন
শেখ রাসেলের ৫৫তম জন্মদিন শুক্রবার


কম্পিউটারের জনক চার্লস ব্যাবেজের প্রয়াণ
উজ্জ্বয়ন্ত প্রাসাদ চত্বরে চালু হলো ইলেকট্রনিক গাড়ি
মদিনায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতদের প্রতি ড. মোমেনের শোক 
ফেনী ইউনিভার্সিটি ফুটবল টুর্নামেন্ট সম্পন্ন 
সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় ২ বাংলাদেশি যুবক নিহত