php glass

মরিয়ার্টির বক্তব্য সঠিক নয়: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

বাংলাদেশ সন্ত্রাসের ঝুঁকিতে রয়েছেÑমার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত জেমস এফ মরিয়ার্টির এ বক্তব্য সঠিক নয় বলে মন্তব্য করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন।

ঢাকা: বাংলাদেশ সন্ত্রাসের ঝুঁকিতে রয়েছেÑমার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত জেমস এফ মরিয়ার্টির এ বক্তব্য সঠিক নয় বলে মন্তব্য করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন।

বুধবার ঢাকা মহানগরের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে ঢাকার সাংসদদের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।

তবে মরিয়ার্টির এমন বক্তব্যের প্রতিবাদ করা হয়েছে কি-না জানতে চাইলে তিনি কোনও মন্তব্য করেননি।
 
এ সময় তিনি ঢাকা শহরের বিভিন্ন রাস্তা থেকে রিকশা তুলে দেওয়া প্রসঙ্গেও কথা বলেন।

গতকালের ঘটনার কথা উল্লেখ করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘ঢাকা শহরের যানজট এড়ানোর জন্য পর্যায়ক্রমে সব রাস্তা থেকে রিকশা তুলে দেওয়ার জন্য আগের একটি সিদ্ধান্ত ছিল। সে অনুযায়ী আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা কাজ করেছে। কিন্তু একটা দুঃখজনক ঘটনা ঘটে গেছে।’

এর আগে বৈঠক চালাকালেই বেরিয়ে যান স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শামসুল হক টুকু।

তবে বেরিয়ে যাওয়ার সময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘মার্কিন রাষ্ট্রদূত জেমস এফ মরিয়ার্টি বাংলাদেশের কথা বলেননি। তিনি বলেছেন সারা বিশ্বই সন্ত্রাসের ঝুঁকিতে আছে। মরিয়ার্টি বরং বাংলাদেশের প্রশংসা করে বলেছেন, সন্ত্রাস মেকাবেলায় বাংলাদেশ প্রশংসনীয় পদক্ষেপ নিয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘গত দু’মাস আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি ভালো ছিল। কারণ বিরোধী দলের কোনও কর্মসূচি ছিল না।‘

বিরোধী দল সহযোগিতা করলে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির আরও উন্নতি হবে বলে দাবি করেন তিনি।

টুকু বলেন, ‘তবে কোনও রাজনৈতিক দল উদ্দেশ্যমূলকভাবে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি বিঘœ ঘটানোর চেষ্টা করলে সরকার ব্যবস্থা নেবে।‘

এদিকে, বৈঠক শেষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, সভায় তেজগাঁও সার্কেলের ১৭টি ইউনিয়ন ঢাকা সিটি করপোরেশনে থাকবে কি-না সে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

তবে এ ব্যপারে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি বলে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আইন-শৃঙ্খলা নিয়ে প্রতি দু‘মাস অন্তর একটি সভা করার সিদ্ধান্ত হয়েছে।’

এদিকে বৈঠক সূত্র জানায়, ঢাকার রাস্তা থেকে রিকশা তুলে দেওয়ার বিষয় এবং মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণের  বিষয়টি নিয়ে সভায় বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে।

ঢাকা শহরে মাদক দ্রব্যের বিস্তার ও প্রভাব খুব বেড়ে গেছে বলেও সাংসদরা অভিযোগ করেন। মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে তারা তাগিদ দিয়েছেন।
 
তবে রিকশা তুলে দেওয়ার বিষয়টি সাংসদদের না জানানোয় সভায় তারা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

সাংসদরা বলেছেন, কোনও রাস্তা থেকে রিকশা তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিতে হলে তাদের জানাতে হবে। তাহলে ভাঙচুরের মতো ঘটনা এড়ানো সম্ভব হতো।

তাছাড়া হঠাৎ করে কোনও রাস্তা থেকে রিকশা তুলে দেওয়ারও বিরোধিতা করেছেন কোনও কোনও সাংসদ।

বৈঠক শেষে ঢাকা-০৮ আসনের সাংসদ রাশেদ খান মেনন সাংবাদিকদের বলেন, ‘হঠাৎ করে খুশিমতো রিকশা উচ্ছেদের হুকুম দিবেন.. এরপর উদ্ভূত পরিস্থিতির দায়-দায়িত্ব কে নেবে? আমাদের সঙ্গে আলাপ আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। এসব বিষয়ে আমরা কথা বলেছি।’

বিকেলে সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ছাড়াও আইনপ্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, আওয়ামী লীগের সাংসদ সাবের হোসেন চৌধুরী, একেএম রহমতউল্লাহ, আসলামুল হক আসলাম, সানজিতা খাতুন, হাবিবুর রহমান মোল্লাহ এবং আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
 
বাংলাদেশ সময় : ২০৩৩ ঘণ্টা, মার্চ ৩০, ২০১১

ksrm
মৃত ব্যক্তির বয়স্ক ভাতা উত্তোলন করছেন নারী ইউপি সদস্য!
মুষ্টিমেয় শিক্ষক আন্দোলনের কলকাঠি নাড়াচ্ছেন
নকলায় বাসচাপায় অটোরিকশার ৩ যাত্রী নিহত
জাতীয় নারী দাবায় শীর্ষস্থানে রানী হামিদ
আন্দোলনের মুখে ইবি প্রক্টরকে অব্যাহতি


ফরিগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় এনজিও কর্মকর্তা নিহত
বিজয়নগর সায়েম টাওয়ার থেকে আটক ১৭
চট্টগ্রাম বিভাগীয় ফুটবলে চ্যাম্পিয়ন ছাগলনাইয়া পাইলট
ইয়েমেনের কাছে হেরে গেলো বাংলাদেশের কিশোররা
বৃক্ষরোপণে জীবনমান উন্নত হবে: এমএ মালেক