php glass

দশ ট্রাক অস্ত্র মামলা

সিআইডিকে আরও ৪৫ দিন সময় দিলেন আদালত

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

চাঞ্চল্যকর দশট্রাক অস্ত্র মামলার অধিকতর তদন্তের জন্য আরও ৪৫ দিন সময় পেয়েছে মামলার তদন্তকারী সংস্থা সিআইডি। এ নিয়ে স্পর্শকাতর এ মামলায় অধিকতর তদন্তের জন্য ১৩ দফা সময় বাড়ালেন আদালত।

চট্টগ্রাম: চাঞ্চল্যকর দশট্রাক অস্ত্র মামলার অধিকতর তদন্তের জন্য আরও ৪৫ দিন সময় পেয়েছে মামলার তদন্তকারী সংস্থা সিআইডি। এ নিয়ে স্পর্শকাতর এ মামলায় অধিকতর তদন্তের জন্য ১৩ দফা সময় বাড়ালেন আদালত।

৬০ দিন সময় চেয়ে সিআইডির দাখিল করা আবেদনের উপর শুনানি শেষে বুধবার চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ এ কে এম শামসুল ইসলাম অধিকতর তদন্তের সময় বাড়িয়ে আগামী ১৫মে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন।

দশ ট্রাক অস্ত্র মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ও মহানগর পিপি অ্যাডভোকেট কামলউদ্দিন আহমেদ বাংলানিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে দুপুর ১টায় সংশ্লিষ্ট বিচারিক আদালতে মামলার অধিকতর তদন্তের সময় আবেদনের শুনানি শুরু হয়।

শুনানিতে অংশ নিয়ে মহানগর পিপি কামালউদ্দিন আদালতের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘দশ ট্রাক অস্ত্র মামলা কোনো সাধারণ অপরাধের মামলা নয়। বাংলাদেশের জলসীমা ও স্থলপথ ব্যবহার করে অপরাধীরা অন্য একটি দেশে অস্ত্র চালান নিয়ে যাচ্ছিল। এ মামলার তদন্ত শেষ পর্যায়ে। সময়ের জন্য এটাই শেষ আবেদন।’

এসময় আদালত পিপি’র কাছে সর্বশেষ নেওয়া সময়ে কি তদন্ত করেছেন সে বিষয়ে জানতে চান।

আদালত পিপিকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘সিআরপিসি অনুযায়ী যতক্ষণ পর্যন্ত অধিকতর তদন্ত শেষ না হবে ততক্ষণ পর্যন্ত আপনারা সময় নিতে পারবেন। কিন্তু তদন্তের অগ্রগতি কতটুকু না-কি সময় শেষ হবার ৫/৭ দিন আগে তদন্ত শুরু করেন সেটা তো আদালতকে জানাতে হবে।’

এসময় আসামিপক্ষের কয়েকজন আইনজীবী সময় আবেদনের বিরোধিতা করে বলেন, ‘সরকার সুনির্দিষ্ট এজেন্ডা বাস্তবায়নের জন্য এ মামলার তদন্ত কাজ বারবার বিলম্বিত করছেন। এতে ন্যায়বিচার ক্ষুন্ন হচ্ছে।’

শুনানির সময় দশ ট্রাক অস্ত্র মামলার চার্জশিটভুক্ত আসামি দীন মোহাম্মদ ও হাফিজুর রহমানকে বিচারকের নির্দেশে আদালতে হাজির করা হয়।

আদালতে তাদের আইনজীবীরা জামিনের আবেদন জানালে বিচারক তা নিম্ন আদালতে দাখিলের নির্দেশ দেন।

এরআগে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি সর্বশেষ ১২ দফায় ৩০ দিন সময় বাড়িয়েছিলেন আদালত। সময় বাড়ানোর আবেদনের ওপর ওই শুনানিতে তদন্ত এবং সময়ক্ষেপণ নিয়ে তদন্তকারী কর্মকর্তার ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ।
 
উল্লেখ্য ২০০৪ সালের ১ এপ্রিল রাষ্ট্রায়ত্ত সার কারখানা চিটাগং ইউরিয়া ফার্টিলাইজার লিমিটেড (সিইউএফএল) জেটিঘাটে খালাসের সময় দশ ট্রাক অস্ত্র আটক করে পুলিশ।

এ নিয়ে অস্ত্র আটক ও চোরাচালান আইনে দায়ের হওয়া দুটি মামলায় পুলিশ এর আগে চার্জশিট দাখিল করলেও বিগত তত্তাবধায়ক সরকারের আমলে ২০০৮ সালের ১২ ফেব্রুয়ারি মহানগর দায়রা জজ মামলা অধিকতর তদন্তের নির্দেশ দেন।
অধিকতর তদন্ত শুরুর পর থেকে মামলার তদন্তকারী সংস্থা সিআইডি এ পর্যন্ত গোয়েন্দা সংস্থা সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর, এনএসআইয়ের সাবেক দুই মহাপরিচালক অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল রেজ্জাকুল হায়দার চৌধুরী, অবসরপ্রাপ্ত ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আবদুর রহিম, সাবেক পরিচালক উইং কমান্ডার শাহাবুদ্দিন, উপ-পরিচালক অবসরপ্রাপ্ত মেজর লিয়াকত হোসেন, ফিল্ড অফিসার আকবর হোসেন, সিইউএফএল’র সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহসিন উদ্দিন তালুকদার, মহাব্যবস্থাপক (প্রশাসন) একেএম এনামুল হককে গ্রেপ্তার করেন।

এদের মধ্যে কয়েকজন এ ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দিও দেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫৮ঘণ্টা, মার্চ ৩০, ২০১১

ksrm
বগুড়া-২ আসনের সংসদ সদস্যকে দুদকের নোটিশ
জোট থেকে জামায়াত বাদ দেয়া হবে অদূরদর্শিতা: এহসানুল হুদা
মহিমাগঞ্জ ইউপি উপ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী জয়ী
হাঁস-গবাদিপশু ছাড়াই চলছে যুব কেন্দ্রের প্রশিক্ষণ
বাতি অকেজো, হাতের ইশারায় চলছে ট্রাফিক ব্যবস্থা


পর্যটন বিকাশে বিদেশে মেলা, আসছে নতুন নীতিমালা
উৎপাদনের আগেই বাজারজাত কেক!
বরিশালে দুই হোটেলকে জরিমানা
মোড়ক পরিবর্তন করে বাজারে সরিষার তেল, জেল-জরিমানা
বরিশালে কিং ব্র্যান্ড সিমেন্টের হালখাতা