php glass

খুলনায় ব্যালট বাক্স ছিনতাই, গুলি, সংঘর্ষ: ৩৯ ইউনিয়নের বেসরকারি ফলাফল ঘোষণা

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

খুলনার পাইকগাছা ও কয়রা উপজেলায় ভোট গণনার পর ব্যালটবাক্স ছিনতাই, দু’দল সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ ও গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটেছে।

খুলনা: খুলনার পাইকগাছা ও কয়রা উপজেলায় ভোট গণনার পর ব্যালটবাক্স ছিনতাই, দু’দল সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ ও গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটেছে।

ফলাফল ঘোষণার পর একজন সদস্যের ফলাফল মন:পুত না হওয়ায় মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে পাইকগাছার পাতড়াবুনিয়া দাখিল মাদ্রাসা কেন্দ্রের ব্যালট বাক্স ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে।

পাইকগাছা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী আতিয়ূর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বাংলানিউজকে বলেন, ‘প্রিজাইডিং অফিসারের কাছ থেকে রিপোর্ট পাওয়ার পর ওই কেন্দ্রের ভবিষ্যত নির্ধারণ হবে।’ ওই কেন্দ্রের ফলাফল স্থগিত করে আবারও ভোটগ্রহণ করা হতে পারে বলে তিনি ইঙ্গিত করেন।

এদিকে, কয়রা উপজেলার সদর ইউনিয়নের গোবরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে রাত সাড়ে আটটার দিকে ফলাফল ঘোষণার পর এক সদস্য প্রার্থীর সমর্থকরা নির্বাচনী কর্মকর্তাদের ওপর আক্রমণ চালায়। এছাড়া অন্য দু’দল সমর্থক নিজেদের মধ্যে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এই ঘটনায় প্রায় ঘন্টা তিনেক নির্বাচনী কাজে নিয়োজিত কর্মকর্তাবৃন্দ আটকা পড়েন।

সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার মো. মোস্তফা বাংলানিউজকে বলেন, ‘একজন সদস্য প্রার্থী মাত্র তিন ভোটের ব্যবধানে জয়লাভ করার ঘোষণায় আমাদের ওপর তারা ইট-পাটকেল ছুঁড়তে শুরু করে। ’  

জেলার পাঁচ উপজেলার বাকী ৩৯টি ইউনিয়নে মঙ্গলবার শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

দাকোপ উপজেলার পানখালি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে সোহরাব হোসেন, দাকোপ সদরে সঞ্জয় কুমার রায়, লাউডোব ইউনিয়নে সরজিত কুমার রায়, কৈলাশগঞ্জ ইউনিয়নে মিহির আলী, সুতারখালি ইউনিয়নে জি এম আশরাফ, কামারখোলা ইউনিয়নে উমাশংকর রায়, তিলডাঙ্গা ইউনিয়নে প্রার্থী মো. জালাল উদ্দিন গাজী, বাজুয়া ইউনিয়নে দেবপ্রসাদ গাইন, বানিশান্তা ইউনিয়নে সুদেব রায় এবং সুরখালি ইউনিয়নে শেখ হেমায়েত আলী বেসরকারিভাবে জয়লাভ করেছেন।

বটিয়াঘাটা উপজেলার ভান্ডারকোট ইউনিয়নে ইসমাইল হোসেন বাবু, বালিয়াডাঙ্গা ইউনিয়নে গোলাম হোসেন, আমিরপুর ইউনিয়নে খায়রুল ইসলাম জনি, গঙ্গারামপুর ইউনিয়নে আব্দুল গনি বিশ্বাস, জলমা ইউনিয়নে গফুর মোল্লা এবং সদর ইউনিয়নে মনোরঞ্জন মন্ডল চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

কয়রা উপজেলার আমাদি ইউনিয়নে আমির আলি গাইন, বাগালি ইউনিয়নে মোস্তফা অলিউল্ল¬াহ্, মহেশ্বরীপুর ইউনিয়নে বিজয় কুমার সরদার, মহারাজপুর ইউনিয়নে মনিরুজ্জামান বেল্টু, সদর ইউনিয়নে এস এম শফিকুল ইসলাম, উত্তর বেদকাশি ইউনিয়নে সরদার মতিউর রহমান এবং দক্ষিণ বেদকাশি ইউনিয়নে আব্দুল মান্নান চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

দিঘলিয়া উপজেলার সেনহাটি ইউনিয়নে গাজী আব্দুল হালিম, আড়ংঘাটা ইউনিয়নে মফিজুর রহমান, যোগীপোল ইউনিয়নে মীর কায়সেদ আলী, গাজীরহাট ইউনিয়নে মোল্ল¬া আব্দুর রউফ, সদর ইউনিয়নে হায়দার আলী মোড়ল এবং বারাকপুর ইউনিয়নে গাজী জাকির হোসেন চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

পাইকগাছা উপজেলার হরিঢালী ইউনিয়নে রফিকউদ্দিন, কপিলমুনি ইউনিয়নে সাহাদাত হোসেন ডাবলু, লতা ইউনিয়নে কাজল কান্তি বিশ্বাস, দেলুটি সমর কান্তি হালদার, সোলাদানা ইউনিয়নে এনামুল হক, লস্কর ইউনিয়নে কেএম আরিফুজ্জামান তুহিন, গদাইপুর কাজী আব্দুস সালাম বাচ্চু, রাঢুলি ইউনিয়নে আবুল কালাম আজাদ, চাঁদখালি ইউনিয়নে আলহাজ্ব মুনসুর আলী গাজী এবং গড়–ইখালি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের রুহুল আমিন বিশ্বাস নির্বাচিত হয়েছেন।

বাংলাদেশ সময়: ০৭৪৫ ঘন্টা, মার্চ ৩০, ২০১১

ksrm
বাচ্চাকে মারপিটের নালিশ নিয়ে হনুমান দল থানায়!
মৃত ব্যক্তির বয়স্ক ভাতা উত্তোলন করছেন নারী ইউপি সদস্য!
মুষ্টিমেয় শিক্ষক আন্দোলনের কলকাঠি নাড়াচ্ছেন
নকলায় বাসচাপায় অটোরিকশার ৩ যাত্রী নিহত
জাতীয় নারী দাবায় শীর্ষস্থানে রানী হামিদ


আন্দোলনের মুখে ইবি প্রক্টরকে অব্যাহতি
ফরিগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় এনজিও কর্মকর্তা নিহত
বিজয়নগর সায়েম টাওয়ার থেকে আটক ১৭
চট্টগ্রাম বিভাগীয় ফুটবলে চ্যাম্পিয়ন ছাগলনাইয়া পাইলট
ইয়েমেনের কাছে হেরে গেলো বাংলাদেশের কিশোররা