ইফা’র ডিজির দুর্নীতির সংবাদ যাচাই করা হচ্ছে: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শাহজাহান মিয়া বলেছেন, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক (ইফা ডিজি) সামীম মোহাম্মদ আফজলের বিরুদ্ধে বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত দুর্নীতির সংবাদ যাচাই করা হচ্ছে।

ঢাকা: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শাহজাহান মিয়া বলেছেন, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক (ইফা ডিজি) সামীম মোহাম্মদ আফজলের বিরুদ্ধে বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত দুর্নীতির সংবাদ যাচাই করা হচ্ছে।

সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বে বিএনপির এবি এম আশরাফ উদ্দিন নিজানের (লীপুর-৪) এক লিখিত প্রশ্নের উত্তরে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী একথা বলেন।

আশরাফ উদ্দিন নিজানের প্রশ্নে টি ছিল-ইফার ডিজির বিরুদ্ধে বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় দুর্নীতির একাধিক সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে; তা সত্য কি-না; সত্য হলে তার বিরুদ্ধে সরকার কি পদপে নিয়েছে।

জবাবে প্রতিমন্ত্রী এক বাক্যে বলেন, বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদ যাচাই করা হচ্ছে।

বিকেলে ডেপুটি স্পিকার শওকত আলীর সভাপতিত্বে সংসদের বৈঠকের শুরুতে প্রশ্নোত্তর পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।

ধর্মপ্রতিমন্ত্রীর অনুপস্থিতিতে তার পে তথ্যমন্ত্রী আবুল কালাম আজাদ প্রশ্নের জবাব দেন।

দেশে মসজিদ আড়াই লাখ
মুহিবুর রহমান মানিকের (সুনামগঞ্জ-৫) এক প্রশ্নের উত্তরে ধর্মপ্রতিমন্ত্রী জানান, ইসলামিক ফাউন্ডেশনে পরিচালিত সর্বশেষ ২০০৮ এর জরিপ অনুযায়ী বাংলাদেশে সর্বমোট ২ লাখ ৫০হাজার ৩৯৯টি মসজিদ আছে।  সরকার সকল মসজিদের ইমামকে সরকারি ভাতা/ সম্মানি দেয় না।  তবে ইমামদের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে সম্পৃত্ত করার ল্েয ইমাম প্রশিণ একাডেমির মাধ্যমে এ পর্যন্ত ৬৭হাজার ১৯জন ইমামকে আর্থ- সামাজিকভাবে স্বাবলম্বি করার জন্য প্রশিণ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া ইমামদের উন্নয়ন সহায়তার জন্য ইমাম মোয়াজ্জিন কল্যাণ ট্রাস্ট গঠন করে সরকার ১৬ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে ২ বছরে বরাদ্দ ১৭কোটি টাকা
মো. ইসরাফিল আলমের (নওগাঁ-৬) এক প্রশ্নের উত্তরে ধর্মপ্রতিমন্ত্রী জানান, গত দুই বছরে ধর্মমন্ত্রণালয় থেকে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে মোট ১৬ কোটি ৮০লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে ২০০৯-১০ অর্থ বছরে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে মোট ৯ কোটি ৮০লাখ টাকা। মসজিদে ৫কোটি ২০লাখ, মন্দিরে ১কোটি ১০লাখ, ইসলাম ধর্মীয় সংগঠনকে ৩ কোটি বৌদ্ধ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে ৪০লাখ এবং খ্রীষ্টান ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে ১০লাখ টাকা।

২০০৮-০৯ অর্থবছরে মোট দেওয়া হয়েছে ৭কোটি টাকা। এরমধ্যে মসজিদে ৪ কোটি ৮৫ লাখ, মন্দিরে ৮৫ লাখ ইসলাম ধর্মীয় সংগঠনকে ১ কোটি, বৌদ্ধ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে ২০লাখ ও খ্রীস্টার ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে ৫লাখ টাকা।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৩৮ ঘণ্টা, মার্চ ০১, ২০১১

Nagad
দুর্দান্ত জয়ে নতুন মাইলফলকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড
সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে মেয়র নাছিরের শোক
নেতারা বলছেন সাহেদ আওয়ামী লীগের কেউ না
পাটুরিয়া নৌরুট পারের অপেক্ষায় তিন শতাধিক ট্রাক
রামেক হাসপাতালে করোনা রোগীর মৃত্যু


বগুড়া-১, যশোর-৬ উপ-নির্বাচনের তদন্ত কমিটি গঠন ইসির
পায়ে পায়ে ৬৪ দিনে ৬৪ জেলা (পর্ব-৬৪)
বগুড়া-১, যশোর-৬ উপ-নির্বাচন: অনিয়মে জরিমানা ১ লাখ টাকা
করোনা: চট্টগ্রামে নতুন ১৬২ জনসহ মোট আক্রান্ত ১১১৯৩
ছোটপর্দায় আজকের খেলা