php glass

ভোটার তালিকা হালনাগাদ ছাড়াই হচ্ছে ইউপি নির্বাচন

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

ভোটার তালিকা হালনাগাদ করা ছাড়াই মার্চের তৃতীয় সপ্তাহ থেকে শুরু হতে যাচ্ছে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচন। সদ্য শেষ হওয়া পৌর নির্বাচন এবং আদমশুমারি ও মাধ্যমিক-উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের সমাপনী পরীক্ষার কারণে শিগগিরই ভোটার তালিকা হালনাগাদ করা সম্ভব নয়।

ঢাকা: ভোটার তালিকা হালনাগাদ করা ছাড়াই মার্চের তৃতীয় সপ্তাহ থেকে শুরু হতে যাচ্ছে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচন।

সদ্য শেষ হওয়া পৌর নির্বাচন এবং আদমশুমারি ও মাধ্যমিক-উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের সমাপনী পরীক্ষার কারণে শিগগিরই ভোটার তালিকা হালনাগাদ করা সম্ভব নয়। এ জন্য পুরনো তালিকায় ভোট নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

বৃহস্পতিবার ইসি সচিবালয়ে আয়োজিত ভোটার তালিকা হালনাগাদ বিষয়ক বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) এম সাখাওয়াত হোসেন।

তিনি বলেন, ‘এ বছর জানুয়ারিতে পৌরসভা নির্বাচন হয়েছে, ফেব্রুয়ারিতে হচ্ছে এসএসসি পরীক্ষা, মার্চের অর্ধেকটা জুড়ে হবে পরিসংখ্যান ব্যুরোর জাতীয় আদমশুমারি। এরপর এপ্রিলে রয়েছে এইচএসসি পরীক্ষা। যে কারণে ভোটার তালিকা হালনাগাদ করে নির্বাচন করতে গেলে এ বছর সম্ভব হবে না। আইনের মধ্যে আছে, কোনো ধরনের অসুবিধা হলে বিদ্যমান ভোটার তালিকায় নির্বাচন করা যাবে। যেহেতু ইসির কাছে এ সুযোগ রয়েছে, তাই আমরা এ সিদ্ধান্ত নিলাম।’

ভোটার তালিকায় গড়মিল প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘নির্বাচনের সময় আরও যে সমস্যা দেখা দেয় তা হচ্ছে সিডিতে উল্লেখিত ভোটার তালিকা এবং প্রিন্ট কপির মধ্যে মিল থাকে না। সিরিয়াল নম্বরে গড়মিল হয়, যে কারণে অনেক সময় বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়।’

তিনি বলেন, ‘এ সমস্যা হয় দুটি কারণে। প্রথমত ইসি থেকে সরবরাহ করা সিডি বিক্রি করার কথা থাকলেও অধিকাংশ প্রার্থী-এজেন্ট তা কেনেন না। দু’এক জন মাত্র কেনেন, বাকিরা একে অপরের কাছ থেকে কপি করে নেন। এছাড়া মাঝে মাঝে ভোটার তালিকা পরিবর্তন হয়। যা পুরোনো প্রিন্টেড কপিতে আসে না। তখন গড়মিল দেখা দেয়।’

এ বিষয়ে অপর নির্বাচন কমিশনার মুহাম্মদ ছহুল হোসাইন বলেন, ‘অনেকে পুরোনো প্রিন্ট করে ফেলে। ফলে হালনাগাদ তালিকার সঙ্গে মেলে না। তাই এবারে আমরা সিডিতে হালনাগাদের তারিখ উল্লেখ করে দেবো। যাতে কোনো গণ্ডগোল না হয়।’

এম সাখাওয়াতও এ বক্তব্য সমর্থন করে জানান, এবারে যে সিডি সরবরাহ করা হবে, ইসি থেকে সেগুলোতে তারিখ উল্লেখ থাকবে।

এ কমিশনার আরও বলেন, ‘অনেকে ঠিকানা স্থানান্তর আবেদন জানাচ্ছেন। এদের বেশিরভাগই পৌরসভায় ভোট দিয়ে এখন আবার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ঠিকানা স্থানান্তর করতে চাচ্ছেন। কিংবা প্রার্থী হতে চাচ্ছেন। পৌরসভা নির্বাচনে অংশ নিয়ে এখন আবার তারা ইউপিতে যেতে চাচ্ছেন।’

তিনি আরো বলেন, ‘এমনও হয়েছে একই লোক বছরে তিনবার ইসিতে ঠিকানা স্থানান্তর করেছে। গত সেপ্টেম্বরে স্থানান্তরের সুযোগ দেওয়া হয়েছিলো। ইউপি নির্বাচন সামনে রেখে এ সুযোগ দেওয়া হবে না।’

প্রবাসীদের সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘তারা ভোটার হতে চাইলে তফসিল ঘোষণার আগ পর্যন্ত এ সুযোগ পাবে।’

বাংলাদেশ সময়: ১৫২৮ ঘন্টা, ০৩ জানুয়ারি ২০১১।

ksrm
শেবাচিম হাসপাতালে আরেক ডেঙ্গুরোগীর মৃত্যু
ভিসি ও সমাবর্তনে আটকা চাকসু-জকসু, শাকসু’র খবর নেই
রামগতিতে ৩০ লাখ টাকার কারেন্টজালে অগ্নিসংযোগ
নতুন বছরেই কৃষিপণ্য পরিবহনে বিশেষ ৪ ট্রেন 
পর্যটকদের হাতছানি দিচ্ছে ‘অন্তেহরি জলের গ্রাম’


হারিয়ে যাচ্ছে শরতের কাশফুল
ফ্রিতে ফিওরেন্তিনায় ফ্রাঙ্ক রিবেরি
টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২ রোহিঙ্গা মাদককারবারি নিহত
ভর্তি জালিয়াতি: তৎপর পুলিশ-ঢাবি, থাকবে রাডার স্ক্যানিং
সোনালি আঁশেও কৃষকের ‘মুখভার’