php glass

পুলিশ-গোয়েন্দাদের ধারণা

আপনজনের হাতেই খুন সাংবাদিক ফরহাদ দম্পতি

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

খুব কাছের কেউ সাংবাদিক ফরহাদ খাঁ দম্পতিকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে বলে প্রাথমিক তদন্ত শেষে মনে করছেন পুলিশ ও গোয়েন্দারা। তাদের ধারণা, আততায়ী হত্যাকাণ্ড ঘটায় রাতে।

ঢাকা: খুব কাছের কেউ সাংবাদিক ফরহাদ খাঁ দম্পতিকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে বলে প্রাথমিক তদন্ত শেষে মনে করছেন পুলিশ ও গোয়েন্দারা। তাদের ধারণা, আততায়ী হত্যাকাণ্ড ঘটায় রাতে। তারপর সকালের আগেই কোনো এক সময় নির্বিঘ্নে পালিয়ে যায়।

এজন্য ইতিমধ্যেই পুলিশ ও সিআইডি সদস্যরা ঘরের বিভিন্ন স্থান থেকে পা ও দুই লাশ থেকে খুনীর হাতের ছাপ সংগ্রহ করেছে বলে বাংলানিউজকে জানিয়েছেন একাধিক গোয়েন্দা কর্মকর্তা।

এছাড়া নয়াপল্টন মসজিদ গলিতে ফরহাদ খাঁর ফ্যাটে কাদের যাতায়াত ছিলো তার একটি তালিকা তৈরি করে তাদের উপর বিশেষ নজর রাখা হচ্ছে বলেও জানান তারা।

মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) মো. মনিরুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন, ‘পরিচিত এবং খুব কাছের কেউ অত্যন্ত পরিকল্পিতভাবে এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে বলে প্রাথমিক তদন্তে মনে হচ্ছে।’

এ মতের সমর্থন মেলে পল্টন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শহিদুল  হকের বক্তব্যেও। বাংলানিউজকে তিনি বলেন, ‘খুনের আলামত দেখে এটি মোটামুটি নিশ্চিত যে আপনজনদের কেউ এ হত্যাকাণ্ডে  জড়িত।’

এদিকে পুলিশ ও গোয়েন্দারা হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটনে ফরহাদ খাঁর সম্পত্তির ওপর নিকট আত্মীয়দের লোভ ও তার ভাড়া বাড়ির নিচ তলার একটি জলসা ঘরের ওইরাতের ঘটনাপ্রবাহে বিশেষ নজর রাখছেন।

তারা জানতে পেরেছেন, ফরহাদ খাঁ দম্পতির একমাত্র মেয়ে স্বামীর সঙ্গে ইতালি প্রবাসী। কয়েক মাসের মধ্যে তাদেরও মেয়ের কাছে স্থায়ীভাবে চলে যাওয়ার কথা ছিলো। আর গাজীপুরের কোনাবাড়ীতে একটি বাড়িসহ আরো বিষয় সম্পত্তি আছে ফরহাদ খাঁর নামে।

গোয়েন্দারা আরো জেনেছেন,  ফরহাদ খাঁ ৭৭ নম্বরের যে ফ্যাটে ভাড়া থাকতেন ঠিক তার নিচের ফ্যাটটিতেই (নিচতলায়) থাকতেন বাড়ির মালিকের ভাই মোক্তার হোসেন। তার বাসায় প্রতি বৃহস্পতিবার একটি জলসা বসত। জলসায় লোকজনের আসা-যাওয়া চলতো গভীর রাত পর্যন্ত। আর ফরহাদ খানও খুন হন বৃহস্পতিবার রাতে। ওই রাতে সাপ্তাহিক জলসা থাকায় ওই বাড়িতে লোকজনের আনাগোনাও বেশি ছিলো।

ঘটনাস্থলের আশপাশের কয়েক দোকানদার বাংলানিউজকে জানান, ফরহাদ খান ছিলেন জলসার বিরোধী। এ নিয়ে কয়েকবার ফরহাদ খাঁর সঙ্গে মোক্তারের বাকবিতণ্ডা পর্যন্ত হয়েছে।
 
মামলা

শুক্রবার রাত ১১টায় ফরহাদ দম্পতির মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠায় পুলিশ। এরপর রাতেই ফরহাদ খাঁ ছোট ভাই সামাদ খাঁ বাদী হয়ে পল্টন থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। তবে মামলায় সুনির্দিষ্ট কাউকে আসামি করা হয়নি।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পল্টন থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) জিল্লুর রহমান বাংলানিউজকে জানান, মামলা দায়েরের পর পুলিশ এরই মধ্যেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলা শুরু করেছে।

নামাজে জানাজা

ফরহাদ খাঁ দম্পতির নামাজে জানাজা শনিবার দুপুর ১২টায় জাতীয় প্রেসকাবের সামনে অনুষ্ঠিত হয়। জানাজায় শরিক হন তার দীর্ঘদিনের সহকর্মী, সাংবাদিক, শুভান্যুধায়ীরা। জানাজার পর তাদের লাশ টাঙ্গাইলের কালিহাতি উপজেলার গান্ধিরা গ্রামে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

সেখানে পারিবারিক কবরস্থানে তাদের দাফন হওয়ার কথা।

বাংলাদেশ সময়: ১৭০০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৯, ২০১১

ksrm
৭ দিনের সফরে দেশের বাইরে থাকবেন ইসি সচিবও
আরবান কো-অপারেটিভ ব্যাংক চেয়ারম্যানসহ ৭ জনের নামে মামলা
‘শুল্কমুক্ত গাড়ি মুহিতের সুনামের সঙ্গে মানানসই হবে না’
পাবনায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে মামলা, অভিযুক্ত পলাতক
সেলিমের নতুন সিনেমা ‘পাপ-পুণ্য’, আছেন চঞ্চল ও সিয়াম


রোহিঙ্গাদের নিরাপদে ফেরাতে কাজ করছে যুক্তরাষ্ট্র
কমছে টাইগারদের কেন্দ্রীয় চুক্তির মেয়াদ!
ভিক্ষা পাওয়ার জন্য দেশ স্বাধীন হয়নি: তাজুল ইসলাম
পুকুরে মিললো শিশুর মরদেহ, অভিযোগ পরিকল্পিত খুনের
ব্রাডম্যান হল অব ফেমের সম্মাননা পাচ্ছেন ওয়াকার