প্রধান বিচারতির এজলাসের সামনে আইনজীবীদের বিক্ষোভ

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

প্রধান বিচারপতির এজলাসের সামনে অবস্থান কর্মসূচী পালন এবং বিক্ষোভ করেছেন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা।

ঢাকা: প্রধান বিচারপতির এজলাসের সামনে অবস্থান কর্মসূচী পালন এবং বিক্ষোভ করেছেন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা।

বুধবার  ঘোষিত কর্মসূচী অনুযায়ী সকাল ১০টা পর্যন্ত এই অবস্থান কর্মসূচী চলে।

ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া, আইনজীবী সমিতির সভাপতি খন্দকার মাহবুব হোসেন, সম্পাদক ব্যারিস্টার মো. মদরুদ্দোজাসহ সমিতির বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা এই কর্মসূচূকে অংশগ্রহণ করেন।  

অবস্থান কর্মসূচীতে প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে বিভিন্ন স্লোগান দেন আইনজীবীরা।

বিক্ষোব কর্মসূচী শেষে আইনজীবী সমিতির সভাপতি খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, আমরা জেনেছি প্রধান বিচারপতি আন্দোলনরত আইনজীবীদের সম্পর্কে কটাক্ষ করে বক্তব্য দিয়েছেন। আমরা এ ধরনের আচরণের নিন্দা জানাই।

তিনি আরও বলেন, ‘প্রধান বিচারপতি তাঁর বক্তব্যের মাধ্যমে তাঁর আসনকেই অপমানিত করেছেন। অতীতে প্রধান বিচারপতির এজলাস ভাংচুরের ঘটনা ঘটলেও আমরা তার পুনরাবৃত্তি চাইনা।
 
অপরদিকে বিক্ষোভ ও অবস্থান কর্মসূচী চলাকালে ব্যারিস্টার আমির উল ইসলাম, আব্দুল বাসেত মজুমদার, সাবেক অ্যাটর্নী জেনারেল মাহমুদুল ইসলাম, আইনজীবী সমিতির সাবেক সম্পাদক শ ম রেজাউল করিমসহ সংগঠনের আওয়ামীপন্থী আইনজীবীরা এসময় এজলাসের ভেতরে অবস্থান নেন। তা আপিল বিভাগের বিচারিক কার্যক্রমে অংশ নেন।

সকাল ৯টা ২০ মিনিটে সুপ্রিম কোর্ট আপিল বিভাগের কার্যক্রম শুরু হয়। এর এক পর্যায়ে আপিল বিভাগ বলেন, প্রধান বিচারপতির এজলাসের সামনে এভাবে বিক্ষোভ করা নজিরবিহীন। আদালত চাইলে এখন তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে পারে।

আদালত মাহমুদুল ইসলামকে উদ্দেশ্য করে বলেন, এখানে যে ঘটনা ঘটছে তাতে মনে হচ্ছে এটা একটা ট্রেড ইউনিয়নের মতো।

আদালত তাকে প্রশ্ন করেন, আমরা কি এর বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নিতে পারি না?’

জবাবে মাহমুদুল ইসলাম কবলেন, অবশ্যই পারেন, কিন্তু তাদের বক্তব্যও আমাদের শোনা দরকার।’

আপিল বিভাগ বলেন, আপনারা বার-এ গিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করতে পারেন। কিন্তু আদালতের সামনে বিশৃংখলা সৃষ্টি করতে পারেন না। ভবিষ্যতে এ ধরনের কিছু হলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সিনিয়ররা এটা বন্ধের উদ্যোগ নিতে পারেন বলে আদালত মন্তব্য করেন।

এসময় ব্যারিস্টার আমির উল ইসলাম বলেন, আন্দোলন করে সমস্যার সমাধান করা যায় না। কিন্তু দীর্ঘদিন সমস্যা জিইয়ে রাখাও ঠিক না।

বাংলাদেশ সময়: ১১২৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৭, ২০১১

রাজউক আর দুর্নীতি এখন সমার্থক: ইফতেখারুজ্জামান
ভোটগ্রহণের পরিবেশ নিশ্চিত করুন: ইসিকে তাবিথ
সেই নারীর খোঁজে হাসপাতালে স্বামী
প্রচারণার জোয়ার ভোটের বাক্সেও দেখতে চান মেনন
আমার কোনো গ্রুপ নেই, চবি ছাত্রলীগ নিয়ে নওফেল


দারুণ দুর্দশায় মাইলি সাইরাস
মোদী ঢাকায় আসছেন ১৭ মার্চ
ঢাকার ভোট পর্যবেক্ষণে থাকছেন ৬৭ বিদেশি পর্যবেক্ষক
করোনাভাইরাস আতঙ্ক প্রভাব ফেলেছে চীনের ক্রীড়াঙ্গনেও
জেরুজালেম বিক্রির জন্য নয়: আব্বাস