প্রধানমন্ত্রীর প্রশ্নোত্তর পর্ব উপভোগ

ব্রিটিশ পার্লামেন্টে মন্ত্রী ও বিরোধীদলীয় নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করলেন শেখ হাসিনা

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

ব্রিটেন সফররত বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ব্র্রিটিশ পার্লামেন্টে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। বাংলাদেশ সময় রাত ৮ টা ১৫ মিনিট পর্যন্ত  বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর জন্যে পার্লামেন্ট ভবনে বরাদ্ধকৃত অফিসে কাটান তিনি।

লন্ডন: ব্রিটেন সফররত বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ব্র্রিটিশ পার্লামেন্টে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। বাংলাদেশ সময় রাত ৮ টা ১৫ মিনিট পর্যন্ত  বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর জন্যে পার্লামেন্ট ভবনে বরাদ্ধকৃত অফিসে কাটান তিনি।

হাউজ অব কমন্সের ঐতিহাসিক ‘চেস রুমে’ এসে শেখ হাসিনার সঙ্গে পৃথক পৃথক বৈঠক করেন ব্রিটেনের উপপ্রধানমন্ত্রী নিক কেগ, পররাষ্ট্রমন্ত্রী উইলিয়াম হেইগ, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী তেরেসা মে, জ্বালানি মন্ত্রী ক্রিস হান, ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট মন্ত্রী এল্যান ডানকান, বিরোধী দলীয় নেতা এড. মিলিব্যান্ড ও  সাবেক প্রধানমন্ত্রী গর্ডন ব্রাউন।

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর সাথে ব্রিটিশ মন্ত্রীসভার সদস্য ও শীর্ষ পর্যায়ের রাজনীতিকদের এই পৃথক পৃথক বৈঠকে বাংলাদেশ-ব্রিটেন পারষ্পরিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়।

উষ্ণ ও বন্ধুত্বপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার সরকারের অবকাঠামো উন্নয়নের পদক্ষেপসমূহ তুলে ধরেন। এ সময় তিনি বিদ্যুৎ সঙ্কট দূরীকরণ, খাদ্য নিরাপত্তা বৃদ্ধি, সন্ত্রাসী হুমকি মোকাবেলা, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার যাতে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হয় সে বিষয়টি নিশ্চিত করাসহ এসব গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেত্রে ব্রিটিশ সাহায্য-সহযোগিতার কথা উল্লেখ করেন। অপরদিকে, এ সময় ব্রিটিশ কর্মকর্তারা এসব বিষয়ে সহায়তা বৃদ্ধি ও অব্যাহত রাখার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন। একইসঙ্গে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী তার দেশে  বিনিয়োগের সুযোগের কথা গুরুত্বসহকারে উল্লেখ করে ব্রিটিশ সরকারকে বিনিয়োগের আহ্বান জানান।

শেখ হাসিনার সঙ্গে  ব্রিটিশ মন্ত্রী ও বিরোধী দলীয় নেতাদের এইসব বৈঠকের সময় বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্র্রী ডাঃ  দীপু মনিও উপস্থিত ছিলেন।

ব্রিটিশ রাজনীতিকদের সঙ্গে সিরিজ  বৈঠকের ফাঁকে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হাউস অব কমন্সে যান। সেখানে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরুনের প্রশ্নোত্তর পর্বও উপভোগ করেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি এ সময়ও তার সঙ্গে ছিলেন।

ব্রিটিশ মন্ত্রী ও বিরোধী দলীয় নেতাদের সঙ্গে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর কি আলোচনা হয়েছে এ সম্পর্কে দিন শেষে সাংবাদিকদের কাছে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব আবুল কালাম আজাদ ব্রিফিং করবেন বলে জানানো হয়েছে।

সন্ধ্যায় বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর সম্মানে আয়োজিত এক ডিনার পার্টিতে হাউস অব কমন্সের স্পিকার জন বার্কোর শেখ হাসিনাকে ব্রিটিশ পার্লামেন্টের সম্মানসূচক ক্রেস্ট তুলে দেওয়ার কথা রয়েছে।

বাংলাদেশ সময় ২১২৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৬, ২০১১

চাঁপাইনবাবগঞ্জে ট্রেনে কাটা পড়ে অজ্ঞাত যুবক নিহত
বেলজিয়ামে সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি কিশোর নিহত
মাদক মামলায় এক ব্যক্তির ১০ বছর কারাদণ্ড
সমালোচনা না করে দেশের সমস্যা সমাধানের আহ্বান তাজুলের
জনগণের জন্য কাজ করতে পারলে নিজেকে ভাগ্যবান মনে করি


চীনে ভ্রমণ স্থগিতের কথা ভাবছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়
ধানের শীষে ভোট চাইলেন তাবিথের মা
ইশরাকের গণসংযোগে হামলায় ফখরুলের প্রতিবাদ
ভাঙা হৃদয় জোড়া লাগালেন ব্র্যাড পিট ও জেনিফার অ্যানিস্টন
অটোমেশনে দুর্নীতি কমবে: অর্থমন্ত্রী