ঢাকা, শনিবার, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৫ আগস্ট ২০২০, ২৪ জিলহজ ১৪৪১

জাতীয়

বান্দরবানে টাকার বিনিময়ে সনদ সত্যায়িত করছেন ডা. লোকেশ

এস বাসু দাশ, জেলা প্রতিনিধি | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৪৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩০, ২০১০

বান্দরবান: অর্থ ছাড়া কোনও ছবি বা সনদ সত্যায়িত করেন না বান্দরবান সদর হাসপাতালের এক ডেন্টাল সার্জন। এই দন্তবিদের নাম ডা. লোকেশ দাশ।



তিনি অর্থের বিনিময়ে দীর্ঘদিন ধরে ছবি-সনদ সত্যায়িত করাচ্ছেন- স্থানীয় ছাত্র-ছাত্রীদের কাছ থেকে এমন অভিযোগ পাওয়ার পর অনুসন্ধানে এর সত্যতা পাওয়া গেছে।
 
বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বাংলানিউজ প্রতিনিধি এক সহকর্মীসহ কাগজপত্র সত্যায়িত করাতে যান ডা. লোকেশ দাশের অফিসে। এসময় একই কাজে শহরের মধ্যমপাড়ার আদিবাসী সুইসাউ মার্মাসহ দুই ব্যক্তি সার্টিফিকেট সত্যায়িত করাতে আসেন।

এদিকে কিছুণ পর অপেমান রোগীরা চলে গেলে ডা. লোকেশ ব্যস্ততা দেখিয়ে বেরিয়ে যান। তবে তিনি বের হয়ে পাশের একটি কে ঢুকে ৩০ টাকার বিনিময়ে সনদ সত্যায়িত করে দেন সেখানে অপেমান এক ব্যক্তিকে।

এ ঘটনা চাুষ করে সনদ সত্যায়িত করে দেওয়ার অনুরোধ করলে ডা. লোকেশ এ প্রতিবেদককে বলেন, ‘আমি আপনাদের কাগজপত্র সত্যায়িত করত পারব না। ’

এ কথা বলে দ্রুত স্থান ত্যাগ করেন তিনি।
 
এসময় সুইসাউ মার্মা বলেন, ‘টাকা দিলে ঠিকই করে দেয়। আপনারা টাকা দেন না আর আপনাদের সাংবাদিকদের কাছ থেকে টাকা নিতেও পারবে না। ’

তিনি হতাশ কণ্ঠে আরও বলেন, ‘আপনার উপস্থিতির কারণে আমার কাজটি (সত্যায়িত) করাতে পারলাম না। ’

এ ব্যাপারে কথা বললে স্থানীয় ছাত্র-ছাত্রীদের বেশ কয়েকজন বাংলানিউজকে জানান, সরকার প্রথম শ্রেণীর গেজেটেড অফিসারদের সত্যয়িত করার মতা দিয়েছে কিন্তু এ কাজে অর্থ নেবার বিষয়টি সম্পূর্ণ অবৈধ। অথচ ডা. লোকেশকে ২০ থেকে ৫০ টাকা দিয়ে কাগজপত্র সত্যায়িত করাতে হয়।

বান্দরবান সরকারি কলেজের প্রভাষক আবু তাহের বাংলানিউজকে বলেন, ‘ছাত্রছাত্রীরা আমাকে বলেছে তিনি টাকা নিয়ে কাগজপত্র না দেখেই সত্যায়িত করান। কিন্তু এ কাজে টাকা নেবার কোনও বিধান নেই। ’

এ ব্যাপারে বান্দরবানের সিভিল সার্জন সাখাওয়াত হোসেনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বাংলানিউজকে বলেন, ‘আমি বিষয়টি দেখব। ঘটনা সত্যি হলে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ’  

বাংলাদেশ সময়: ২১৩১ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩০, ২০১০

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa