php glass

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের ২০ সেরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ১৬টিই ঢাকা মহানগরীর

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

নিম্ন মাধ্যমিক স্তরে অষ্টম শ্রেণীর ‘জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট’ (জেএসসি) পরীায় ঢাকা শিক্ষাবোর্ডের সবচেয়ে ভালো করা ২০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ১৬টিই ঢাকা মহানগরীর। এর বাইরের ৪টি প্রতিষ্ঠান হলো- ময়মনসিংহের ৩টি ও গাজীপুরের ১টি।   

ঢাকা: নিম্ন মাধ্যমিক স্তরে অষ্টম শ্রেণীর ‘জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট’ (জেএসসি) পরীায় ঢাকা শিক্ষাবোর্ডের সবচেয়ে ভালো করা ২০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ১৬টিই ঢাকা মহানগরীর। এর বাইরের ৪টি প্রতিষ্ঠান হলো- ময়মনসিংহের ৩টি ও গাজীপুরের ১টি।    

দেশে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত জেএসসি পরীক্ষায় নতুন পদ্ধতিতে নির্ধারিত পয়েন্টের ভিত্তিতে সেরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বাছাই করা হয়েছে বলে জানান শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। তিনি বলেন, ‘পরীক্ষায় অংশ নেওয়া পরীার্থীর সংখ্যা, কৃতকার্য এবং জিপিএ-৫ এর ভিত্তিতে বোর্ডগুলোর শীর্ষ শিা প্রতিষ্ঠান বাছাই করা হয়েছে।’

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে আনুষ্ঠানিকভাবে জেএসসির ফল ঘোষণার সময় শিক্ষামন্ত্রী এ কথা বলেন। এ সময় সেরা ২০ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অর্জিত পয়েন্ট এবং ফলের পরিসংখ্যান জানানো হয়।  

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের সেরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল ১০০ পয়েন্টের মধ্যে ৭৭ দশমিক ৩০ পয়েন্ট পেয়েছে। এ প্রতিষ্ঠানের ১ হাজার ১২ পরীক্ষার্থীর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ১ হাজার ১১ জন, জিপিএ ৫ পেয়েছে ২৪৮ জন।

ভিকারুন নিসা নূন স্কুল ৭৭ দশমিক ২৫ পয়েন্ট পেয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। এ প্রতিষ্ঠানের ১ হাজার ৩২৬ পরীক্ষার্থীর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ১ হাজার ৩২৫ জন, জিপিএ ৫ পেয়েছে ৩২২ জন।

মিরপুরের মনিপুর উচ্চ বিদ্যালয় ৭৪ দশমিক ৩১ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থান অধিকার করে। এ প্রতিষ্ঠানের ১ হাজার ১৮৯ পরীক্ষার্থীর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ১ হাজার ১৮৭ জন, জিপিএ ৫ পেয়েছে ১৭৪ জন।

ঢাকা শিক্ষাবোর্ডের চতুর্থ সর্বোচ্চ পয়েন্টধারী মতিঝিল মডেল হাই স্কুলের পয়েন্ট ৭০ দশমিক ৪৯। এ প্রতিষ্ঠানের ১ হাজার ৩৭৮ পরীক্ষার্থীর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ১ হাজার ৩৬৫ জন, জিপিএ ৫ পেয়েছে ৪৪ জন। পঞ্চম স্থানে দনিয়ার একে হাই স্কুলের পয়েন্ট ৭০ দশমিক ৪৭। এ প্রতিষ্ঠানের ১ হাজার ১৯৭ পরীক্ষার্থীর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ১ হাজার ১৮০ জন, জিপিএ ৫ পেয়েছে ৪৭ জন। ময়মনসিংহ গার্লস ক্যাডেট কলেজ ৬৯ দশমিক ৫৯ পয়েন্ট নিয়ে বোর্ডে ষষ্ঠ স্থান লাভ করে। এ প্রতিষ্ঠানের ৪৯ পরীক্ষার্থীর মধ্যে সবাই উত্তীর্ণ হয়েছে, জিপিএ ৫ পেয়েছে ৩২ জন।  

সপ্তম স্থানে থাকা রাজউক উত্তরা মডেল কলেজের পয়েন্ট ৬৯ দশমিক ৩৪। এ প্রতিষ্ঠানের ২৯৫ পরীক্ষার্থীর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ২৯৫ জন, জিপিএ ৫ পেয়েছে ১৪১ জন। ৬৫ দশমিক ৭২ পয়েন্ট নিয়ে উত্তরা হাই স্কুল অষ্টম। এ প্রতিষ্ঠানের ৬৬৪ পরীক্ষার্থীর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ৬৬৩ জন, জিপিএ ৫ পেয়েছে ৬২ জন।  নবম স্থানে থাকা শামসুল হক খান উচ্চ বিদ্যালয়ের পয়েন্ট ৬৪ দশমিক ৬০। এ প্রতিষ্ঠানের ৬৮৩ পরীক্ষার্থীর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ৬৮২ জন, জিপিএ ৫ পেয়েছে ৩৮ জন। দশম স্থান অধিকার করা মিরপুর বাংলা উচ্চ বিদ্যালয়ের পয়েন্ট ৬৪ দশমিক ৪৭। এ প্রতিষ্ঠানের ৮৩৯ পরীক্ষার্থীর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ৮০৮ জন, জিপিএ ৫ পেয়েছে ৯ জন।   

একাদশ স্থানে থাকা ময়মনসিংহের বিদ্যাময়ী গার্লস হাই স্কুলের পয়েন্ট ৬৪ দশমিক ০৬ পয়েন্ট। এ প্রতিষ্ঠানের ৩০৯ পরীক্ষার্থীর মধ্যে সবাই উত্তীর্ণ হয়েছে, জিপিএ ৫ পেয়েছে ৮৩ জন। দ্বাদশ স্থান অধিকার করা হলিক্রস গার্লস হাই স্কুলের পয়েন্ট ৬৩ দশমিক ৮৫ পয়েন্ট। এ প্রতিষ্ঠানের ১৯৯ পরীক্ষার্থীর সবাই উত্তীর্ণ হয়েছে, জিপিএ ৫ পেয়েছে ৭২ জন। ৬৩ দশমিক ৪৬ পয়েন্ট নিয়ে মাইলস্টোন কলেজ ত্রয়োদশ। এ প্রতিষ্ঠানের ৬৭৬ পরীক্ষার্থীর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ৬৭৫ জন, জিপিএ ৫ পেয়েছে ১২ জন। ৬৩ দশমিক ১৬ পয়েন্ট নিয়ে ঢাকা রেসিডেন্সিয়াল মডেল কলেজ চতুর্দশ। এ প্রতিষ্ঠানের ৩৮৫ পরীক্ষার্থীর সবাই উত্তীর্ণ হয়েছে, জিপিএ ৫ পেয়েছে ৭৯ জন।  ৬৩ দশমিক ০৬ পয়েন্ট নিয়ে সেন্ট যোশেফ হাই স্কুল পঞ্চদশ স্থান লাভ করে। এ প্রতিষ্ঠানের ১৬৬ পরীক্ষার্থীর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ১৬৪ জন, জিপিএ ৫ পেয়েছে ৫৯ জন।

মতিঝিলের আরেকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান মতিঝিল সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয় ৬২ দশমিক ৮২ পয়েন্ট পেয়ে ষোড়শ স্থান অধিকার করেছে। এ প্রতিষ্ঠানের ৩২১ পরীক্ষার্থীর সবাই উত্তীর্ণ হয়েছে, জিপিএ ৫ পেয়েছে ৭৩ জন।  ময়মনসিংহের পুরনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ময়মনসিংহ জিলা স্কুল ৬২ দশমিক ৮১ পয়েন্ট সপ্তদশ স্থানে এসেছে। এ প্রতিষ্ঠানের ২৭০ পরীক্ষার্থীর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ২৬৯ জন, জিপিএ ৫ পেয়েছে ৭২ জন।

ঢাকার সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে অন্যতম শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান বলে বিবেচিত গভর্নমেন্ট ল্যাবরেটরি স্কুল এসেছে অষ্টদশ স্থানে, তাদের পয়েন্ট ৬২ দশমিক ৭৮। এ প্রতিষ্ঠানের ২৫৩ পরীক্ষার্থীর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ২৫১ জন, জিপিএ ৫ পেয়েছে ৬৯ জন।  

রাজধানীর বাড্ডা আলাতুন্নেছা উচ্চ বিদ্যালয় ৬২ দশমিক ৫৪ পয়েন্ট নিয়ে উনবিংশতম স্থানে রয়েছে। এ প্রতিষ্ঠানের ৭১৯ পরীক্ষার্থীর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ৬৯২ জন, জিপিএ ৫ পেয়েছে ১০ জন।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের কুড়িতম স্থান অধিকার করা গাজীপুরের শফিউদ্দিন সরকার একাডেমির পয়েন্ট ৬১ দশমিক ২১। এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৫৪৮ পরীক্ষার্থীর মধ্যে উত্তীর্ণ হন ৫৪৫ জন, জিপিএ ৫ পেয়েছে ২৭ জন।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩০, ২০১০

ফকিরাপুলে ২ জনের মরদেহ উদ্ধার
একই কারখানায় ২ বছরে তিন বার আগুন
সু চির অস্বীকার: রোহিঙ্গারা বললেন ‘মিথ্যুক’
সোলায়মানের পদত্যাগ নিয়ে জামায়াতে তোলপাড়
রাজশাহীর মধ্য শহর থেকে বাস টার্মিনাল সরবে আগামী বছর


স্মার্ট রেফ্রিজারেটরের বিজ্ঞাপনে মাশরাফি
নেপিদোতে বাংলাদেশ-মিয়ানমার সেনাপ্রধানদের বৈঠক
এবার রাজ্যসভায়ও পাস হলো ‘বিতর্কিত’ নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল
আগুনের সূত্রপাত ‘গ্যাস রুমে’, নেভাতে গিয়েই দগ্ধ শ্রমিকরা
বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম উদ্বোধন করলেন মেয়র আতিকুল