php glass

রাজধানীর মিরপুর এবং খিলগাঁওয়ে দুই লাশ উদ্ধার

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

রাজধানীর শাহ আলী থানা এবং খিলগাঁও থানা এলাকা হতে পুলিশ বস্তাবন্দি এক কিশোরসহ দুইজনের লাশ উদ্ধার করেছে। শাহআলী থানা সূত্রে জানা যায়, মিরপুর বেড়িবাঁধ সংলগ্ন ডোবা থেকে বুধবার দিবাগত রাতে সাইফুল ইসলাম (২৬) নামে এক যুবকের ত-বিত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

ঢাকা: রাজধানীর শাহ আলী থানা এবং খিলগাঁও থানা এলাকা হতে পুলিশ বস্তাবন্দি এক কিশোরসহ দুইজনের লাশ উদ্ধার করেছে।

শাহআলী থানা সূত্রে জানা যায়, মিরপুর বেড়িবাঁধ সংলগ্ন ডোবা থেকে বুধবার দিবাগত রাতে সাইফুল ইসলাম (২৬) নামে এক যুবকের ত-বিত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, সাইফুল ইসলাম ‘স্বপ্নচূড়া’ নামে ওই এলাকার একটি হোটেলের কর্মচারী এবং স্থানীয় নিরাপত্তাকর্মী। তিনি শাহ আলী থানার ৪৪ নবাবেরবাগ এলাকায় থাকতেন। তাঁর বাবার নাম মৃত মো. হোসেন।

শাহ আলীর থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) আবদুল লতিফ বাংলানিউজকে জানান, স্থানীয়দের কাছে খবর পেয়ে বুধবার দিবাগত রাত সাড়ে বারোটার বেড়ীবাধ সংলগ্ন ডোবা থেকে সাইফুলের ভাসমান লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায় পুলিশ। এ সময় নিহতের শরীরের মাথায় ও গলায় আঘাতের চিহ্ন দেখা যায়।

এদিকে নিহতের ভাই ফারুক হোসেন সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেন, গত মঙ্গলবার স্বপ্নচূড়া হোটেলের ম্যানেজারের সঙ্গে তার ভাই সাইফুলের বাকবিতণ্ডা হয়। এ সময় হোটেলের কয়েকজন কর্মচারীও ম্যানেজারের সঙ্গে এক হয়ে ঝগড়া করে। এরই জের ধরে সাইফুলকে হত্যা করা হয়েছে।

ওসি আবদুল লতিফ বাংলানিউজকে বলেন, হত্যার পর সাইফুল ইসলামকে লাশ ডোবায় ফেলে দেওয়া হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। এ বিষয়ে পুলিশের জোর তদন্ত চলছে বলে।

এদিকে রাজধানীর খিলগাও এলাকায় একটি ড্রেন হতে বস্তাবন্দি গলিত এক কিশোরের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। অপহরণের পর ওই কিশোরকে হত্যা করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

নিহত কিশোরের নাম ফয়সাল মোল্লা চঞ্চল (১৫)। পিতার নাম মিলন মোল্লা। চঞ্চলের বাড়ি গোপালগঞ্জ জেলার মুকসুদপুর থানার ভাটিকামারি ধোপাপিঠা গ্রামে। বর্তমানে ৩৩৩/৩/বি, নতুনবাগ, রামপুরা নিজাম উদ্দিনের বাড়িতে পরিবারের সঙ্গে সে বাস করতো।

পরিবার সূত্রে জানা গেছে, দরিদ্র পরিবারের সন্তান চঞ্চল পরিবারের সহযোগিতার জন্য কিশোর বয়সেই ব্যাটারি চালিত অটোরিক্সা চালাতো।

খিলগাঁও থানা সূত্রে জানা যায়, গত শুক্রবার চঞ্চলের নিখোজ হওয়া সংক্রান্ত একটি সাধারণ ডায়েরি করেছিল তার পরিবার। এরপর থেকেই পুলিশ তাকে খুঁজতে থাকে।

বৃহস্পতিবার ভোরে স্থানীয় লোকজনের কাছে খবর পেয়ে পুলিশ পল্লীমা সংসদ সংলগ্ন একটি ড্রেন হতে বস্তাবন্দি অবস্থায় চঞ্চলের গলিত লাশ উদ্ধার করে। ময়না তদন্তের জন্য লাশ ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়েছে।

খিলগাও থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) নাজিমউদ্দিন বাংলানিউজকে জানান, লাশ উদ্ধারের সময় মৃতদেহের গলায় শক্ত স্কচটেপ পেচানো দেখা গেছে, যা থেকে প্রাথমিকভাবে চঞ্চলকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

হত্যাকাণ্ডের কারণ সম্পর্কে জানতে চাইলে ওসি জানান, পূর্ব শক্রতার জের ধরে চঞ্চলকে হত্যার উদ্দেশ্যে অপহরণ করা হয় বলে পুলিশের ধারণা। তবে কি কারণে তাকে অপহরণ করা হতে পারে তা জানা যায়নি। অপহরণ চক্র হত্যার পরে তার লাশ পল্লীমা সংসদের পাশের ড্রেনে ফেলে যায়।  

ওসি নাজিমউদ্দিন আরো জানান, হত্যাকারিদের খুজে বের করতে পুলিশ এরইমধ্যে মাঠে নেমেছে। চঞ্চলের ব্যবহৃত মোবইল ফোনসেটটিও তার সঙ্গে পাওয়া যায়নি। তবে পুলিশ ওই ফোনের কললিস্ট সংগ্রহের চেষ্টা করছে বলে জানা তিনি।

এ ঘটনায় খিলগাঁও থানায় নিহতের পিতা বাদী হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

বাংলাদেশ সময় ১৪৩০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩০, ২০১০

উদাসীনতায় ও আইনের প্রয়োগ না হওয়ায় নির্মাণ ঝুঁকি কমছে না
নানা আয়োজনে ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস- ২০১৯ উদযাপন
পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দিল্লি সফর বাতিল
ব্যবসায়ীর চেক ছিনতাই!
বালিশকাণ্ডে নির্বাহী প্রকৌশলীসহ ১৩ জন কারাগারে


প্রিমিয়ারে সিসকো অ্যাকাডেমি সাপোর্ট সেন্টারের উদ্বোধন
কুড়িগ্রাম জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাফর-মঞ্জু সম্পাদক
বশেমুরবিপ্রবিতে কর্মচারীদের অবস্থান কর্মসূচি
শেয়ারহোল্ডার পরিচালক নির্বাচনে ৩ প্রার্থীর মনোনয়ন জমা
এখনই চিন্তা করার কোন কারণ নেই: মাশরাফি