php glass

ঢাকায় শিল্প-কারখানা স্থাপন না করার প্রস্তাব ফিরিয়ে দিলেন মন্ত্রী

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

রাজধানী ঢাকার জীবনযাত্রা স্বাভাবিক রাখতে নতুন আর কোনো শিল্প কারখানা স্থাপনের অনুমতি না দিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই।

ঢাকা : রাজধানী ঢাকার জীবনযাত্রা স্বাভাবিক রাখতে নতুন আর কোনো শিল্প কারখানা স্থাপনের অনুমতি না দিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই।

সেই সঙ্গে বিদ্যমান কারখানাগুলো ক্রমান্বয়ে সরিয়ে নেওয়ারও দাবি তাদের।

তবে অর্থমন্ত্রী দেশে শিল্পায়ন ও কর্মসংস্থানের স্বার্থে ‘এখনই এ ধরনের বিধি-নিষেধ আরোপ করা ঠিক হবে না’ --এই যুক্তিতে এফবিসিসিআইয়ের প্রস্তাব নাকচ করে দেন।

এফবিসিসিআই সভাপতি এ কে আজাদের নেতৃত্বে সংগঠনের নব-নির্বাচিত নেতারা বৃহস্পতিবার দুপুরে সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন।

এ কে আজাদ বলেন, ‘বর্তমানে ঢাকার এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় দুই ঘণ্টার আগে যাওয়া যায় না। যানজটে ঘণ্টার পর ঘণ্টা আটকে থাকতে হয়। তাই এ অবস্থা থেকে মুক্তি পেতে হলে ঢাকায় আর কোনো কারখানা স্থাপনের অনুমতি দেওয়া ঠিক হবে না।’

পাশাপাশি প্রতিনিধি দলটি ঢাকাকে বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল হিসাবে প্রতিষ্ঠারও দাবি জানায়।

জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘ঢাকায় আর কোনো কল কারখানা না করার প্রস্তাবে আমি একমত। তবে এখনই এটা করা যাবে না। করলে শিল্পায়ন বন্ধ হয়ে যাবে। কর্মসংস্থানের স্বার্থে আমরা শিল্পায়ন বিস্তৃত করতে চাই। তাই এ মুহূর্তে ঢাকায় শিল্প স্থাপনের ওপর বিধি-নিষেধ আরোপ ঠিক হবে না। তবে কীভাবে কারখানাগুলো সরিয়ে নেওয়া যায় সে চিন্তা করতে হবে।’

অর্থমন্ত্রী কর্মসংস্থান তৈরি করতে নতুন নতুন শিল্প কারখানা স্থাপনের জন্য ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানান।

শিল্পকারখানা এলাকার নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা নিশ্চিত করতে খুব দ্রুত ‘শিল্পাঞ্চল পুলিশ’র সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করা হবে বলে মন্ত্রী জানান।

শিল্প কারখানায় উৎপাদন অব্যাহত রাখা এবং নতুন কারখানা চালুর জন্য বিদ্যুৎ ও গ্যাস সংযোগ অব্যাহত রাখার দাবি জানায় এফবিসিসিআই।

 এছাড়া তারা ব্যাংক-সুদের হার কমিয়ে ১০ শতাংশের নিচে নামিয়ে আনারও  দাবি জানান।  

এ বিষয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘এ বছরই সুদের হার সিঙ্গেল ডিজিটে নামিয়ে আনা সম্ভব হবে না। গ্যাসের সংযোগ প্রদানের অঙ্গীকার করা কঠিন। কেননা বিষয়টি এখনো অনিশ্চিত। তবে গ্যাসের উৎপাদন বাড়াতে আমরা বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছি।’

এ কে আজাদ চলতি অর্থবছরের বাজেটের জন্য অর্থমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ‘দেশের আইন শৃঙ্খলার অবনতি না হলে, রাজনৈতিক পরিস্থিতি স্থিতিশীল এবং সংসদ কার্যকর থাকলে বাজেটে রাজস্ব আয়ের যে লক্ষ্যমাত্রা তা অর্জন সম্ভব।’

তিনি আরও বলেন, ‘বিদ্যুৎ ও গ্যাসের অভাবে দেশের শিল্পখাত মুখ থুবড়ে পড়েছে। গ্যাস সংযোগ বন্ধ রাখার বিষয়ে আমাদের সঙ্গে কোনো রকম আলোচনা করা হয়নি।’

তাই বিদ্যুতের মতো গ্যাস খাতের উন্নয়নেও একটি রোডম্যাপ ঘোষণা করারও দাবি জানান তিনি।

বৈঠকে এফবিসিসিআই বেশ কিছু লিখিত দাবি জানায়। এগুলোর মধ্যে রয়েছে, লোকসানি সরকারি শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলো বেসরকারি খাতে ছেড়ে দেওয়া, বিনিয়োগ বোর্ডকে কার্যকর করা, বিশেষ শিল্পাঞ্চল ও  শিল্পাঞ্চল পুলিশ প্রতিষ্ঠার সিদ্ধান্ত দ্রুত বাস্তবায়ন।

বাংলাদেশ সময় : ২০৪৬ ঘণ্টা, জুলাই ০৮, ২০১০

প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির সমাবর্তন রোববার
কালীগঞ্জে রেললাইন থেকে যুবকের মরদেহ উদ্ধার
‘এভাবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে বিদায় নিতে চাইনি’
১৪ হাজার টাকায় ফিরতে পারবেন মালয়েশিয়ায় অবৈধ বাংলাদেশিরা
ইরানের ভেবে নিজেদের ড্রোন ভূপাতিত করেছে যুক্তরাষ্ট্র!


স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যার পর স্বামীর আত্মসমর্পণ
বৃষ্টিতে ফসল নষ্ট হওয়ায় লক্ষ্মীপুরে বেড়েছে সবজির দাম
বন্যার প্রভাবে বেড়েছে সবজি ও মাছের দাম
শাবিপ্রবিতে তিন দিনব্যাপী ‘স্ট্রো কার্নিভাল ফেস্ট’
বঙ্গবন্ধু সেতুতে পিকআপভ্যান উল্টে চালক নিহত