php glass

কুয়েত ফিলিপাইন ও মালয়েশিয়া থেকে জ্বালানি তেল আমদানির সিদ্ধান্ত

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

কুয়েত, ফিলিপাইন ও মালয়েশিয়া থেকে মোট ১২ লাখ ৫৪ হাজার মেট্রিক টন পরিশোধিত জ্বালানি তেল আমদানি করতে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগকে অনুমতি দিয়েছে ।

ঢাকা: কুয়েত, ফিলিপাইন ও মালয়েশিয়া থেকে মোট ১২ লাখ ৫৪ হাজার মেট্রিক টন পরিশোধিত জ্বালানি তেল আমদানি করতে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগকে অনুমতি দিয়েছে ।  বৃহস্পতিবার সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিপরিষদ কমিটির বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের উপসচিব মো. নূর-উর-রহমান বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম.বিডিকে এ সিদ্ধান্তের কথা জানান।

কমিটির আহবায়ক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, পরিকল্পনা মন্ত্রী এ কে খন্দকার, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী মো. এনামুল হকসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

জানা গেছে, পরিশোধিত জ্বালানি তেল আমাদানির লক্ষ্যে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশন (বিপিসি) এবং কুয়েত পেট্রোলিয়াম করপোরেশনের (কেপিসি) মধ্যে গত ১৯ ও ২০ এপ্রিল সিঙ্গাপুরে একটি দ্বি-পাক্ষিক বৈঠক হয়। ওই বৈঠকে প্রতি ব্যারেল ৩ দশমিক ৪০ মার্কিণ ডলার প্রিমিয়ামে ৫ লাখ ২০ হাজার মেট্রিক টন ডিজেল ও প্রতি ব্যারেল ৪ দশমকি ৪০ মার্কিণ ডলার প্রিমিয়ামে ১ লাখ ৪০ হাজার মেট্রিক টন জেট এ-১ ফুয়েল মিলে মোট ৬ লাখ ৬০ হাজার মেট্রিক টন পরিশোধিত জ্বালানি তেল সরবরাহে কেপিসি সম্মত হয়।

জুলাই থেকে ডিসেম্বর সময়সীমার মধ্যে চট্টগ্রাম বন্দরের মাধ্যমে কেপিসি এই তেল সরবরাহ করবে।

ফিলিপাইনের পিএনওসি এক্সপ্লোরেশন করপোরেশনের (পিএনওসি ইসি) সঙ্গে বিপিসির বৈঠকটি হয় গত ২৭ মে। বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়, পিএনওসি ইসি প্রতি ব্যারেল ৩ দশমকি ৩৯ মার্কিণ ডলার প্রিমিয়ামে ৮৮ হাজার মেট্রিকটন ডিজেল, প্রতি ব্যারেল ৪ দশমকি ৩৯ মার্কিণ ডলার প্রিমিয়ামে ২০ হাজার মেট্রিক টন কেরোসিন এবং প্রতি ব্যারেল ৭ দশমকি ২০ মার্কিণ ডলার প্রিমিয়ামে ১২ হাজার মেট্রিকটন অকটেন মিলে মোট এক লাখ ২০ হাজার মেট্রিক টন পরিশোধিত জ্বালানি তেল দেবে।

মালয়েশিয়ার পেট্রোনাস টেডিং করপোরেশন এসডিএন বিএইচডির (পিইটিসিও)’র সঙ্গে গত ২৪ ও ২৫ মে তারিখে কুয়ালালামপুরে বৈঠক করে বিপিসি। ওই বৈঠকে পিইটিসিও থেকে প্রতি ব্যারেল ৩ দশমকি ৩৯ মার্কিণ ডলার প্রিমিয়ামে ৩ লাখ ৭০ হাজার মেট্রিক টন ডিজেল, প্রতি ব্যারেল ৪ দশমকি ৩৯ মার্কিণ ডলার প্রিমিয়ামে ৫০ হাজার মেট্রিক টন কেরোসিন, প্রতি ব্যারেল ৪ দশমকি ৩৯ মার্কিণ ডলার প্রিমিয়ামে ৩০ হাজার মেট্রিক টন জেট এ-১ এবং প্রতি ব্যারেল ৭ দশমকি ২০ মার্কিণ ডলার প্রিমিয়ামে ২৪ হাজার মেট্রিক টন অকটেন মিলে মোট চার লাখ ৭৪ হাজার মেট্রিকটন পরিশোধিত জ্বালানি তেল আমদানির সিদ্ধান্ত হয়।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের জুলাই থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত সময়ে দেশে পরিশোধিত জ্বালানি তেলের মোট চাহিদা মোট ১৭ লাখ ৪৮ হাজার মেট্রিক টন। এরমধ্যে ১৩ লাখ মেট্রিক টন ডিজেল, ২ লাখ মেট্রিক টন করে কেরোসিন ও জেট এ-১ এবং ৪৮ হাজার মেট্রিকটন অকটেনের চাহিদা রয়েছে।

বাংলাদেশ সময় : ১৮২২ ঘন্টা, ৮ জুলাই, ২০১০

১০কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে সার্জেন্ট কিবরিয়ার বাবার রিট
সাদিয়ার চিকিৎসার জন্য সাহায্যের আবেদন 
ধর্ষণ মামলায় অব্যাহতি পেলেন রোনালদো
রাতে শেষ হচ্ছে নিষেধাজ্ঞা, সাগরে যেতে প্রস্তুত জেলেরা
২৯ জুলাই থেকে রেলের আগাম টিকিট, ফিরতি ৫ আগস্ট


মেয়াদোত্তীর্ণ ফিটনেসবিহীন গাড়ি ৪ লাখ ৭৯ হাজার ৩২০
সীমান্ত থেকে দু’বার রাশিয়ান জেট তাড়ালো দক্ষিণ কোরিয়া 
সূচকের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় পুঁজিবাজারে লেনদেন
ঢাবিতে অধিভুক্তি বাতিলের দাবিতে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন
নিষেধাজ্ঞা শেষে সাগরে যাত্রার প্রস্তুতি জেলেদের