php glass

বিডিআর বিদ্রোহ

‘জন্মদাগের কারণে আমি কেন শাস্তি পাবো’

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

‘মাননীয় আদালত, আমি সিপাহি ফারুক হোসেন। ২০০৯ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি সংঘটিত বিডিআর বিদ্রোহের ঘটনায় আমাকে অভিযুক্ত করা হয়েছে।  মেডিকেল রিপোর্টে বলা হয়েছে, আমি সেদিন অস্ত্র ব্যবহার করেছিলাম।

ঢাকা: ‘মাননীয় আদালত, আমি সিপাহি ফারুক হোসেন। ২০০৯ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি সংঘটিত বিডিআর বিদ্রোহের ঘটনায় আমাকে অভিযুক্ত করা হয়েছে।  মেডিকেল রিপোর্টে বলা হয়েছে, আমি সেদিন অস্ত্র ব্যবহার করেছিলাম। অস্ত্র বহনের কারণে আমার বুকের এক পাশে দাগ পেয়েছেন মেডিকেলের বিশেষজ্ঞ দল। কিন্তু আদালত, এটি আমার জন্মদাগ। বিষয়টি আমি চিকিৎসকদের বলেছি, কিন্তু তারা ধমক দিয়ে চুপ থাকতে বলেছেন আমাকে।’

কথাগুলো বলেই আদালতে শার্ট খুলে ফেললেন সিপাহী ফারুক। তিনি দাবি করেন একটি জন্মদাগের কারণে কেন তাকে এ ঘটনায় শাস্তি পেতে হবে। এরপর আদালত তার কথা শুনে বিষয়টি বিবেচনার আশ্বাস দেন।

বৃহস্পতিবার পিলখানা দরবার হলে স্থাপিত বিশেষ আদালত-৭ এ বিডিআর বিদ্রোহের বিচার চলাকালীন ঘটে এ ঘটনা। সকাল নয়টা থেকে দুপুর একটা পর্যন্ত ২৪ রাইফেল ব্যাটালিয়নের বিচারকাজ চলে। বিচার কার্যক্রমে চারজন সাক্ষী আদালতে জবানবন্দী দেন। এর মধ্যে ৩৮ জন আসামি তিনজন সাক্ষীকে জেরা করেন। আগামী ৪ ডিসেম্বর আদালতে পুনরায় বিচারকাজ চলবে বলে ঘোষণাও দেন বিচারক।

বৃহস্পতিবার বিশেষ আদালত-৭ এর সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন মেজর জেনারেল মো. রফিকুল ইসলাম। তাকে সহযোগিতা করেন লে:কর্নেল মো. গোলাম রব্বানি, মেজর সাঈদ হাসান তাপস, ডেপুটি অ্যাটনিী জেনারেল মোহাম্মদ সোহরাওয়ার্দী।  

পরে প্রসিকিউটর লে: কর্নেল মো. শামছুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, ২০০৯ সালে ঘটনার দিন ২৮ রাইফেল ব্যাটালিয়নের কয়েকজন সশস্ত্র বিদ্রোহী সংঘবদ্ধভাবে ২৪ রাইফেল ব্যাটালিয়নের সিগন্যাল অপারেটিং রুমে তল্লাশি চালান। এ সময় ২৪ রাইফেল ব্যাটালিয়নের কয়েকজন সিপাহি তাদের সহযোগিতা করেন। তারা একত্রিত হয়ে অধিনায়ক লে: কর্নেল মো. লুৎফর রহমানকে টেনে হিঁচড়ে তার নিজ অফিস থেকে ধরে নিয়ে যান ও লাঞ্ছিত করেন।’

তবে এসব ঘটনায় যেসব আসামিকে অভিযুক্ত করা হয়েছে তাদের সবাই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তারা সাক্ষীদের বক্তব্যকে মিথ্যা ও বানোয়াট বলে উল্লেখ করেন। এ সময় আদালতে হৈ চৈ এর শব্দ শোনা যায়।
অপরদিকে সাক্ষীরা আদালতে ঘটনার সঙ্গে আসামিদের সম্পৃক্ততার বিষয়টি প্রমাণ করতে মোবাইল নম্বরে তাদের যোগাযোগের চিত্র তুলে ধরেন।

বাংলাদেশ সময়ঃ ১৪২৫ঘণ্টা, ২ ডিসেম্বর, ২০১০

ksrm
স্কুল ভবন থেকে লাফিয়ে পড়ে এক ছাত্রের আত্মহত্যাচেষ্টা
ই-নামজারি সেবা নিশ্চিতে অক্টোবরেই হটলাইন চালু
আদিতমারীতে স্কুলছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার
রোহিঙ্গাদের পরিচয়পত্র দেওয়ায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা
ন্যায্য অধিকার আদায়ে জাপা সবসময় শ্রমিকদের পাশে থাকবে


চাকরি না হওয়ার কারণ ফেসবুক!
রংপুর উপ-নির্বাচন: সরে দাঁড়ালেন আ’লীগের প্রার্থী
অবশেষে বার্সার অনুশীলনে মেসি
কুষ্টিয়ায় মাদক মামলায় একজনের যাবজ্জীবন
উখিয়ায় বিদেশি পিস্তলসহ রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী আটক