php glass

দশ ট্রাক অস্ত্র মামলা: ৫ দিনের রিমান্ডে সাবেক এনএসআই প্রধান

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

চাঞ্চল্যকর দশ ট্রাক অস্ত্রমামলায় রাষ্ট্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা এনএসআইয়ের সাবেক মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আবদুর রহিমকে ৫ দিনের রিমান্ডে দিয়েছেন আদালত।

চট্টগ্রাম: চাঞ্চল্যকর দশ ট্রাক অস্ত্রমামলায় রাষ্ট্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা এনএসআইয়ের সাবেক মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আবদুর রহিমকে ৫ দিনের রিমান্ডে দিয়েছেন আদালত।

বুধবার চট্টগ্রামের মুখ্য মহানগর হাকিম পরেশ চন্দ্র শর্মার আদালতে মামলার তদন্তকারী সংস্থা সিআইডির রিমান্ড আবেদনের ওপর শুনানি শেষে বিচারক এ আদেশ দেন। শুনানির সময় আব্দুর রহিমকে আদালতে হাজির করা হয়।

মঙ্গলবার বিকেলে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও সিআইডির চট্টগ্রাম অঞ্চলের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) মো. মনিরুজ্জামান এ মামলায় রাষ্ট্রপরে আইনজীবী অ্যাডভোকেট কামালউদ্দিনের মাধ্যমে আব্দুর রহিমকে ১০ দিনের রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন জানান।

একইসঙ্গে সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবরকেও  দশ দিনের রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন জানান ওই তদন্তকারী কর্মকর্তা। আদালত আগামী ৬ ডিসেম্বর এ রিমান্ড আবেদনের শুনানির দিন ধার্য করেছেন।

রিমান্ড শুনানিতে অংশ নেন মামলায় রাষ্ট্রপরে কৌঁসুলি ও মহানগর পিপি অ্যাডভোকেট কামালউদ্দিন আহমেদ এবং চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি)’র সহকারী কমিশনার (প্রসিকিউশন) নির্মলেন্দু বিকাশ চক্রবর্ত্তী।

নির্মলেন্দু বিকাশ চক্রবর্ত্তী আবদুর রহিমকে ৫ দিনের রিমান্ডে দেওয়ার কথা স্বীকার করেছেন।

রিমান্ড শুনানি প্রসঙ্গে নির্মলেন্দু বিকাশ চক্রবর্ত্তী বাংলানিউজকে বলেন, ‘শুনানিতে আমরা আদালতকে বলেছি, আব্দুর রহিম অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জেনেও এর আগে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে তা উল্লেখ করেননি।’

তিনি বলেন, ‘আমরা আদালতকে আরও বলেছি, অস্ত্র আটকের সময় এনএসআই’র এক মেজর তৎকালীন ডিসি (নর্থ) আব্দুল্লাহ হেল বাকীর সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েছিলেন। বিষয়টি জেনেও তিনি জবানবন্দিতে উল্লেখ করেননি। এছাড়া অস্ত্র চালান খালাস ও সরবরাহের সঙ্গে এনএসআই’র ফিল্ড অফিসার আকবর হোসেন জড়িত থাকার সুস্পষ্ট প্রমাণ থাকলেও তিনি কোনো ব্যবস্থা নেননি। দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব নস্যাতের সঙ্গে জড়িত এতো বড় একটি ঘটনা কেন তিনি ধামাচাপা দিতে চেয়েছিলেন বিষয়টি উদঘাটন হওয়া প্রয়োজন।’

এ নিয়ে এনএসআই’র সাবেক প্রধান আব্দুর রহিমকে তৃতীয় দফায় রিমান্ডে নেওয়া হচ্ছে। সর্বশেষ ২০০৯ সালের ২০ মে তাকে দ্বিতীয় দফায় ছয় দিনের রিমান্ডে নিয়েছিল সিআইডি। আবদুর রহিম সে সময় আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিও দিয়েছিলেন।
 
এর আগে সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবরকে ৫ দিনের রিমান্ডে নিয়ে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করে সিআইডি।

উল্লেখ্য, দশ ট্রাক অস্ত্র আটকের ঘটনায় অস্ত্র আটক ও চোরাচালান আইনে দায়ের হওয়া দুটি মামলায় পুলিশ এর আগে অভিযোগপত্র দাখিল করলেও বিগত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে ২০০৮ সালের ১২ ফেব্র“য়ারি মহানগর দায়রা জজ মামলাটি অধিকতর তদন্তের নির্দেশ দেন।

অধিকতর তদন্ত শুরুর পর থেকে মামলার তদন্তকারী সংস্থা সিআইডি এ পর্যন্ত সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর, গোয়েন্দা সংস্থা এনএসআইয়ের সাবেক দুই মহাপরিচালক মেজর জেনারেল (অব.) রেজ্জাকুল হায়দার চৌধুরী, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আবদুর রহিম, সাবেক পরিচালক উইং কমান্ডার শাহাবুদ্দিন, উপ-পরিচালক মেজর (অব.) লিয়াকত হোসেন, ফিল্ড অফিসার আকবর হোসেন,  চট্টগ্রাম ইউরিয়া ফার্টিলাইজার কোম্পানি লিমিটেডের (সিইউএফএল)’র সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহসিন উদ্দিন চৌধুরী, মহাব্যবস্থাপক (প্রশাসন) একেএম এনামুল হককে গ্রেপ্তার করেন। এদের কয়েকজন এ ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দিও দেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৭২৪ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০১, ২০১০

ksrm
‘এ শিক্ষা আমরা অন্যদের মাঝেও ছড়িয়ে দেবো’
সফলতা যদি সত্যি চান...
ছাগল পালন করে স্বাবলম্বী করিম
মঠবাড়িয়ায় গৃহকর্মীকে গণধর্ষণে থানায় মামলা
মাল্টা চাষে স্বাবলম্বী ঘোড়াঘাটের আবু সায়াদ


ঝালমুড়ি খাওয়ানোর লোভ দেখিয়ে শিশুকে ধর্ষণ!
সিরিজ ড্র করল ইংল্যান্ড, ট্রফি অস্ট্রেলিয়ারই
মারাঠি সিনেমার গানে অনুপম রায়
রাজবাড়ীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৮ মামলার আসামি নিহত
বাংলানিউজে কাজের সুযোগ