php glass

রাজশাহীতে থানা ঘেরাও করে আ’লীগ নেতাকে ছাড়িয়ে নিলেন সহকর্মীরা

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

রাজশাহীর মোহনপুরে মঙ্গলবার রাতে থানা ঘেরাও করে এক আওয়ামী লীগ নেতাকে ছাড়িয়ে নিয়ে গেছেন উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা।

রাজশাহী: রাজশাহীর মোহনপুরে মঙ্গলবার রাতে থানা ঘেরাও করে এক আওয়ামী লীগ নেতাকে ছাড়িয়ে নিয়ে গেছেন উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা।

থানা ঘেরাওকারীরা আটক আওয়ামী লীগ নেতার মুক্তি ও ওসি আহসান হাবীবের অপসারণ দাবিতে বিােভ করেন।

পরে রাত সাড়ে ৮ টার দিকে পুলিশ আটক আওয়ামী লীগ নেতা এনামুলক হককে ছেড়ে দিলে ঘেরাও তুলে নেওয়া হয়।

মোহনপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহসান হাবীব বাংলানিউজকে জানান, আটক আওয়ামী লীগ নেতা এনামুলকে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজ উদ্দিন কবিরাজের জিম্মায় ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

মোহনপুর থানার এক পুলিশ কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করে বাংলানিউজকে জানান, জাহানাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এনামুলক হক বিকাল সাড়ে ৪ টার দিকে উপজেলা চত্বরের এক চায়ের দোকানে ওসিকে ফোন করে গালাগালি করেন। এ কারণে বিকাল সাড়ে ৪ টার দিকে পুলিশ বাকশিমুইল স্কুলমাঠ থেকে তাকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

পুলিশ কর্মকর্তা জানান, এনামুলকে সঙ্গে সঙ্গে উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে গিয়ে পেট ওয়াশ করানো হয়। পরে তাকে থানায় এনে হাজতে আটকে রাখা হয়।

তিনি জানান, অতিরিক্ত মদ্যপানের কারণে তিনি অনেকটা বেহুঁশ ছিলেন।
 
পুলিশ ও প্রত্যদর্শীরা জানান, এনামুলকে আটকের খবর পেয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজ কবিরাজের নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ ও  সহযোগী সংগঠনের শতাধিক নেতা-কর্মী থানার সামনে এসে বিােভ শুরু করেন। খবর পেয়ে রাজশাহী থেকে অতিরিক্ত পুলিশ ফোর্স মোহনপুর থানায় গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে। এ সময় থানার প্রধান দরজা বন্ধ করে দেওয়া হয়।

অন্যদিকে আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীরা আটক এনামুল হকের মুক্তি ও  ওসির অপসারন দাবিতে মোহনপুর বাজার এলাকায় দফায় দফায় বিক্ষোভ মিছিল করেন। মোহনপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি দিলীপ কুমার তপন বাংলানিউজকে অভিযোগ করে বলেন, ‘বিকালে এনামুল হক বাকশিমুইল স্কুলমাঠে বসে কয়েকজনের সঙ্গে গল্প করছিলেন। এ সময় মোহনপুর থানাপুলিশ তাকে আটক করে নিয়ে যায় এবং থানা হাজতে আটকে রাখে।’

তিনি বলেন, ‘এ খবর পেয়ে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা থানায় গিয়ে ওসির সঙ্গে কথা বলতে চাইলেও ওসি তার ক থেকে বের না হয়ে সবাইকে থানা থেকে বের করে দেওয়ার নির্দেশ দেন ডিউটি অফিসারকে।’

তিনি জানান, এরপর থেকেই তারা এনামুলের মুক্তি ও ওসির অপসারণের দাবিতে বিােভ করেন।

দিলীপের দাবি, এনামুলকে পুলিশ কারণ ছাড়াই আটক করেছিল।
    
বাংলাদশে সময়: ১০২১ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০১, ২০১০

ksrm
স্কুল ভবন থেকে লাফিয়ে পড়ে এক ছাত্রের আত্মহত্যাচেষ্টা
ই-নামজারি সেবা নিশ্চিতে অক্টোবরেই হটলাইন চালু
আদিতমারীতে স্কুলছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার
রোহিঙ্গাদের পরিচয়পত্র দেওয়ায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা
ন্যায্য অধিকার আদায়ে জাপা সবসময় শ্রমিকদের পাশে থাকবে


চাকরি না হওয়ার করণ ফেসবুক!
রংপুর উপ-নির্বাচন: সরে দাঁড়ালেন আ’লীগের প্রার্থী
অবশেষে বার্সার অনুশীলনে মেসি
কুষ্টিয়ায় মাদক মামলায় একজনের যাবজ্জীবন
উখিয়ায় বিদেশি পিস্তলসহ রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী আটক