নিখোঁজদের সন্ধানে লাশঘরে স্বজনদের আহাজারি

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

দক্ষিণ যাত্রাবাড়ির নকল সলিউশন কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের পর নিখোঁজ শ্রমিকদের সন্ধানে হাসপাতাল আর ক্লিনিকে ছোটাছুটি করছেন স্বজনরা। ভিড় করছেন মিটফোর্ড হাসপাতালের মর্গ আর ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের লাশঘরে।

php glass

ঢাকা : দক্ষিণ যাত্রাবাড়ির নকল সলিউশন কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের পর নিখোঁজ শ্রমিকদের সন্ধানে হাসপাতাল আর ক্লিনিকে ছোটাছুটি করছেন স্বজনরা। ভিড় করছেন মিটফোর্ড হাসপাতালের মর্গ আর ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের লাশঘরে।

বুক চাপড়ে বিলাপ করে ছোটাছুটি করছিলেন আনোয়ারা খাতুন (৫৫)। ধোলাইপাড় এলাকায় তিনি বাস করেন। তার মেয়ে সখিনা আক্তার ওরফে সখিকে (২৪) ওই কারখানায় কাজ করতেন। তাকে কোথাও পাওয়া যাচ্ছে না। কোনো হাসপাতালেও তাকে পাওয়া যায়নি। অগ্নিকাণ্ডে ৭ মৃতদেহের মধ্যে তার মেয়ে সখি আছে কি-না তা বুঝতেও পারছেন না। মিটফোর্ড হাসপাতালে রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্ত তাকে কান্নাকাটি করে ঘুরতে দেখা গেছে।

ধোলাইপাড়ের ডিপটি গলির আলামিন তার ম্যালিকাকে খুঁজতে এসেছেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। শ্যালিকা সুমি (২০) তার বাসায় থেকে ওই কারখানায় কাজ করতেন।

ধনিয়া এলাকার রোমান মিয়া নামে এক যুবক বিভিন্ন স্থানে খোঁজ করছেন আকলিমা বেগম (১৭) ও আলেয়া খাতুনকে (১৮)। আলেয়া রোমানের চাচাতো বোন আর আকলিমা হচ্ছে আলেয়ার বান্ধবী। দু’জনই পুড়ে যাওয়া কারখানায় বয়লার শাখায় কাজ করতেন বলে জানান রোমান। কিনিকে কিংবা হাসপাতালের কোথাও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না তাদের। মিটফোর্ড হাসপাতাল মর্গের লাশগুলোর খুব কাছ থেকে দেখেও তিনি বুঝতে পারছেন না কে আলেয়া, কে আকলিমা।

রাত ১০টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত হাসপাতালের আঙিনা ছাড়েননি স্বজনরা। তারা খুঁজে ফিরছেন কোহিনুর বেগম (৩০), জয়নাল মিয়ার (৩৫) মতো নিখোঁজ স্বজনদের।

বাংলাদেশ সময় : ২২৩০ ঘণ্টা, অক্টোবর ০৬, ২০১০  

ধনবাড়ীতে গলায় ফাঁস দিয়ে ভ্যানচালকের আত্মহত্যা
ববি শিক্ষার্থীদের ব্যতিক্রমী কর্মসূচি
রাঙামাটিতে পুলিশ সদস্যর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার
ঘটনাস্থলে গিয়ে নুসরাত হত্যার বর্ণনা দিলেন ‘মনি’
গাজীপু‌রে পুলিশের কাছ থেকে আসামির পলায়ন


ভোলায় জ্বিন তাড়াতে গৃহবধূর গায়ে আগুন, আটক ২
ঘাটাইলে ট্রাক-অটোরিকশা সংর্ঘষে যুবক নিহত
তাড়াইলে আগুনে ৩ বসতঘর পুড়ে ছাই
কোহলির সেঞ্চুরিতে ম্লান রানা-রাসেল ঝড়
নিরোধ-শান্তা শিক্ষাবৃত্তি পেলো ১০২ শিক্ষার্থী